NAVIGATION MENU

আনারস খাওয়ার ৭ উপকারিতা!


আনারস এক প্রকারের গুচ্ছফল। এটি একটি মৌসুমি ফল, যা অসংখ্য পুষ্টিগুণে সমৃদ্ধ। আনারস স্বাদে অতুলনীয় এবং স্বাস্থ্যকর। আনারস খাওয়া শরীরে জন্য অত্যন্ত জরুরি।

এই ফল শরীরে পানির ঘাটতি পুরণের সঙ্গে সঙ্গে নানান রোগ থেকে আমাদের রক্ষা করে। সারাদিন রোজা রেখে ইফতারে আনারস খাওয়া খুবই উপকারী কারণ আনারস এই গরমে দেহে পুষ্টির যোগান দেয়।

চলুন জেনে নেওয়া যাক আনারসের সাতটি উপকারিতা সম্পর্কে-

● আনারসের খাওয়ার মাধ্যমে হাড়ের সমস্যাজনিত যে কোনো রোগ প্রতিরোধ করা সম্ভব। কারণ ক্যালসিয়াম ও ম্যাঙ্গানিজে ভরপুর আনারস। ক্যালসিয়াম হাড়ের গঠনে এবং ম্যাঙ্গানিজ হাড়কে মজবুত করতে বেশ গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করে।

● আনারসে ক্যালসিয়াম থাকায় দাঁত ও মাড়ির যে কোনো সমস্যা সমাধানে বেশ কার্যকর ভূমিকা পালন করে। প্রতিদিন আনারস খেলে দাঁতে জীবাণুর আক্রমণ কম হয় এবং দাঁত ভালো থাকে।

● আনারসে প্রচুর পরিমাণে ভিটামিন এ এবং সি, ক্যালসিয়াম, পটাশিয়াম ও ফসফরাস রয়েছে। আর এসব উপাদান আমাদের দেহের পুষ্টির অভাব পূরণে কার্যকর ভূমিকা পালন করে।

● আনারসে প্রচুর ফাইবার এবং ফ্যাট কম থাকায় ওজন কমাতে সাহায্য করে। সকালে আনারস বা সালাদ হিসেবে এর ব্যবহার অথবা আনারসের জুস অনেক বেশি স্বাস্থ্যকর।

● বদহজম বা হজমজনিত যে কোনো সমস্যা থেকে মুক্তি পেতে প্রতিদিন আনারস খাওয়া অত্যন্ত জরুরি কারণ আনারসে থাকা ব্রোমেলিন আমাদের হজমশক্তিকে উন্নত করতে সাহায্য করে।

● আনারস দেহে রক্ত জমাট বাঁধতে বাধা দেয়। ফলে শিরা-ধমনির (রক্তবাহী নালি) দেয়ালে রক্ত না জমার জন্য সারা শরীরে সঠিকভাবে রক্ত যেতে পারে। হৃদপিণ্ড আমাদের শরীরে অক্সিজেনযুক্ত রক্ত সরবরাহ করে। আর আনারস রক্ত পরিষ্কার করে হৃদপিণ্ডকে কাজ করতে সাহায্য করে।

● আনারসে রয়েছে বেটা ক্যারোটিন। আনারস ম্যাক্যুলার ডিগ্রেডেশন হওয়া থেকে আমাদের রক্ষা করে। এ রোগটি আমাদের চোখের রেটিনা নষ্ট করে দেয় এবং আমরা ধীরে ধীরে অন্ধ হয়ে যাই।

প্রতিদিন আনারস খেলে এ রোগ হওয়ার সম্ভাবনা ৩০ শতাংশ পর্যন্ত কমে যায়। চোখ সুস্থ রাখতে আনারসের ভূমিকা অপরিসীম।

ওয়াই এ/এডিবি