ন্যাভিগেশন মেনু

নিউজিল্যান্ডে পিএইচডি করতে গিয়ে মারা গেছেন নোবিপ্রবি’র শিক্ষিকা


নিউজিল্যান্ডে পিএইচডি করতে গিয়ে নোয়াখালী বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের (নোবিপ্রবি) মাইক্রোবায়োলজি বিভাগের সহকারী অধ্যাপক অর্পিতা রায় মারা গেছেন।

বাংলাদেশ সময় রবিবার (১২ সেপ্টেম্বর) রাত ৮টায় নিউজিল্যান্ডের একটি হাসপাতালে তিনি মৃত্যুবরণ করেন। মৃত্যুকালে তার বয়স হয়েছিলো ৩২ বছর।

বিশ্ববিদ্যালয় সূত্রে জানা গেছে, ১২ সেপ্টেম্বর সন্ধ্যায় তিনি হঠাৎ অসুস্থ হয়ে পড়েন। পরে তাকে হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়। তার অবস্থার অবনতি হওয়ায় তাকে আইসিইউতে নেওয়া হয়েছিল। আইসিইউতে চিকিৎসাধীন অবস্থায় তার মৃত্যু হয়।

অর্পিতা রায় ২০১৯ সাল থেকে নিউজিল্যান্ডের ওটাগো বিশ্ববিদ্যালয়ে পিএইচডি শিক্ষার্থী হিসেবে অধ্যয়নরত ছিলেন।

তিনি ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় থেকে মাইক্রোবায়োলজিতে স্নাতক সম্পন্ন করেন এবং নোয়াখালী বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ে (এনএসটিইউ) মাইক্রোবায়োলজি বিভাগে সহকারী অধ্যাপক হিসেবে কর্মরত ছিলেন।

তার প্রয়ানের বিষয়টি নিশ্চিত করে মাইক্রোবায়োলজি বিভাগের চেয়ারম্যান অধ্যাপক ড. ফিরোজ আহমেদ বলেন, অর্পিতা রায় মারা গেছেন বাংলাদেশ সময় ১২ সেপ্টেম্বর রাত প্রায় ৮টায়। তিনি নিউজিল্যান্ডের ওটাগো বিশ্ববিদ্যালয়ে পিএইচডি'র শিক্ষার্থী ছিলেন। তিনি হঠাৎ অসুস্থ হয়ে হাসপাতালে ভর্তি হয়েছিলেন।

অর্পিতা রায়ের মৃত্যুতে বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষক -শিক্ষার্থীদের মাঝে শোকের ছায়া নেমে এসেছে।

নোবিপ্রবি শিক্ষক সমিতির সভাপতি অধ্যাপক নেওয়াজ মোহাম্মদ বাহাদুর বলেন, অর্পিতা রায়ের মৃত্যুতে বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষক -শিক্ষার্থীদের মধ্যে শোকের ছায়া নেমে এসেছে। আমরা আমাদের সহকর্মীকে চিরতরে হারিয়েছি আমরা তার পরিবারের প্রতি গভীর সমবেদনা জানাচ্ছি।

বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য অধ্যাপক ড. দিদার-উল-আলম অর্পিতা রায়ের মৃত্যুতে গভীর শোক ও দুঃখ প্রকাশ করেছেন। তিনি শোকসন্তপ্ত পরিবারের প্রতি গভীর সমবেদনা জানান এবং বিদেহী আত্মার মাগফেরাত কামনা করেন।

এসএএফ/এডিবি/