NAVIGATION MENU

গফরগাঁওয়ে ইমাম খুনের ঘটনায় গ্রেপ্তার ২, বেরিয়ে এলো হত্যার রহস্য


ময়মনসিংহের গফরগাঁওয়ের পাগলায় মসজিদের ইমাম হাফেজ মাওলানা মো. আজিম উদ্দিনকে কুপিয়ে হত্যার ঘটনায় ২ যুবককে গ্রেপ্তার করেছে গোয়েন্দা পুলিশ।

হত্যাকাণ্ডের ১০ দিনের মাথায় এই দুইজনকে গ্রেপ্তারের পর বেরিয়ে আসে হত্যার রহস্য। তাদের ভাষ্যমতে, মাছ চাষে বাধা দেওয়ায় চারজন মিলে আজিম উদ্দিনকে কুপিয়ে হত্যা করা হয়েছে।

বুধবার (৩০ সেপ্টেম্বর) সন্ধ্যায় ডিবি কার্যালয় থেকে পাঠানো এক প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানানো হয়।

গ্রেপ্তারকৃতরা হলেন - উপজেলার অললী গ্রামের সিরাজ শেখ (২৫) ও সাধুয়া গ্রামের সুজন মিয়া (২৫)।

জেলা গোয়েন্দা পুলিশের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) শাহ্ কামাল আকন্দ জানান, উপজেলার পাগলা থানার সাধুয়া গ্রামের রিফাতের সাথে দীর্ঘদিন যাবত মসজিদের ইমাম হাফেজ মাওলানা আজিম উদ্দিনের সাথে একটি পুকুর নিয়ে বিরোধ চলে আসছিলো। সম্প্রতি ওই পুকুরে মাছ চাষের প্রস্তুতি নেয় রিফাত। কিন্তু ইমাম আজিম উদ্দিন মাছ চাষে বাঁধা দেন। আর এতেই ক্ষুব্ধ হয়ে তাকে শায়েস্তা করার পরিকল্পনা করে রিফাত, রুবেল, সুজন ও সিরাজ।

এরপর গত ১৯ সেপ্টেম্বর রাতে মসজিদে এশার নামাজের ইমামতি শেষে বাড়ি ফেরার পথে সাধুয়া-নিগুয়ারি খালের পাশে সাধুয়া মার্কেটের কাছে পৌঁছলে এলোপাথাড়ি কুপিয়ে পালিয়ে যায় রিফাত ও তার তিন সহযোগী।

এ ঘটনায় নিহতের স্ত্রী বিলকিস খাতুন গত ২০ সেপ্টেম্বর বাদী হয়ে পাগলা থানায় মামলা করেন। ওই মামলার তদন্তভার আসে জেলা গোয়েন্দা শাখায়। এরপর মঙ্গলবার (২৯ সেপ্টেম্বর) রাতে গাজীপুর জেলার শ্রীপুর বরমী থেকে ঘাতক সিরাজ শেখ ও সুজন মিয়াকে গ্রেপ্তার করতে সক্ষম হয় ডিবি।

বুধবার (৩০ সেপ্টেম্বর) দুপুরে আদালতে সোর্পদ করা হলে আসামি সিরাজ আলোচিত ইমাম হত্যার দায় স্বীকার করে বর্ণনা দেয়।

এডিবি/