NAVIGATION MENU

মুক্তিযোদ্ধার উপর হামলা: সস্ত্রীক ইউপি চেয়ারম্যান গ্রেপ্তার


মুক্তিযোদ্ধা শাহ আলমের উপর হামলার ঘটনায় পটুয়াখালীর টিয়াখালী ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যানকে সস্ত্রীক গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। এ ঘটনায় মোট ৫ জনকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে।

সোমবার (৩০ নভেম্বর) দিবাগত রাত ৩টার দিকে জেলার তারিকাটা এলাকার একটি বাড়ি থেকে ইউপি চেয়ারম্যান ও তার স্ত্রীকে গ্রেপ্তার করা হয়।

রবিবার (২৯ নভেম্বর) বিকেলে কলাপাড়া উপজেলার চাকামইয়া এলাকার বিসমিল্লাহ ইটভাটার মালিক ও মুক্তিযোদ্ধা মো. শাহ আলমের উপর হামলা হয়।

হাসপাতালে চিকিৎসাধীন শাহ আলম সাংবাদিকদের জানান, রবিবার বিকালে কলাপাড়া উপজেলার চাকামইয়া এলাকার তার মালিকানাধীন বিসমিল্লাহ ইটভাটায় অবস্থান করছিলেন তিনি। এ সময় চেয়ারম্যান মশিউর রহমান শিমু মীর এবং তার স্ত্রী খাদিজা আক্তার এলিজার নেতৃত্বে দেশীয় অস্ত্রশস্ত্র নিয়ে ১৫ থেকে ২০ জন তার উপর হামলা চালিয়ে কুপিয়ে জখম করে।

গুরুতর আহত অবস্থায় তাকে প্রথমে কলাপাড়া হাসপাতালে নেওয়া হয়। সেখান থেকে পটুয়াখালী জেনারেল হাসপাতালে ভর্তি করার পর উন্নত চিকিৎসার জন্য বরিশাল মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নেওয়া হয়।

কলাপাড়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) খন্দকার মোস্তাফিজুর রহমান বিষয়টি নিশ্চিত করেন।

সিবি/এডিবি