NAVIGATION MENU

দায়বদ্ধতা থেকেই খাল পরিষ্কারের উদ্যোগ নিয়েছি: আতিকুল


কার খাল এটি দেখার সময় নেই। জনগণের প্রতি দায়বদ্ধতা থেকেই ঢাকা ওয়াসার খাল পরিষ্কারের উদ্যোগ নেওয়া হয়েছে বলে জানিয়ে ঢাকা উত্তর সিটি করপোরেশনের (ডিএনসিসি) মেয়র মো. আতিকুল ইসলাম।

বুধবার (৭ অক্টোবর) দুপুরে ডিএনসিসির উদ্যোগে চলমান খাল পরিষ্কার কার্যক্রম এবং বিভিন্ন খাল থেকে প্রাপ্ত মালামাল প্রদর্শনী’ পরিদর্শন শেষে মেয়র একথা বলেন।

এ সময় আতিকুল ইসলাম বলেন, ‘খাল আমাদের পরিষ্কার করার কথা না। অন্য সংস্থার পরিষ্কার করার কথা। কিন্তু তার পরেও আমরা মনে করেছি খালটাকে পরিষ্কার করে দিয়ে যাবে। কোনো দিকে না তাকিয়ে আমাদের বোর্ড থেকে সিদ্ধান্ত নিয়েছি আমাদের এলাকার খাল, আমরা কারো জন্য বসে থাকবো না। আমরা নিজেরাই পরিষ্কার করবো। অডিট যখন অভিযোগ করবে তখন দেখাবো জনগণের স্বার্থে আমরা এটা করেছি।’

তিনি বলেন, ‘প্লিজ আমি দুই হাত তুলে অনুরোধ করছি, আপনারা খাল দখল করবেন না। খালের ভেতর ময়লা ফেলবেন না। আমরা দেশকে শ্রদ্ধা করি, শহরকে ভালোবাসি। সকল যুব সমাজকে অনুরোধ করবো আপনার সোচ্চার হোন। প্রত্যেকে যার যার এলাকার খালের দায়িত্ব নেন, আপনারা ভলান্টিয়ার হয়ে এগিয়ে আসুন।’

মেয়র বলেন, ‘একটু বৃষ্টি হলে খাল ভরে যায়, পানি ওভার ফ্লো করে। আমাদের ড্রেনের উপরিভাগের পানি খালে যাবে, খাল থেকে যাবে নদীতে এটাই নিয়ম, কিন্তু আজ সব খাল দখলে। সেজন্য আমরা ব্যানার করেছি খাল তুমি কি জন্য? সবাই ময়লা ফেলে দেবে এজন্য তুমি? নাকি তুমি পানি প্রবাহের জন্য।’

এরপর আগামী ২০ অক্টোবর ডিএনসিসি এলাকার সকল খাল, ডোবা, নালা, পুকুর পরিদর্শন করবো, তখন সরকারি বেসরকারি ব্যক্তি মালিকানাধীন যার খাল বা ডোবা দখল পাবো ওই সংস্থার প্রধানের বিরুদ্ধে অ্যাকশনে যেতে বাধ্য হবো।

মিরপুর গোদাখালি খালপাড়ে এ প্রদর্শনীর ব্যবস্থা করা হয়। এ সময় ডিএনসিসির প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা মো. সেলিম রেজা, প্রধান প্রকৌশলী ব্রিগেডিয়ার জেনারেল আমিরুল ইসলাম, স্থপতি ইকবাল হাবিব উপস্থিত ছিলেন।

এমআইআর/এডিবি