NAVIGATION MENU

রেলকে অধিক গুরুত্ব দিয়ে ঢেলে সাজানো হচ্ছে: রেলমন্ত্রী


বাংলাদেশে সমন্বিত যোগাযোগ ব্যবস্থা গড়ে তোলার লক্ষ্যেই রেলকে অধিক গুরুত্ব দিয়ে ঢেলে সাজানো হচ্ছে বলে জানিয়েছেন রেলপথমন্ত্রী মো. নূরুল ইসলাম সুজন।

শনিবার (১৩ মার্চ) রাজশাহীতে বাংলাদেশ রেলওয়ের পশ্চিমাঞ্চলের স্টেশন এবং অপারেশন কর্মকাণ্ডের সঙ্গে জড়িত বিভিন্ন পর্যায়ের কর্মকর্তা-কর্মচারীদের জন্য আদর্শ রেলওয়ে স্টেশন ও যাত্রীসেবার মানোন্নয়নে পারস্পরিক শিখন ও ওয়াশ বিষয়ক কর্মশালার উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে তিনি এ কথা বলেন।

এসময় রেলমন্ত্রী বলেন, ‘যেকোনো দেশের উন্নয়নের মূল চাবিকাঠি যোগাযোগ ব্যবস্থার উন্নয়ন। আর সমন্বিত যোগাযোগ ব্যবস্থা ছাড়া উন্নয়ন সম্ভব নয়। বিদ্যমান রেলওয়ে ট্র্যাকের সক্ষমতা বৃদ্ধি করে গতি বাড়াতে উদ্যোগ নেয়া হয়েছে।’

তিনি বলেন, ‘অন্যান্য দেশের রেলওয়ে ব্যবস্থাপনার অভিজ্ঞতাকে কাজে লাগিয়ে আমরা উন্নত প্রযুক্তি ব্যবহারের মাধ্যমে রেল ব্যবস্থার সার্বিক উন্নয়ন ঘটানোর জন্য চেষ্টা করে যাচ্ছি। অন্য দেশে রেল মানুষের জীবনযাত্রায় অনেকভাবে প্রভাব বিস্তার করছে। আমাদের দেশেও রেলকেন্দ্রিক অনেকের জীবনব্যবস্থা চালু আছে। যে অঞ্চলের পাশ দিয়ে রেললাইন গেছে সেখানে রেলকে কেন্দ্র করেই সবকিছু পরিচালিত হচ্ছে।’

মন্ত্রী বলেন, ‘যাত্রীসেবার মান বৃদ্ধির জন্য যা যা প্রয়োজন সবকিছুই আমরা করব। এরই মধ্যে স্টেশনের প্ল্যাটফর্ম উঁচু করা হচ্ছে। এ বছরের মধ্যে ৫০টি স্টেশনকে সংস্কার ও আধুনিক করা হবে। প্রধানমন্ত্রী রেলকে অধিক গুরুত্ব দিয়ে আলাদা মন্ত্রণালয় করে দিয়েছেন, প্রতিটি জেলায় রেল সংযোগ দেয়ার উদ্যোগ গ্রহণ করা হয়েছে।’

তিনি বলেন, ‘যুক্তরাষ্ট্র থেকে ৪০টি লোকোমোটিভ আসছে, দক্ষিণ কোরিয়া থেকে এরই মধ্যে ১০টি বাংলাদেশে পৌঁছেছে। এভাবেই রেলকে ঢেলে সাজানোর জন্য বহুমুখী কার্যক্রম হাতে নেয়া হয়েছে।’

এসময় অন্যান্যের মধ্যে আরও উপস্থিত ছিলেন-বাংলাদেশ রেলওয়ের মহাপরিচালক ধীরেন্দ্র নাথ মজুমদার, রেলপথ মন্ত্রণালয়ের সচিব মো. সেলিম রেজা, রেলওয়ের অতিরিক্ত মহাপরিচালক অপারেশন সরদার শাহাদত আলী, রেলওয়ের পশ্চিমাঞ্চলের মহাব্যবস্থাপক মিহির কান্তি গুহ, ওয়াটার এইড বাংলাদেশ এর কান্ট্রি ডিরেক্টর হাসিন জাহান।

এমআইআর/এডিবি