NAVIGATION MENU

শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে বার্ষিক ঐচ্ছিক ছুটি কমতে পারে


বৈশ্বিক সংকট করোনাভাইরাসে সৃষ্ট পরিস্থিতির কারণে সরকারি নির্দেশনা অনুযায়ি দীর্ঘ সময় দেশের সব শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান বন্ধ থাকায় এবার একাডেমিক ক্যালেন্ডার অনুযায়ি ঐচ্ছিক শিক্ষা ছুটি সীমিত করার কথা ভাবা হচ্ছে বলে জানান সংশ্লিষ্টরা।

মঙ্গলবার (২১ এপ্রিল) সকাল ১০টায় শিক্ষা সচিব মাহাবুব হোসেনের সঙ্গে সারাদেশের ১০টি শিক্ষাবোর্ডের চেয়ারম্যান, পরীক্ষা নিয়ন্ত্রক, সিনিয়র সিস্টেম অ্যানালিস্টসহ সংশ্লিষ্টদের ভিডিও কনফারেন্সে এই সম্ভাব্য সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে।

যার ফলে করোনার প্রভাব কমলে শ্রেণিকক্ষে ক্লাসের সময় ৪০ মিনিটের পরবর্তে এক ঘণ্টা করা হবে।

এছাড়া সেই সঙ্গে ঈদুল আজহার ছুটি ১৫ দিন কমিয়ে তা ১০ দিন ও দুর্গাপুজার ছুটি সাত দিন কমিয়ে তিন দিন করা হতে পারে।

আন্তঃশিক্ষা বোর্ড সমন্বয় সাব কমিটির সভাপতি ও ঢাকা শিক্ষা বোর্ডের চেয়ারম্যান অধ্যাপক মু. জিয়াউল হক বলেন, ‘এই ছুটিগুলো আমরা সমন্বয় করলে যে সময়টা চলে গেছে, সেই সময়টা কাভার হবে। এ বিষয়ে একটি আলোচনা হয়েছে। তবে এখনও সিদ্ধান্ত হয়নি। বিষয়টি স্টাডি করে ওয়ার্কআউট করে সচিবকে দেবো তারপর উনারা সিদ্ধান্ত নেবেন।’

করোনাভাইরাসের প্রাদূর্ভাবের কারণে সংক্রমণ প্রতিরোধে শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানসহ সব অফিস আদালত কয়েক দফায় ছুটি ঘোষণা করায় আগামী ২৫ এপ্রিল পর্যন্ত বন্ধ রয়েছে। এ সময় জরুরি প্রয়োজনে সীমিত আকারে ব্যাংক, আর জরুরি সেবাদানকারী প্রতিষ্ঠান খোলা রয়েছে।

ওয়াই এ/এডিবি