NAVIGATION MENU

মোদি বিরোধী মিছিল-মিটিং কড়া হাতে দমনের ঘোষণা মনিরুল ইসলামের


বাংলাদেশের স্বাধীনতার সুবর্ণজয়ন্তী অনুষ্ঠানে যোগ দিতে আগামী ২৬ মার্চ বাংলাদেশ সফরে আসছেন ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি। স্বাধীনতার সুবর্ণজয়ন্তী ছাড়াও রয়েছে, ঢাকা-দিল্লির কূটনৈতিক সম্পর্কের ৫০ বছর পূর্তি।  

জাতিরজনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের কন্যা তথা প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার আমন্ত্রণে এ উৎসবে যোগ দিতে ২ দিনের সফরে ২৬ মার্চ আসছেন নরেন্দ্র মোদি।  

ঢাকা মেট্রো পলিটন পুলিশের-ডিএমপি ভারপ্রাপ্ত কমিশনার (পুলিশের বিশেষ শাখার প্রধান) মো. মনিরুল ইসলাম বলেছেন, প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির বাংলাদেশে আগমনকে সামনে রেখে যারা মোদি বিরোধী মিছিল-মিটিং করছে কিংবা করবে তাদের বিরুদ্ধে পুলিশ শক্তভাবে আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণ করবে।

রবিবার জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জন্মশতবার্ষিকী ও স্বাধীনতার সুবর্ণজয়ন্তীর উদ্বোধনে বিভিন্ন দেশের রাষ্ট্রপ্রধান ও সরকার প্রধানের আগমন উপলক্ষে আয়োজিত নিরাপত্তা সংক্রান্ত ব্রিফিংয়ে সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে তিনি এ কথা বলেন। 

তিনি বলেন, যারা এসব মিছিল-মিটিং করবে তাদের শুভবুদ্ধির উদয় হবে। অন্যথায় শক্তভাবে তাদের বিরুদ্ধে আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে। তিনি বঙ্গবন্ধুর জন্মশতবার্ষিকী ও স্বাধীনতার সুবর্ণজয়ন্তীর অনুষ্ঠান চলাকালে রাজনৈতিক কর্মসূচি না দিতে রাজনৈতিক দলগুলোর প্রতি অনুরোধ জানান।

তিনি বলেন, ভিভিআইপিরা আসবেন তাই রাজনৈতিক কোনো কর্মসূচি না দেয়ার জন্য অনুরোধ জানাচ্ছি। তিনি বলেন, অনুষ্ঠান চলাকালীন ১৭ থেকে ২৬ মার্চ রাস্তায় চলাফেরার ক্ষেত্রে কিছুটা ট্রাফিক সমস্যা হতে পারে। এ জন্য নির্ধারিত সময়ের আগেই অফিস-আদালত কিংবা পরীক্ষার জন্য আগে বের হওয়ার অনুরোধ করছি। 

রাষ্ট্রের সম্মানের কথা চিন্তা করে জনগণের এইটুকু স্যাক্রিফাইস করতে হবে। বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জন্মশতবার্ষিকী ও স্বাধীনতার সুবর্ণজয়ন্তী উপলক্ষে আয়োজিত অনুষ্ঠানে বিদেশি রাষ্ট্রপ্রধান ও আমন্ত্রিত অতিথিরা যোগ দেবেন। 

রাজধানীর কোনো কোনো সড়কে যান চলাচলে কিছুটা বিঘ্ন হবে।তাই আগামী ১৭ মার্চ থেকে ২৬ মার্চ পর্যন্ত রাজধানীবাসীকে চলাচলে সীমাবদ্ধতা থাকবে। মনিরুল বলেন, ১৭ মার্চ থেকে ২৬ মার্চের মধ্যে সাপ্তাহিক ও সরকারি ছুটি মিলিয়ে চারদিন ছুটি রয়েছে। 

এ সময়ে আমরা সর্বোচ্চ চেষ্টা করবো সড়কে চলাচলে ভোগান্তি যতটা কমানো যায়। এরআগে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির বাংলাদেশে আগমন যে কোন মূল্যে ঠেকানোর ঘোষণা দিয়েছিল প্রগতিশীল ছাত্র জোট। 

গত বুধবার সন্ধ্যায় প্রগতিশীল ছাত্র জোটের মশাল মিছিল থেকে এই ঘোষণা দেওয়া হয়েছিল। ওই সবাবেশে বিপ্লবী ছাত্র যুব আন্দোলনের সভাপতি অনিক বলেছিলেন,  নরেন্দ্র মোদি বাংলাদেশে আসছেন। 

আমরা বাংলাদেশের জনগণ এবং আমাদের সহযোদ্ধাদের নিয়ে মোদিকে ঠেকাব এবং তার এদেশীয় দালাল সরকার হাসিনাকে উৎখাত করব।

এস এস