NAVIGATION MENU

পাড়ামহল্লায় আড্ডাবাজি বাড়ছে মৃত্যুর সারি, শনিবারও বলি ১০১


বাংলাদেশে করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে মৃত্যুর সারি দীঘতর হচ্ছে।পর পর দুইসপ্তাহ লকডাউন দিয়েও করোনার বলি রোধ করা যাচ্ছেনা। প্রধান প্রধান সড়কে মানুষ ও যানবাহন চলাচল নগন্য হলেও পাড়ার অলি-গলি লোকের আড্ডাবাজি লেগেই আছে।

অফিস-কমস্থল বন্ধ থাকায় মানুষ পাড়া-মহল্লায় চাপানের পাশাপাশি আড্ডাবাজিতে মেতে মারনঘাতি করোনায় আক্রান্ত হচ্ছে। গতকালের মতো আজ  শনিবারও আরও ১০১ জনের মৃত্যু হয়েছে।

এ নিয়ে মোট মৃত্যু সংখ্যা দাঁড়িয়েছে ১০ হাজার ২৮৩ জনে। সেইসঙ্গে গত ২৪ ঘণ্টায় নতুন করে শনাক্ত হয়েছেন আরও তিন হাজার ৪৭৩ জন। এ নিয়ে মোট শনাক্ত হয়েছেন সাত লাখ ১৫ হাজার ২৫২ জন।শনিবার বিকেলে স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের পাঠানো সংবাদ বিজ্ঞপ্তি থেকে এ তথ্য জানা গেছে।

এর আগে শুক্রবারও কোভিড-১৯-এ আক্রান্ত হয়ে ১০১ জনের মৃত্যু হয়।যা একদিনে বাংলাদেশে এখন পর্যন্ত সর্বোচ্চ মৃত্যু সংখ্যা।এ দিন নতুন শনাক্ত হন চার হাজার ৪১৭ জন।করোনায় সুস্থ হয়েছেন এ পযন্ত ছয় লাখ আট হাজার ৮১৫ জন।

অর্থাৎ শনাক্ত বিবেচনায় সুস্থতার হার ৮৫ দশমিক ১২ শতাংশ। এছাড়া শনাক্ত বিবেচনায় মৃত্যু হার এক দশমিক ৪৪ শতাংশ। আর টেস্ট বিবেচনায় শনাক্ত হার ২১ দশমিক ৪৬ শতাংশ।গত ২৪ ঘণ্টায় নমুনা সংগ্রহ করা হয় ১৫ হাজার ৪১৩টি।

এরমধ্যে সবমিলে নমুনা পরীক্ষা করা হয় ১৬ হাজার ১৮৫টি। এ নিয়ে মোট নমুনা পরীক্ষা করা হয়েছে ৫১ লাখ ৫০ হাজার ৬৬৩টি।গত ২৪ ঘণ্টায় মৃত্যু হওয়া ১০১ জনের মধ্যে পুরুষ ৬৯ জন। আর নারী ৩২ জন। পুরুষ মৃত্যু হার ৭৪ দশমিক ২৫ শতাংশ।এ পর্যন্ত সাত হাজার ৬৩৫ জন পুরুষের মৃত্যু হয়েছে।

এই সময়ে দুই হাজার ৬৪৮ জন নারীর মৃত্যু হয়েছে।মারা যাওয়া ১০১ জনের মধ্যে তিনজন ২১ থেকে ৩০ বছরের। সেইসঙ্গে ৩১ থেকে ৪০ বছরের তিনজন। ৪১ থেকে ৫০ বছরের মধ্যে আটজন। ৫১ থেকে ৬০ বছরের মধ্যে ২৯ জন। ৬০ বছরের বেশি বয়সী মারা গেছেন ৫৮ জন।

এস এস