NAVIGATION MENU

অবাধ চলাফেরায় দেশে সংক্রমণের হার বাড়ছে: স্বাস্থ্যমন্ত্রী


ব্যবসা-বাণিজ্য ও গণপরিবহনে অবাধ চলাফেরা করায় দেশে করোনাভাইরাস সংক্রমণের হার বাড়ছে বলে জানিয়েছেন স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ মন্ত্রী জাহিদ মালেক।

শুক্রবার (১৮ জুন) দুপুরে মানিকগঞ্জ সদর উপজেলার গড়পাড়া নিজ বাসবভনে স্থানীয় জনপ্রতিনিধিদের সঙ্গে মতবিনিময়ের সময় মন্ত্রী এ কথা বলেন।

এ সময় স্বাস্থ্যমন্ত্রী বলেন, ‘সংক্রমণের হার যদি আমাদের রোধ করতে হয়, তাহলে কঠোরভাবে আমাদের স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলতে হবে। ব্যবসাপ্রতিষ্ঠান ও গণপরিবহনে স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলতে হবে। কারণ, গণপরিবহনে গাদাগাদি করে যাত্রী যাতায়াত করে। এসব কারণে সংক্রমণের হার বাড়ছে। অতএব, গণপরিবহনে সরকারের নির্দেশ মেনে যাতায়াত করতে হবে এবং অর্ধেক সিট খালি রাখতে হবে। আমরা দেখছি গণপরিবহনে এসব মানা হচ্ছে না।’

তিনি বলেন, ‘দেশে যখন করোনা মোটামুটি নিয়ন্ত্রণে ছিল, তখন সারাদেশে দেড় হাজারের মতো রোগী ছিল। সংক্রমণ বাড়ায় বর্তমানে সারাদেশে চার হাজারের মতো রোগী আছে এবং প্রত্যেকদিন প্রায় চার হাজারের কাছে রোগী আক্রান্ত হচ্ছেন। বর্তমান হারে যদি রোগী বাড়ে, তাহলে কোন এক সময়ে হাসপাতালে জায়গা দেওয়া কঠিন হয়ে যাবে।’

মন্ত্রী বলেন, ‘উত্তরবঙ্গের হাসপাতালগুলোতে রোগীতে ভরে গেছে। দেশের উত্তরবঙ্গে কোনো কোনো জেলায় করোনা সংক্রমণ ৩০-৪০ শতাংশ হয়ে গেছে। ফলে রোগীদের সামাল দেওয়া কঠিন হচ্ছে।’

তিনি বলেন, ‘আমরা চাইনা ঢাকা ও দেশের অন্যান্য জেলাগুলোতে এই সমস্যা দেখা দিক। রাজশাহী, চাঁপাইনবাবগঞ্জ, রংপুর, খুলনা, সাতক্ষীরা ও নওগাঁ জেলায় করোনা সংক্রমণ হার বেশি।’

স্বাস্থ্যমন্ত্রী বলেন, ‘নোয়াখালীতেও করোনা বাড়তি এবং রাজবাড়ী পর্যন্তও করোনা সংক্রমণ হার বৃদ্ধি পাচ্ছে। ব্যবসা-বাণিজ্যের জন্য মানুষের যাতায়াত বাড়ছে। আমের সিজনে আম কেনাকাটা ও ধান কাটার জন্য লোক যাওয়া আসা করেছে। এ কারণে করোনা সংক্রমণ কিছুটা বৃদ্ধি পেয়েছে।’

এমআইআর/এডিবি/