NAVIGATION MENU

রায়হানের মরদেহ কবর থেকে তোলার নির্দেশ আদালতের


‘পুলিশের হেফাজতে নির্যাতনে নিহত’ যুবক রায়হান উদ্দিনের মরদেহ পুনরায় ময়নাতদন্তের জন্য কবর থেকে তোলার নির্দেশ দিয়েছেন আদালত।

বুধবার (১৪ অক্টোবর) পুলিশের আবেদনের প্রেক্ষিতে আদালত এ নির্দেশ দিয়েছেন বলে জানিয়েছেন সিলেট মহানগর পুলিশের অতিরিক্ত উপ কমিশনার (গণমাধ্যম) জ্যোর্তিময় সরকার।

রবিবার (১১ অক্টোবর) সকালে ওসমানী হাসপাতালে মারা যান সিলেট নগরীর আখালিয়ার নেহারিপাড়া এলাকার মৃত রফিকুল ইসলামের ছেলে রায়হান আহমদ।

এ বিষয়ে সিলেট বন্দর ফাঁড়ির পুলিশের পক্ষ থেকে জানানো হয়, ‘নগরীর কাস্টঘর এলাকায় ছিনতাইয়ের অভিযোগে এলাকাবাসী রায়হানকে গণপিটুনি দেয়। পরে পুলিশ তাকে উদ্ধার করে ওসমানী হাসপাতালে ভর্তি করে। সেখানে চিকিৎসাধীন অবস্থায় রায়হানের মৃত্যু হয়।’

পারিবারিক সূত্রে জানা যায়, ‘মারা যাওয়ার পর রায়হানের শরীরে বিভিন্ন স্থানে আঘাতের চিহ্ন পাওয়া যায়। তার হাতের নখও উপড়ানো ছিল। ময়নাতদন্ত শেষে রবিবার বাদ এশা নগরীর আখালিয়া জামে মসজিদে জানাজার পরে আখালিয়া জামে মসজিদ সংলগ্ন কবরস্থানে রায়হানকে দাফন করা হয়।’

এ ঘটনার পর পুলিশের হেফাজতে নির্যাতন করে রায়হানকে মেরে ফেলার অভিযোগ ওঠে।

এরপর সিলেটের অতিরিক্ত জেলা ম্যাজিস্ট্রেট মাহফুজুর রহমান জানান, ‘মৃত্যুর সঠিক কারণ উদঘাটনে পুলিশের আবেদনের প্রেক্ষিতে নিহত রায়হানের মরদেহ কবর থেকে উত্তোলনের অনুমতি দেওয়া হয়েছে।’

ওয়াই এ/এডিবি