NAVIGATION MENU

পৃথিবীর দিকে ধেয়ে আসছে দানবীয় উল্কাপিণ্ড


ইউরোপিয়ান স্পেস এজেন্সি (ইএসএ) জানিয়েছে, একটি দানবীয় উল্কাপিণ্ড পৃথিবীর দিকে ধেয়ে আসছে । ২১৬২৫৮ ২০০৬ ডব্লিউ এইচ ওয়ান নামের এই উল্কাপিণ্ডটি পাঁচশ মিটার চওড়া।

প্রায় সাড়ে ছয় কোটি বছর আগে পৃথিবীর বুকে বিচরণ ছিল বিশালাকার ডাইনোসরের। ভয়াবহ এক দুর্ঘটনায় বিলুপ্ত হয়ে যায় অতিকায় এসব প্রাণী।

মেক্সিকো উপসাগরের তীরে ইউকাটান উপদ্বীপে ১২ কিলোমিটার চওড়া এক উল্কাপিণ্ডের আঘাতে মুহূর্তেই নিশ্চিহ্ন হয়ে যায় ১৭ কোটি বছর পৃথিবীতে রাজত্বকারী ডাইনোসর। তেমন আরেকটি উল্কা ধেয়ে আসছে পৃথিবীর দিকে।

আগামী ২০ ডিসেম্বর পৃথিবী মুখোমুখি হবে প্রায় পাঁচশ’ মিটার চওড়া এ দানবের। তবে, সুখের বিষয় হচ্ছে, এ উল্কাটি পৃথিবীতে আঘাত হানবে না। ৩৭ লাখ মাইল দূর থেকেই পৃথিবীকে পাশ কাটিয়ে চলে যাবে উল্কাটি।

মহাকাশ বিজ্ঞানীরা জানান, উল্কাপিণ্ডটি পৃথিবীতে আঘাত করলে সম্পূর্ণ একটি শহর পৃথিবীর মানচিত্র থেকে মুছে যেতে পারতো । যদিও, সেই আশংকা যে একেবারেই নেই, তা কিন্তু নয়।

ইউরোপিয়ান স্পেস এজেন্সি (ইএসএ) সম্প্রতি আরও একটি উল্কাপিণ্ড পৃথিবীর দিকে ধেয়ে আসার বিষয় খবর পেয়েছে। ২০১৯ এস ইউ থ্রি নামে চিহ্নিত ১৪ মিটার চওড়া এ উল্কাটি ২০৮৪ সালের ১৬ সেপ্টেম্বর পৃথিবীর নিকটে আসবে।

মহাকাশ বিজ্ঞানীরা বলছেন, উল্কাপিণ্ডটির পৃথিবীতে আঘাত হানার সম্ভাবনা ৩৮৫ ভাগের মধ্যে এক ভাগ।

৭৩ হাজার ৪৩৫ মাইল দূর থেকে আসা এ উল্কাটিকে ইতোমধ্যেই ‘ঝুঁকি তালিকা’য় অর্ন্তভুক্ত করেছে ইএসএ। 

সিবি / এস এস 

বিস্তারিত জানতে ভিজিট করুনঃ  https://www.ajkerbangladeshpost.com