NAVIGATION MENU

ইলিশের বারবিকিউতে জমবে ডিনার


কম বেশি সকলেই ইলিশ খেতে পচ্ছন্দ করি। ভাপা থেকে পাতুরি, ভাজা কিংবা ঝোল পাতে থাকা চাই ই। তবে যদি হয় ইলিশের বারবিকিউ,তাহলেতো ইলিশের স্বাদ বেড়ে যায় দ্বিগুণ।

তেলাপিয়া, রূপচাঁদা কিংবা কোরাল মাছের বারবিকিউ খাওয়া হয়েই থাকে। তবে ইলিশের বারবিকিউ সচারচার খাওয়া হয় না। তাই বাড়িতে বন্ধু বা প্রিয়জনের জন্য তৈরি করতে পারেন ইলিশের বারবিকিউ।

চলুন জেনে নিই ইলিশের বারবিকিউ রেসিপিটি- 

উপকরণ: ইলিশ মাছ ২টি, লাল মরিচের গুঁড়া দেড় চা চামচ, ধনিয়া গুঁড়া এক চা চামচ, আদাবাটা দেড় চা চামচ, রসুনবাটা দেড় চা চামচ, অয়েস্টার সস আড়াই টেবিল চামচ, টকদই আধা কাপ, সরিষা ভেজে গুঁড়া করা দেড় চা চামচ, গোলমরিচের গুঁড়া আধা চা চামচ, জাফরান রং সামান্য, সরিষার তেল আধা কাপ, জিরার গুঁড়া আধা চা চামচ, টমেটোর সস আধা কাপ, জায়ফল, জয়ত্রী, লবঙ্গ, এলাচসহ সব ধরনের গরম মসলা ভেজে গুঁড়া করা দেড় চা চামচ, লবণ, চিনি ও বারবিকিউ সস স্বাদ মতো, এক টুকরো কয়লা ( স্মোকি ফ্লেবারের জন্য)।

প্রণালী: মাছ কেটে, ধুয়ে পানি ঝরিয়ে নিন। ছুরি দিয়ে একটু চিরে নিন। বারবিকিউ সস বাদে অন্য সব উপকরণ একত্রে মিশিয়ে আট ঘণ্টা মেরিনেট করে ফ্রিজে রাখুন। বড় ফ্রাইপ্যানে তেল ব্রাশ করে মাছ চুলায় বসান। একপাশ হয়ে এলে সাবধানে উল্টে দিন। উপরে একটু পর পর বারবিকিউ সস ব্রাশ করে দিন।  

মাছ একটু পোড়া পোড়া হলে নামিয়ে বড় একটি ঢাকনাযুক্ত পাত্রে রাখুন। এর মধ্যে ছোট বাটিতে কয়লা গরম করে বসিয়ে দিন। এবের কয়লার উপর সামান্য ঘি দিন। সঙ্গে সঙ্গে পাত্রের মুখটা ঢেকে দিন। এভাবে মিনিট দুয়েক রাখতে পারেন। এবার সালাদ বা সস দিয়ে সাজিয়ে পরিবেশন করুন মজাদার ইলিশের বারবিকিউ।

সিবি/ওআ