NAVIGATION MENU

ভবিষ্যৎ প্রজন্মের স্বার্থে একসঙ্গে জলবায়ু সংকট মোকাবিলা করতে হবে: পররাষ্ট্রমন্ত্রী


ভবিষ্যৎ প্রজন্মের স্বার্থে জলবায়ু সংকট মোকাবিলা একসঙ্গে কাজ করে যেতে হবে বলেছেন পররাষ্ট্রমন্ত্রী এ কে আব্দুল মোমেন।

শুক্রবার (৯ এপ্রিল) রাষ্ট্রীয় অতিথি ভবন পদ্মায় পররাষ্ট্রমন্ত্রী মার্কিন প্রেসিডেন্ট জো বাইডেনের জলবায়ুবিষয়ক বিশেষ দূত জন কেরির সাথে বৈঠক শেষে এ কথা বলেন।

পররাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, ‘বাংলাদেশ আশা করে রোহিঙ্গাদের সম্মানজনক প্রত্যাবাসনে যুক্তরাষ্ট্রের সহায়তা পাওয়া যাবে।’

এসময় জন কেরি বলেন, ‘বিশ্বের কোনো দেশ একা জলবায়ু সংকট মোকাবিলা করতে পারবে না। মানুষ সৃষ্ট যে ক্ষতি হয়েছে তার জন্য বন্যা, উষ্ণতা বৃদ্ধি এমন কী বাস্তুচ্যুত মানুষের সংখ্যা বাড়ছে। এ সবই ঘটছে জলবায়ু সংকটের জন্য।’

তিনি বলেন, ‘আমি প্রেসিডেন্ট বাইডেনের জলবায়ু দূত হিসেবে এসেছি বাংলাদেশের ৫০ বছর পূর্তিতে প্রেসিডেন্ট জো বাইডেনের শুভেচ্ছা জানাতে। মার্কিন প্রেসিডেন্টের পক্ষে জলবায়ুবিষয়ক ভার্চুয়াল শীর্ষ সম্মেলনে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে আমন্ত্রণ জানাতে এসেছি।’

শুক্রবার (৯ এপ্রিল) বেলা সাড়ে ১১টায় একটি বিশেষ ফ্লাইটে হযরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে অবতরণ করেন কেরি। তাকে বিমানবন্দরে স্বাগত জানান পররাষ্ট্রমন্ত্রী ড. এ কে আব্দুল মোমেন।

ভারতের নয়াদিল্লি থেকে ঢাকায় পৌঁছেছেন জন কেরি। মূলত আগামী ২২-২৩ এপ্রিল বাইডেন’স লিডারস সামিট অন ক্লাইমেটে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে আমন্ত্রণ জানানোর জন্যই জন কেরির ঢাকা সফর।

এমআইআর/এডিবি