NAVIGATION MENU

ভারতে সাংবাদিককে গুলি করে হত্যা


উত্তরপ্রদেশের বালিয়া জেলায় এক সাংবাদিককে ধাওয়া করে গুলি চালিয়ে হত্য করেছে দুষ্কৃতিরা। 

সোমবার (২৪ আগস্ট) রাতে গুলিবিদ্ধ হয়ে ঘটনাস্থলেই মৃত্যু হয় রতন সিং নামে ওই সাংবাদিকের। সম্পত্তিগত বিবাদের কারণেই এই হত্যাকাণ্ড ঘটেছে বলে জানায় পুলিশ। তবে নিহতের বাবা তা অস্বীকার করেছেন।

ঘটনার তদন্তে নেমে উত্তরপ্রদেশের পুলিশ ৩ সন্দেহভাজনকে গ্রেপ্তার করেছে। 

রতন সিং একটি বেসরকারি নিউজ চ্যানেলে কাজ করতেন। 

জানা যায়, সোমবার রাত ৯টা নাগাদ উত্তরপ্রদেশের রাজধানী লখনউ থেকে প্রায় ২৬০ কিলোমিটার দূরে বালিয়ায় নিজের গ্রামের বাড়ির কাছে খুন হন ৪২ বছরের ওই সাংবাদিক। সম্পত্তির বিবাদের কারণেই রতন সিংকে খুন করা হয়েছে, পুলিশ একথা বললেও সাংবাদিকের বাবা এই দাবি খারিজ করেছেন।

তিনি জানান 'কোনও সম্পত্তিগত বিরোধ ছিল না। দয়া করে ঘটনাস্থলে গিয়ে নিজেরাই দেখুন। পুলিশ গল্প তৈরি করছে', সাংবাদিকদের সামনে উপস্থিত হয়ে একথা বলেন রতন সিংয়ের বাবা বিনোদ সিং।

কিন্তু পুলিশ নিজেদের দাবিতে অটল রয়েছে। তারা জানায়, রতন সিং আসলে শহরে থাকতেন, সম্পত্তির ভাগ নিয়ে কথা বলতেই তিনি গ্রামের বাড়িতে আসেন। দুষ্কৃতিদের সঙ্গে বহুদিন ধরেই সম্পত্তি নিয়ে ঝামেলা চলছিলো তাদের পরিবারের।

আজমগড় রেঞ্জের ডিআইজি সুভাষ দুবে সাংবাদিকদের বলেন, 'অভিযুক্তরা একটি সম্পত্তিকে নিজেদের বলে দাবি করে তার চারপাশে দেওয়াল তুলেছিল। এমনকী ওই জমিতে একটি অস্থায়ী কাঠামোও তৈরি করে তারা। কিন্তু সাংবাদিক গিয়ে সেগুলো ভেঙে দেন। সেই ঘটনা নিয়ে ঝামেলা শুরু হলে সাংবাদিককে গুলি করা হয়, তিনি ঘটনাস্থলেই মারা যান। পুলিশ তিন অভিযুক্তকে গ্রেপ্তার করেছ। সম্পত্তিগত বিরোধ এবং পুরনো শত্রুতার ফলেই এই হামলা করা হয়েছে বলে মনে করা হচ্ছে।'

ভারতের সংবাদমাধ্যম এনডিটিভি জানায়, উত্তরপ্রদেশে একমাসের মধ্যে এটি দ্বিতীয় সাংবাদিক হত্যার ঘটনা। এর আগে ২২ জুলাই দিল্লির অদূরে গাজিয়াবাদে সাংবাদিক বিক্রম জোশী নিহত হন। ভাইঝিকে উত্ত্যক্ত করা নিয়ে থানায় অভিযোগ করেছিলেন বিক্রম জোশী। তার জেরেই ওই সাংবাদিকতে তার দুই মেয়ের সামনে গুলি করে হত্যা করা হয়। সুত্র:- এনডিটিভি

এডিবি/