ন্যাভিগেশন মেনু

স্পেশাল ট্রেনে পাথর নিক্ষেপ ঘটনায় ২ জন গ্রেফতার

পাথর নিক্ষেপ, মাদক বিরুদ্ধে জিরো টলারেন্স নীতি প্রয়োগ করবে চট্টগ্রাম জেলা রেলওয়ে পুলিশ


সম্প্রতি গত ২২ জুন সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেইসবুকের ভিডিও এর মাধ্যমে ছড়িয়ে পড়ে ঈদ স্পেশাল ট্রেনে পাথর নিক্ষেপ ঘটনাটি। স্পেশাল ট্রেনে পাথর নিক্ষেপ মামলায় দুইজন আসামীকে গ্রেফতার করেছে চট্টগ্রাম জেলা রেলওয়ে পুলিশ। পাথর নিক্ষেপ ও মাদক বিরুদ্ধে সবসময় জিরো টলারেন্স নীতি প্রয়োগ থাকবে জানিয়েছেন চট্রগ্রাম রেলওয়ে জেলা পুলিশ। 

রবিবার (২৩ জুন) চট্টগ্রাম রেলওয় থানায় এক সংবাদ সম্মেলনে রেলওয়ে জেলা পুলিশ সুপার মোহাম্মদ হাছান চৌধুরী এসব কথা বলেন। এসময় রেলওয়ে অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মোহাম্মদ রাকিব খাঁন, রেলওয়ে সার্কেল আতিক আহাম্মেদ চৌধুরী,  রেলওয়ে থানার অফিসার ইনচার্জ এসএম শহীদুল ইসলামসহ সিনিয়র পুলিশ অফিসার ও সাংবাদিকবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।

রেলওয়ে পুলিশ সুপার বলেন, আমরা নিরাপত্তা নিয়ে রেলওয়ে যাত্রা করতে পারে সেভাবে আমরা সচেষ্ট। রেলপথ ভ্রমণ নিরাপত্তায় আমরা বিভিন্ন উপজেলায় রেলওয়ে স্টেশনে সচেতনামূলক কার্যক্রম চালিয়েছি, যা চলমান রয়েছে। নিজেরা যদি সচেতন না হয়, তবে কোন দুর্ঘটনা সহজে প্রতিকার করা সম্ভব নয়। মাদক চিহ্নিত করনে রেলওয়ে পুলিশের কাছে উন্নত প্রযুক্তির যন্ত্রপাতি নেই, তবুও আমরা সবসময় তল্লাশি পরিচালনা করে থাকি। পাথর নিক্ষেপে ডুলহাজারা, চকরিয়া, রামুসহ কয়েকটি জায়গাকে চিহ্নিত করেছি, যা পাথর নিক্ষেপের স্পট হিসেবে ধরেছি। 

তিনি আরও বলেন, রেললাইনের পাশ্ববর্তী স্কুল, ছাত্র-ছাত্রী ও জনপ্রতিনিধিদের সচেতন করা হচ্ছে। খেলার ছলে যাতে কোন অসর্কতারয় পাথর নিক্ষেপ না করে। অনেকসময় স্থানীয় একজন নাকি টাকা দেয়া নিয়ে পাথর নিক্ষেপ জানতে পারলাম। তবে বিষয়টি আরও তদন্ত করে দেখা হবে। দুজনকে এই মুহুর্তে আটক করেছি৷ তদন্ত সাপেক্ষে ব্যবস্থা নেয়া হবে।

রেলওয়ে পুলিশ সূত্রে জানা যায়, কক্সবাজারগামী ঈদ স্পেশাল ট্রেনটি কক্সবাজার জেলার চকরিয়া থানাধীন বড়ইতলী ইউনিয়নের রেললাইনে কিঃমি নং- ৮৯/২-৩ এর মধ্যবর্তী স্থান অতিক্রম করার সময় অজ্ঞাতনামা ব্যক্তিরা রেল গাড়ির ক্ষতিসাধন এবং রেল যাত্রীদের জীবনের নিরাপত্তা বিঘ্নিত করার জন্য চলন্ত ট্রেনকে উদ্দেশ্যে করে পাথর নিক্ষেপ করে।
 
উক্ত ঘটনার স্থানীয় জনপ্রতিনিধি, বিভিন্ন লোকজনদেরকে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেইসবুকে ছড়িয়া পড়া ভিডিওটি প্রদর্শন করার মাধ্যমে আসামীদের সনাক্ত করেন। পরে অভিযান চালিয়ে দুইজন গ্রেপ্তার করা হয়। আসামীরা হলো- পেয়ার মোহাম্মদ প্রকাশ পিয়ারু (২২),  আব্দুল আল নোমান (২২)। 

এতে অজ্ঞাতনামা মোঃ আরিফুল ইসলাম প্রঃ আব্বুইয়্যাসহ কয়েকজনের নাম জানা যায়। আসামীকে পাথর নিক্ষেপ বিষয়ে জিজ্ঞাসাবাদে তারা গত ১৮ জুন কক্সবাজারগামী ঈদ স্পেশাল ট্রেনে পাথর নিক্ষেপ করেছে বলে স্বীকার করে। এ বিষয়ে চট্টগ্রাম রেলওয়ে থানায় মামলা করা হয়। পরবর্তী আইনগত ব্যবস্থা প্রক্রিয়াধীন।