NAVIGATION MENU

চিনকে চিন্তায় ফেলে সাগরে মহড়া ভারতসহ ৪ দেশের


ভারত ও চিনের মধ্যে সীমান্ত সমস্যা এখনো উত্তজনা পূর্ণ। পূর্ব লাদাখ সীমান্তে উত্তেজনা এখনও কমেনি । এরইমধ্যে আরব সাগরে দ্বিতীয় পর্যায়ের মালাবার নৌ-মহড়া শেষ করল ভারত, জাপান, অস্ট্রেলিয়া এবং যুক্তরাষ্ট্র। চিন্তার ভাঁজ চিনের। কূটনৈতিক মহলের মতে, চার দেশের সেই জোটবদ্ধ শক্তিপ্রদর্শের ফলে চিনের উপর চাপ বেড়েছে।

গত ১৭ নভেম্বর থেকে উত্তর আরব সাগরে শুরু হয়েছিল দ্বিতীয় পর্যায়ের মালাবার নৌ-মহড়া। শুক্রবার পর্যন্ত মহড়া চালায় ভারত, জাপান, অস্ট্রেলিয়া এবং আমেরিকা। পূর্ব লাদাখ সীমান্তে উত্তেজনার মধ্যে দু'দফার এই মহড়া অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ। সমুদ্রে চিনকে বড়সড় বার্তা দিয়েছে ভারত, জাপান, অস্ট্রেলিয়া এবং আমেরিকা। তাতে কিছুটা হলেও চাপে বেইজিং।

চারদিনের সেই মহড়ায় মূল আকর্ষণ ছিল ভারতীয় নৌসেনার বিক্রমাদিত্য ক্যারিয়ার যুদ্ধবাহিনী এবং মার্কিন নৌসেনার নিমিৎজ স্ট্রাইক গ্রুপ। নিমিৎজ হল বিশ্বের সবথেকে বড় রণতরী।

ভারতীয় নৌবাহিনীর পক্ষ থেকে একটি বিবৃতিতে জানানো হয়, যুদ্ধবিমান ওঠানামা করতে সক্ষম দুটি রণতরী, অংশগ্রহণকারী দেশগুলোর নৌবাহিনী ডুবোজাহাজ, বিমানগুলো উচ্চ ক্ষমতাসম্পন্ন নৌ-অভিযানে সামিল হয়েছিল। বিক্রমাদিত্যের মিগ-২৯কে যুদ্ধবিমান এবং নিমিৎজের এফ/এ-১৮ যুদ্ধবিমান এবং ই২সি হকআই ছিল।

মহড়ার পর ভারতীয় নৌসেনার উচ্চপদস্থ কর্মকর্তা রিয়ার অ্যাডমিরাল কৃষ্ণ স্বামীনাথন জানান, এবারের মহড়ায় চার দেশের মধ্যে অভাবনীয় জোট দেখা গেছে। গত ৩-৬ নভেম্বর বঙ্গোপসাগরে প্রথম পর্যায়ের মালাবার নৌ-মহড়া হয়। এই প্রথমবার দু'পর্যায়ে সেই মহড়া হয়েছে।

এস এস