NAVIGATION MENU

পার্লার বা সেলুনে না গিয়ে ঘরে বসে নিন ত্বকের যত্ন


পার্লার বা সেলুন বন্ধ, এমন পরিস্থিতিতে কি করবেন? আজকাল নারীদের পাশাপাশি অনেক পুরুষও ত্বকের যত্নের ব্যাপারে সচেতন। পুরুষদের ত্বক ও চুলের যত্ন নেওয়ার জন্য রয়েছে আলাদা বিউটি সেলুন।

মেয়েদের জন্য চুল কাটা বা ট্রিম করার পাশাপাশি আরও কিছু কাজ রয়েছে যার জন্য পার্লারে না গেলেই নয়। তেমনি পুরুষরা চুল কাটা, শেভ করা, চুলে রঙ করাসহ নানা কাজে সেলুনে যেতেই হয়। যদি পার্লার বা সেলুন বন্ধ থাকে তবে এই সময়ে কীভাবে ঘরে বসেই নিজের যত্ন নিতে পারেন।

ঘরে বসে ওয়াক্সিং:

বাড়িতে ওয়াক্সিং স্ট্রিপ বা ওয়াক্সিং কিট দিয়েই কাজ চালাতে পারেন। সেটি যদি না থাকে তাহলে আপাতত সমাধান মিলতে পারে রেজর ও হেয়ার রিমুভাল ক্রিমে। পশম যেদিকে তার উল্টোদিকে চেপে রেজর ব্যবহার করতে হবে।

ঘরে বসে ফেসিয়াল পদ্ধতি:

অনেকেই অন্তত মাসে একবার পার্লার বা সেলুনে যেয়ে ফেসিয়াল করান। ত্বকের পরিপূর্ণ যত্নের জন্য ফেসিয়াল দারুণ উপকারি। এটি মূলত কয়েক ধাপে করা হয়। আসুন দেখে নিই ঘরেই কীভাবে ফেসিয়াল করতে পারেন।

সবার প্রথমে ফেস ওয়াশ বা মৃদু কোন সাবান দিয়ে মুখ ধুয়ে নিন। তারপর ঘরে বানানো স্ক্রাব দিয়ে ম্যাসাজ করুন। এটি বানাতে আধা চা চামচ নারকেল তেল ও আধা চা চামচ কফির গুড়ো ব্যবহার করুন। ভালো করে মিশিয়ে মুখে, গলায় ও কাঁধে হালকা হাতে কিছুক্ষণ ম্যাসাজ করে হালকা গরম পানি দিয়ে ধুয়ে ফেলুন। চাইলে মুছার জন্য পার্লারের মতো ছোট ছোট তোয়ালে বা রুমালও ব্যবহার করতে পারেন। এবার ঘরোয়া উপায়ে স্টিম বা ভাপ নিতে হবে যাতে রোমকুপ পরিষ্কার হয়। একটা পাত্রে গরম পানি নিয়ে মাথার ওপর তোয়ালে দিয়ে ঢেকে মুখ নিচু করে ভাপ নিন। এরপরের ধাপে যেকোন ফেসমাস্ক ব্যবহার করুন। এক চা চামচ ওটমিল, এক চা চামচ মধু ও অর্ধেকটা কলা চটকে মাস্ক বানিয়ে মুখ, গলা ও কাঁধে মাখুন। পনেরো থেকে বিশ মিনিট অপেক্ষা করে ধুয়ে ময়েশ্চারাইজার মাখুন।

মেনিকিওর ও পেডিকিওর:

হাত ও পায়ের যত্ন নিলে সেটি শুধুমাত্র হাত-পা পরিষ্কারই করবে না, রিলাক্সেশনেরও কাজ করবে। সহনীয় মাত্রার গরম পানিতে লবণ, লেবুর রস ও কয়েক ফোঁটা শ্যাম্পু বা বডি ওয়াশ দিয়ে হাত ও পা ভিজিয়ে রাখুন দশ থেকে পনেরো মিনিট। এরপর নখের চারপাশ পরিষ্কার করুন, নখ কাটুন ও একটি ব্রাশ দিয়ে ঘষে হাত ও পায়ের ত্বক পরিষ্কার করুন। তারপর পায়ের গোড়ালি ঘষে মরাত্বক পরিষ্কার করুন। সবার শেষে পরিষ্কার পানি দিয়ে হাত এবং পা ধুয়ে মুছে ময়েশ্চারাইজার লাগান।

সবার আগে চুলে দেওয়ার যেকোন তেল হালকা গরম করে নিয়ে মাথার তালুতে ঘষে ঘষে লাগান। তেল গরম রাখার জন্য একটি কাপে গরম পানি নিয়ে তার উপর তেলের বাটি রাখুন। পাঁচ থেকে দশ মিনিট ম্যাসাজ করে তারপর ভাপ দিতে হবে। এর জন্য একটা বড় আর ভারী তোয়ালে গরম পানিতে ভিজিয়ে পানি ঝরিয়ে সেটি মাথায় পেচান। মিনিট পনেরো রেখে শ্যাম্পু করে ফেলুন। এভাবে ভাপ দিলে তেল চুলের গোড়ায় পৌঁছে ও তেলের সমস্ত গুণাগুণ চুলের ভেতরে যায়।

এছাড়াও চুলের জন্য ঘরোয়া মাস্ক ব্যবহার করতে পারেন। একটি ডিম, এক চামচ মধু, কিছুটা টক দই, লেবুর রস আর নারকেল তেল দিয়ে ভালমতো ফেটে নিয়ে চুলের গোড়ায় দিন। এই মিশ্রণ দেওয়ার পর একইভাবে গরম তোয়ালে দিয়ে পনেরো থেকে বিশ মিনিট মাথা ঢেকে রাখতে হবে। তারপর শ্যাম্পু করে ফেলুন।

সিবি/এডিবি