NAVIGATION MENU

বিশ্বব্যাংকের ৫০৮৫ কোটি টাকা ঋণ পাচ্ছে বাংলাদেশ


যুব, মহিলা ও সুবিধাবঞ্চিত কর্মীদের কর্মসংস্থান এবং জীবিকার সুযোগ উন্নত করতে বাংলাদেশকে ৬০ কোটি ডলার ঋণ অনুমোদন করেছে বিশ্বব্যাংক। যা বাংলাদেশি মুদ্রায় প্রায় ৫ হাজার ৮৫ কোটি টাকা।

বৃহস্পতিবার (২০ মে) এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে বিশ্বব্যাংকের ঢাকা অফিস এ তথ্য নিশ্চিত করে। পাঁচ বছর গ্রেস পিরিয়ডসহ ৩০ বছরে এই ঋণ পরিশোধ করতে হবে।

বিজ্ঞপ্তিতে সংস্থাটি জানায়, ‘করোনাকালীন সময়ে ক্ষতিগ্রস্ত জনগোষ্ঠীর দক্ষতা উন্নয়ন ও দরিদ্রদের জীবিকা নির্বাহে সহায়তা করতে বাংলাদেশকে দুটি প্রকল্পে ৬০ কোটি ডলার ঋণ অনুমোদন করেছে বিশ্বব্যাংক।’

বিশ্বব্যাংকের এই অর্থের মাধ্যমে প্রায় ১৭ লাখ ৫০ হাজার দরিদ্র ও ঝুঁকিপূর্ণ জনগোষ্ঠীকে সহায়তা করা হবে। এই লক্ষ্যে দেশের দুটি প্রকল্পে ৬০০ মিলিয়ন ডলার অনুমোদন করেছে। এ অর্থ কোভিড-১৯ মহামারির বর্তমানসহ ভবিষ্যৎ ধাক্কা সামলাতে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখবে।

এ বিষয়ে বিশ্বব্যাংকের টিম লিডার জ্যান সেন্ট-জিউর্স বলেন, ‘প্রকল্পটি গ্রামীণ দরিদ্র জনগণকে জরুরিভিত্তিতে কোভিড-১৯ মহামারির ভবিষ্যৎ ধাক্কা মোকাবেলায় তাদের দক্ষতা উন্নয়ন করবে। এছাড়া আয়-উৎপাদনমূলক কার্যক্রম এবং দক্ষতা বিকাশের মাধ্যমে দারিদ্র্য থেকে মুক্তি পেতে সহায়তা করবে।’

এমআইআর/এডিবি/