NAVIGATION MENU

দুর্নীতি প্রমাণিত হলে আইনি ব্যবস্থা: পরিকল্পনামন্ত্রী


কেউ যদি ব্যক্তিগতভাবে দুর্নীতি করে তা প্রমাণিত হলে আমরা আইনিভাবে মোকাবেলা করবো বলে জানিয়েছেন পরিকল্পনামন্ত্রী এম এ মান্নান।

মঙ্গলবার (১২ জানুয়ারি) শেরে বাংলা নগরের এনইসি সম্মেলন কক্ষে ‘উন্নয়ন প্রকল্পের সম্ভাব্যতা সমীক্ষা প্রতিবেদনের খসড়া রূপরেখা চূড়ান্তকরণ’ কর্মশালায় মন্ত্রী এ কথা বলেন।

এ সময় মন্ত্রী বলেন, ‘কোনো কোনো ক্ষেত্রে টিম ওয়ার্কে দুর্নীতি হয়, তবে ব্যক্তিগত দুর্নীতি বেশি হয়। আমাদের সরকার যে অবস্থান নিয়েছে। আমাদের জনগণের যে স্বচ্ছ ধারণা এটাকে কেউ প্রশ্রয় দেবে না। দুর্নীতি করলে কী হবে তার বিধানও আছে, তবে দুর্নীতি নিয়ে সচেতন থাকতে হবে।’

তিনি বলেন, ‘আমি বিশ্বাস করি আমাদের চারপাশে সবাই দুর্নীতি এড়িয়ে চলেন। কেউ যদি ব্যক্তিগতভাবে দুর্নীতি করে প্রমাণিত হলে আমরা আইনিভাবে মোকাবেলা করবো। দুর্নীতি মুক্ত বাংলাদেশ গড়বো।’

এ প্রসঙ্গে মন্ত্রী আরও বলেন, ‘একটা বিষয় বলতে চাই না; তবুও বলতে হয়। সাধারণ মানুষ প্রকল্পের বিষয়ে জানতে চায়। পকেট মার ও দুর্নীতি একটি ক্রিমিনাল বিষয়। এটা নিয়ে ডিসকাস করা সেমিনার করার কোনো মানে হয় না। আমি যে টকশোতে যাই যে সেমিনারে সেখানে ঘুরে ফিরে দুর্নীতি নিয়ে প্রশ্ন করা হয়। আমি তাদের বলি দুর্নীতি নিয়ে গবেষণার কিছু নাই, ডিসকাস করারও কিছু নাই।’

তিনি বলেন, ‘কিছু খাতে দুর্নীতি হচ্ছে অবশ্যই হচ্ছে। তাদের কাছে দুর্নীতি করার ব্যবস্থাও আছে। দুর্নীতির নিশ্চয় একটা ভিত্তি আছে তা না হলে এটা নিয়ে এতো আলোচনা কেন হবে। দুর্নীতি নিয়ে আমাদের সবাইকে সচেতন হওয়া প্রয়োজন।’

এ সময় পরিকল্পনা বিভাগের সিনিয়র সচিব মো. আসাদুল ইসলামসহ কর্মশালায় সরকারের বিভিন্ন মন্ত্রণালয়/বিভাগ/অধিদপ্তরের জ্যেষ্ঠ সচিব, অতিরিক্ত সচিব, বিভিন্ন বিভাগের প্রধান, মহাপরিচালক, নির্বাহী পরিচালক, যুগ্ম প্রধান, উপ-প্রধান, উপ-সচিব পর্যায়ের মোট ৫৮ জন কর্মকর্তা অংশগ্রহণ করেন।

এমআইআর/ওআ