NAVIGATION MENU

মাদ্রাসা ছাত্রকে বলাৎকারের অভিযোগে গ্রেপ্তার ২


নোয়াখালীর বেগমগঞ্জের একলাশপুরে দশ বছরের এক মাদ্রাসা ছাত্রকে বলাৎকারের অভিযোগে গ্রেপ্তার একই মাদ্রাসার অপর দুই শিক্ষার্থী।

রবিবার (২৫ অক্টোবর) মধ্যরাতে মামলাটি দায়ের হওয়ার পরই পৃথক স্থানে অভিযান চালিয়ে তাদের গ্রেপ্তার করে পুলিশ।

এর আগে নির্যাতনের শিকার ওই ছাত্রের বাবা একই মাদ্রাসার অপর দুই শিক্ষার্থীকে আসামি করে বেগমগঞ্জ থানায় এ মামলা দায়ের করেন।

এ মামলার এজাহারভুক্ত আসামিরা হলো - সিফাত (১৪)। সে নোয়াখালী পৌরসভার কাজী কলোনীর বাসিন্দা ও মাদ্রাসার হেফজ্ বিভাগের ছাত্র। অপরজনের নাম  হাসান (১১)। সে একলাশপুর গ্রামের বসিন্দা।

নির্যাতনের শিকার শিশুটি স্থানীয় হাফেজ মহিউদ্দিন (রহ.) তাহফিজুল কোরআন হাফিজিয়া মাদ্রাসার নূরানী বিভাগের প্রথম জামাতের ছাত্র।

থানা সূত্রে জানা যায়, ‘শিশু ছাত্রটি এক বছর আগে ওই মাদরাসায় ভর্তি হয়। সে মাদ্রাসায় আবাসিক ছাত্র হিসেবে থেকে পড়ালেখা করতো। গত শুক্রবার ছেলের সঙ্গে দেখা করতে মাদ্রাসায় যায় তারা বাবা। এ সময় শিশুটি তাকে বাড়ি নিয়ে যাওয়ার জন্য বাবার কাছে কান্নাকাটি করে। পরে তাকে বাড়িতে নিয়ে আসলে সে জানান, হেফজ বিভাগের শিক্ষার্থী সিফাত ও হাসান দীর্ঘ দিন থেকে বেশ কয়েকবার তাকে বলাৎকার করে আসছে।’

বেগমগঞ্জ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) কামরুজ্জামান শিকদার জানান, ‘মামলার পর পরই আসামিদের গ্রেপ্তার করা হয়েছে। তাদের বিরুদ্ধেও ব্যবস্থা নেয়া হবে।’

ওয়াই এ/ওআ