NAVIGATION MENU

নারায়ণগঞ্জে এক ঘরে দুই বোনকে ধর্ষণ, দুই ধর্ষক গ্রেপ্তার


বিয়ের আশ্বাসে বাড়ি থেকে ডেকে নিয়ে একটি ঘর ভাড়া করে মামাতো ফুফাতো দুই বোনকে লাগাতার দুইদিন ধরে ধর্ষণ করেছে দুই বখাটে তরুণ। গত ২১ সেপ্টেম্বর নারায়ণগঞ্জের বন্দর উপজেলায় নবীগঞ্জ এলাকায় এই ঘটনা ঘটে। 

মঙ্গলবার (২৯ সেপ্টেম্বর) ধর্ষিতা দুই কিশোরী আদালতে ২২ ধারায় জবানবন্দি দিয়েছে। নারায়ণগঞ্জের সিনিয়র জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট নুরুন্নাহার ইয়াসমিমের আদালতে তাদের জবানবন্দি রেকর্ড করা হয়। তাদের দু’জনেরই বয়স ১৩ বছরের কম। তারা ষষ্ট শ্রেণির ছাত্রী।

এর আগে গতকাল সোমবার (২৮ সেপ্টেম্বর) রাতে বন্দর থানায় মামলা দায়ের করার পর পুলিশ রাতেই অভিযুক্ত দুই তরুণকে গ্রেপ্তার করে।

গ্রেপ্তারকৃতরা হলো, জয় মিয়ার ছেলে রিফাত (১৯) ও রমিজ উদ্দিনের ছেলে রিফাত (১৯)। তারা দুজন বন্ধু ও নারায়ণগঞ্জ বন্দর থানার ফুলহর এলাকার বাসিন্দা। তারা দু’জন একে অপরের বন্ধু।

ধর্ষণের শিকার দুই বোন জানায়, দুই মাস আগে রিফাত নামের ওই দুই যুবকের সঙ্গে বিয়ের অনুষ্ঠানে তাদের পরিচয় হয় তাদের। এরপর মোবাইলফোনে প্রেমের সম্পর্ক গড়ে ওঠে। ২১ সেপ্টেম্বর বিয়ের আশ্বাস দিয়ে দুই রিফাত ওই দুই বোনকে বন্দর উপজেলার নবীগঞ্জে আসতে বলে। পরে নবীগঞ্জের একটি বাড়িতে ১৫০০ টাকার বিনিময়ে একটি ঘর ভাড়া নিয়ে উঠে তারা। সেখানেই দুই বন্ধু মিলে দুই বোনকে ধর্ষণ করে। এরপর আরও দু’দিন সেখানে বিয়ে ছাড়াই তারা অবস্থান করে। এরপর জয় মিয়ার ছেলে রিফাতের মা হাওয়া বেগমের কাঁচপুরের বাড়িতে রেখে আসে দুই বোনকে।

এ ঘটনার ছয়দিন পর দুই কিশোরীর পরিবার গতকাল সোমবার (২৮ সেপ্টেম্বর) রাতে বন্দর থানায় মামলা দায়ের করলে পুলিশ ওই রাতেই অভিযুক্ত দুইজনকে গ্রেপ্তার করে পুলিশ। ঘটনাটিতে পৃথক দু’টি ধর্ষণ মামলা দায়ের করা হয়েছে।

এ বিষয়ে মামলার বাদি বলেন, দুইমাস আগে কোন এক বিয়ের অনুষ্ঠানে আসামিদের সাথে পরিচয় হয় আমার মেয়ে ও ভাগ্নির সাথে। সে থেকে তাদের মধ্যে ফোনের মাধ্যমে যোগাযোগ ছিলো। সেই সূত্র ধরে ওই আসামিরা আমার মেয়ে ও ভাগ্নিকে বিয়ে করার আশ্বাস দিয়ে কৌশলে ডেকে নিয়ে যায়। এরপর তাদের ধর্ষণ করে রিফাতের মা হাওয়া বেগমের বাসায় রেখে তারা পালিয়ে যায়।

এ ব্যাপারে বন্দর থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) ফখরুদ্দিন জানান, মামলা গ্রহণের পর রাতেই দুই আসামিকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। গ্রেপ্তারকৃত দুই আসামি জিজ্ঞাসাবাদে ধর্ষণের অপরাধের কথা স্বীকার করেছে। মঙ্গলবার তাদের আদালতে হাজির করা হলে পরে আদালতের নির্দেশে তাদের জেলহাজতে প্রেরণ করা হয়। এ ঘটনায় আরও কেউ জড়িত থাকলে তাদেরকেও আইনের আওতায় আনা হবে। বিষয়টি আমরা তদন্ত করে দেখছি।

এডিবি/