NAVIGATION MENU

করোনার প্রভাবে ক্রয় আদেশ বাতিল করতে চাচ্ছে ইতালি: বাণিজ্যমন্ত্রী


নিজস্ব প্রতিবেদক: করোনাভাইরাসের প্রভাবে ইতালিসহ বেশকিছু দেশ তাদের ক্রয় আদেশ বাতিল করতে চাচ্ছে। তবে তৈরি পোশাক শিল্প বন্ধ করে দেওয়ার মতো পরিস্থিতি তৈরি হয়নি বলে উল্লেখ করেছেন বাণিজ্যমন্ত্রী টিপু মুনশি।

রবিবার (১৫ মার্চ) সচিবালয়ে সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে এ কথা বলেন তিনি। 

তিনি বলেন, ‘ইতালি এই ভাইরাসের জন্য ব্যবসা বাণিজ্যে বড় রকমের বিধি-নিষেধ আরোপ করতে যাচ্ছে। এরই মধ্যে বাংলাদেশের সঙ্গে তাদের ক্রয়াদেশও বাতিল করতে চাচ্ছে। ক্রয়াদেশ বাতিল করলে নেতিবাচক প্রভাব পড়বে দেশের অর্থনীতিতে।’

বাণিজ্যমন্ত্রী বলেন, ‘যেখান থেকে কাঁচামাল আনা হয় সেখানে আমরা ধীরগতি দেখছি। তবে সুখের বিষয় হলো চায়নাতে শ্রমিকরা আবার কারখানায় ফিরে গেছে। তারা আবার নতুন করে শুরু করেছে। এর কিছুটা প্রভাব পড়েছে আমাদের আমদানির ওপর। সেটা কিভাবে পূরণ করা যায় সেই চেষ্টা চলছে।‘

তিনি বলেন, ‘করোনার করণে সমস্যা সার্বিকভাবে সারা পৃথিবীজুড়ে রয়েছে। যোগাযোগ বন্ধ, ট্রাভেল বন্ধ করে দেওয়া হয়েছে। তার একটা প্রভাব যখন সারা পৃথিবীতে পড়বে তখন কিছু প্রভাব আমাদের দেশে পড়বে।’

টিপু মুনশি বলেন, ’বাংলাদেশে করোনার প্রভাবের ভিত্তি তেমন বেশি মাত্রায় পায়নি। মাত্র তিন জন করোনায় আক্রান্ত হয়েছে। তারা আবার সুস্থ্য হয়েও গেছে। এখনো সে রকম কোনো সমস্যা হয়নি যে গার্মেন্টস শিল্পে এধরনের প্রভাব পড়বে না বলেও আশা প্রকাশ করেন তিনি।’

ক্রয়াদেশ বাতিল দেশ সম্পর্কে বাণিজ্যমন্ত্রী বলেন, ‘ইতালি কিছু কিছু ক্রয়াদেশ বাতিল করেছে। এটা বড় সমস্যা হচ্ছে সঠিক সময় পণ্য না পাওয়ার কারণে তারা আদেশ বাতিল করতে চাচ্ছে। তাছাড়া যে সমস্ত দেশ নেবে তাদেরও করোনার ভয় আছে। সারা পৃথিবী একটা অস্থির সময় পার করছে। আমরা আশা করছে খুব শিগগিরই এ অবস্থা থেকে বেরিয়ে আসতে পারবো।’

এমআইআর/এডিবি

সর্বশেষ সংবাদ পেতে ভিজিট করুন আজকের বাংলাদেশ পোস্ট