NAVIGATION MENU

নিখোঁজের তিনদিন পর ৩ জুয়াড়ির মরদেহ উদ্ধার


যমুনা নদীতে নিখোঁজের তিনদিন পর সরিষাবাড়ী ও ভূয়াপুর থেকে তিন জুয়াড়ির মরদেহ উদ্ধার করেছে পুলিশ। এদের মধ্যে সরিষাবাড়ি থেকে দুই জন ও ভূয়াপুর থেকে একজনের মরদেহ উদ্ধার করা হয়।

রবিবার (২৯ নভেম্বর) দুপুরে উপজেলার পিংনা ইউনিয়নের চর বাসুরিয়া এলাকায় যমুনা নদীতে ভেসে উঠা ছানোয়ার হোসেন ছানু, ফজলুল হক ফজল ও টাঙ্গাইলের ভুয়াপুর এলাকায় হাফিজুর রহমানের মরদেহ ভেসে উঠে।

জুয়ার আসরের আধিপত্য বিস্তার নিয়ে সরিষাবাড়ী উপজেলার দুর্গম চর বাসুরিয়ার যমুনা নদীর তীরে জুয়াড়ি আব্দুল মান্নানের নেতৃত্বে পরিচালিত ‘ওয়ান টেন’ নামে জুয়ার আসরে স্থানীয় অপর একটি গ্রুপের সঙ্গে বিরোধ বাধে। গত বৃহস্পতিবার (২৬ নভেম্বর) সন্ধ্যায় দুই গ্রুপের মধ্যে হামলা, ধাওয়া-পাল্টাধাওয়া ও সংঘর্ষের ঘটনা ঘটে। সংঘর্ষ চলাকালে ধারালো অস্ত্রের আঘাতে গুরুতর আহত হন জুয়াড়ি আব্দুল মান্নান। এ সময় তিন জুয়াড়ি ছানোয়ার হোসেন ছানু, হাফিজুর রহমান ও ফজলুল হক ফজল নিজেদের আত্মরক্ষার জন্য যমুনা নদীতে ঝাঁপ দেন। এরপর থেকে ওই ৩ জন নিখোঁজ ছিলেন।

এ ঘটনায় সরিষাবাড়ি থানার এক উপ-পরিদর্শক (এসআই) ও এক পুলিশ কনস্টেবলকে ক্লোজ করা হয়েছে।

সরিষাবাড়ি থানার পুলিশ তিন জনের মরদেহ ময়নাতদন্তের জন্য জামালপুর হাসপাতাল মর্গে পাঠিয়েছে।

এডিবি/