NAVIGATION MENU

ছেলেদের শার্টের পেছনে যে কারনে লুপ থাকতো


একটা বিশেষ প্রয়োজনেই লুপের সূত্রপাত। এখন প্রশ্ন, লুপ কি? একটু খেয়াল করলেই দেখবেন, ছেলেদের শার্টের পেছনে ঠিক ঘাড়ের নিচে চিকন ফিতার মতো একটা জিনিস লাগানো থাকে। অনেকেই এই জিনিসটার নাম জানেন না। এটাকে বলা হয় ‘লুপ’।

চলুন এখন জেনে নিই শার্টে লুপ থাকার কারণ-

ষাটের দশক থেকে ছেলেদের শার্টে লুপ অত্যাবশ্যকীয় অংশ হিসাবে ব্যবহার হয়ে আসছে।

জানা যায়, ১৯৬০ সালে আমেরিকায় শার্টের পেছনে এ ধরনের ‘লুপ’ রাখার প্রচলন শুরু হয়। ইস্ট কোস্ট নাবিকদের পেষাকে এই বিশেষ অংশটির সংযোজন হয়েছিলো। কারণ দিনের পর দিন সমুদ্রে কাটাতে হতো তাদের। শার্ট পরিষ্কার করে হ্যাঙ্গার ছাড়াই এই লুপের সাহায্যে তারা ঝুলিয়ে দিতেন কোনো রশি বা তারকাটায়। সহজেই শুকিয়ে যেত শার্ট। তা ছাড়া এই লুপটি এমন অবস্থানে থাকে যে, এইভাবে শার্ট ঝুলিয়ে রাখলে তাতে কোনো ভাঁজও পড়ে না। ফলে পরদিন আবার ওই একই শার্ট পরতে পারতেন নাবিকরা। অনেক সময় জাহাজের হুকেই শার্ট ঝুলিয়ে রাখতেন তারা।

আরও একটা বিষয় চিন্তার করলেই এর প্রয়োজনটা স্পষ্ট হবে, তা হলো - ওয়ারড্রোব এবং হ্যাঙার আবিষ্কার হওয়ার আগে পোশাক রাখা হতো কিভাবে? সেই সময়ে ঘরের দেওয়ালে সাঁটানো হতো পেরেক বা তারকাটা। আর তাতেই ঝুলিয়ে রাখা হতো শার্ট বা পোশাক। ফ্যাশনের দুনিয়ায় এই লুপকে বলা হয় লকার লুপস।

এতোদিনে জাহাজের নাবিকদের লুপের কার্যকারিতা ফুরিয়েছে। লুপ উঠে এসেছে ঘরে। ফ্যাশনের জগতে কদর পেয়েছে লুপ। তাইতো ছেলেদের পেষাকে স্থান করে নিয়েছে লকার লুপস।

সিবি/এডিবি