NAVIGATION MENU

ভ্যাকসিন খুবই নিরাপদ: স্বাস্থ্যমন্ত্রী


ভ্যাকসিন খুবই নিরাপদ, করোনার যতগুলা ভ্যাকসিন আছে তাদের ভেতর এটা সবচেয়ে নিরাপদ। এর কোন পার্শ্বপ্রতিক্রিয়া নেই বললেই চলে বলে জানিয়েছেন স্বাস্থ্যমন্ত্রী জাহিদ মালেক।

র শরীরে প্রয়োগ করা হয়েছে করোনা প্রতিরোধী টিকা।

রবিবার (৭ ফেব্রুয়ারি) দেশব্যাপী টিকা প্রদান কর্মসূচির উদ্বোধনের পর মহাখালীর গ্যাস্ট্রোলিভার হাসপাতালে নিজ শরীরে টিকা প্রয়োগ শেষে মন্ত্রী এ কথা বলেন।

এর আগে সকাল ১০টায় স্বাস্থ্য অধিদফতর থেকে সারাদেশে গণহারে টিকাদান কর্মসূচির উদ্বোধনকালে করেন স্বাস্থ্যমন্ত্রী।

এসময় জাহিদ মালেক বলেন, ‘ভ্যাকসিন নিয়ে কোনো সমালোচনা নয়। করোনার টিকা পেতে ছয় মাস সময় লাগবে। বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা (ডব্লিউএইচও) থেকে কোভাক্স (করোনার টিকা) আসবে, সেই টিকা দেয়া হবে। চলমান ভ্যাকসিন প্রদান কার্যক্রম সারা বছর চলবে।’

তিনি বলেন, ‘মন্ত্রী-এমপিসহ সমাজের গুরুত্বপূর্ণ ব্যক্তিরা আজ টিকা নিবেন। এতে জনগণ আরও উদ্বুদ্ধ হবে। আপনারা টিকা নিন, সুস্থ থাকুন।’

মন্ত্রী বলেন, ‘দেশের সকল জেলার সঙ্গে আমরা যুক্ত হয়েছি। সেখানে গুরুত্বপূর্ণ ব্যক্তিবর্গ আছেন। তাদের সঙ্গে আমরা ভ্যাকসিন নিব। এটা নিয়ে যেন কোন রকমের রিউমার না হয়। আমরা হাজার হাজার মানুষকে ভ্যাকসিন দেব, লাখও ছাড়িয়ে যেতে পারে।’

টিকাদান কার্যক্রম সফল করতে রাজধানীতে ৬৫টি স্থানসহ সারাদেশে হাজারের বেশি কেন্দ্র প্রস্তুত করা হয়েছে। এই কাজে ঢাকায় স্বাস্থ্যকর্মীদের ২০৬টি দল প্রস্তুত রয়েছে।

ঢাকার বাইরে সারাদেশের বিভিন্ন হাসপাতাল, উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স মিলিয়ে ৯৫৯টি স্থান নির্ধারণ করা হয়েছে। এসব জায়গায় ২ হাজার ১৯৬টি দল টিকাদান কার্যক্রম পরিচালনা করবে।

এমআইআর/ওআ