NAVIGATION MENU

করোনা আক্রান্ত অভিনেতা সাদেক বাচ্চু


করোনাভাইরাস আক্রান্ত হয়েছেন অভিনেতা সাদেক বাচ্চু।

শুক্রবার (১১ সেপ্টেম্বর) তার রিপোর্ট পজিটিভ আসে বলে জানা গেছে।

এর আগে রবিবার (৬ সেপ্টেম্বর) রাত ১১টার দিকে শ্বাসকষ্ট নিয়ে তিনি হাসপাতালে ভর্তি হন। বাংলাদেশ চলচ্চিত্র শিল্পী সমিতির সাধারণ সম্পাদক চিত্রনায়ক জায়েদ খান বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

তিনি জানান, ‘গত রবিবার সন্ধ্যা থেকেই অস্বস্তি লাগছিল সাদেক বাচ্চুর। পরে শ্বাসকষ্ট বাড়তে থাকায় রাত সাড়ে ১১টায় হাসপাতালে ভর্তি করে অক্সিজেনের সাহায্য শ্বাস-প্রশ্বাস স্বাভাবিক রাখা হয়েছে।’

জায়েদ খান গণমাধ্যমকে বলেন, 'আমাদের সবার প্রিয় এই অভিনেতার জন্য দেশবাসীর কাছে দোয়া চাচ্ছি, তিনি যেন তাড়াতাড়ি সুস্থ হয়ে উঠেন।'

পাঁচ দশকের লম্বা ক্যারিয়ারে মঞ্চে, বেতারে, টিভিতে, সিনেমায়, সর্বত্র দাপুটে বিচরণ ছিল তার। নব্বইয়ের দশকে এহতেশামের ‘চাঁদনী’ ছবিতে অভিনয়ের পর সাদেক বাচ্চু জনপ্রিয়তা পান খলনায়ক হিসেবে।

১৯৬৩ সালে খেলাঘরের মাধ্যমে রেডিওতে অভিনয় শুরু করেন সাদেক বাচ্চু। একইসাথে মঞ্চেও বিচরণ করেন। প্রথম থিয়েটার ‘গণনাট্য পরিষদ।’ ১৯৭২-৭৩ সালে মুক্তিযুদ্ধের পরবর্তী সময়ে যখন এদেশের সাংস্কৃতিক বলয় নতুনভাবে তৈরি হচ্ছিল, তখন যোগ দেন গ্রুপ থিয়েটারের সাথে। দীর্ঘ পথ পেরিয়ে ১৯৭৪ সালে প্রথম টেলিভিশন নাটকে অভিষিক্ত হন।

সাদেক বাচ্চুর উল্লেখযোগ্য চলচ্চিত্রের মধ্যে রয়েছে ‘জজ ব্যারিস্টার পুলিশ কমিশনার’, ‘জীবন নদীর তীরে’, ‘জোর করে ভালোবাসা হয় না’, ‘তোমার মাঝে আমি’, ‘ঢাকা টু বোম্বে’, ‘ভালোবাসা জিন্দাবাদ’, ‘এক জবান’, ‘আমার স্বপ্ন আমার সংসার’, ‘মন বসে না পড়ার টেবিলে’, ‘বধূবরণ’, ‘ময়দান’, ‘আমার প্রাণের স্বামী’, ‘আনন্দ অশ্রু’, ‘প্রিয়জন’, ‘সুজন সখি’ ইত্যাদি।

সাদেক বাচ্চুর আসল নাম মাহবুব আহমেদ সাদেক। চাঁদপুরে দেশের বাড়ি হলেও জন্ম ঢাকায়। সিনেমার কিংবদন্তি মানুষ এহতেশাম 'চাঁদনী' চলচ্চিত্রে তার নাম বদলে সাদেক বাচ্চু করে দেন। সেই থেকেই তিনি এ নামে পরিচিত। টিএন্ডটি নাইট কলেজ থেকে গ্রাজুয়েশন কমপ্লিট করেন সাদেক বাচ্চু।

ওয়াই এ/এডিবি