NAVIGATION MENU

নিজ মেয়েকে ধর্ষণের অভিযোগে ‘সাধক’ বাবা গ্রেপ্তার


দীর্ঘদিন ধরেই ১৬ বছর বয়সী মেয়েকে ঘরে আটকে রেখে ধর্ষণের অভিযোগে শরীফুল ইসলাম নামে কথিত এক সাধককে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশের অপরাধ তদন্ত বিভাগ (সিআইডি)।

কথিত এই সাধক নিজ মেয়েকে নাটোরের বড়াইগ্রামে নিজ বাড়িতে নিয়ে আটকে রেখে গত ২ মাস ধরে ভয়ভীতি দেখিয়ে একাধিকবার ধর্ষণ করছিলেন।

এ বিষয়ে বুধবার (৭ অক্টোবর) রাজধানীর মালিবাগে সিআইডির কার্যালয়ে আয়োজিত এক সংবাদ সম্মেলন করেন সংস্থার ডিআইজি শেখ নাজমুল আলম।

তিনি বলেন, মঙ্গলবার (৬ অক্টোবর) রাতে মানিকগঞ্জের হরিরামপুর থানাধীন বসন্তপুর বাগডাংগী নামের দুর্গম এলাকার পদ্মার চর এলাকায় অভিযান চালিয়ে তাকে গ্রেপ্তার করা হয়।

নাজমুল আলম বলেন, ‘কথিত সাধক শরীফুল সন্ন্যাসীর বেশ ধারণ করলে ২ বছর আগে তার স্ত্রী তাকে ছেড়ে চলে যায়। এ সময় তার মেয়ে নাটোর দীঘাপাতিয়া পূর্ব হাগুরিয়া গ্রামে নানার বাড়িতে চলে যায়। গত ঈদুল আজহার ৬ দিন আগে শরীফুল বিভিন্ন কৌশলে মেয়েকে নাটোর বড়াইগ্রামে তার বাড়িতে নিয়ে আসেন। বাড়িতে আনার পর সে মেয়েটির ওপর শারীরিক ও মানসিক নির্যাতন শুরু করেন। একপর্যায়ে মেয়েকে ভয়ভীতি দেখিয়ে ও আটক রেখে জোরপূর্বক ধর্ষণ করেন।’

ডিআইজি নাজমুল বলেন, ‘প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে গ্রেফতারকৃত আসামি শরীফুল মেয়েকে নিয়মিত ধর্ষণের কথা স্বীকার করেছেন। এ সময় বাড়িতে কোনো লোকজন এলে মেয়েটির সঙ্গে কাউকে দেখা বা কথা বলতে দেয়া হতো না। এক পর্যায়ে মেয়েটি তার নানির সঙ্গে যোগাযোগ করতে সমর্থ হয় এবং মা ও নানি মিলে মেয়েটিকে উদ্ধার করে নাটোরের বড়াইগ্রাম থানায় একটি মামলা দায়ের করেন।’

ওআ/