NAVIGATION MENU

৬ নারীও মঙ্গলগ্রহে যাবেন


২০৩০ সালে প্রথমবারের মতো ১৩ নভোচারীকে নিয়ে মঙ্গলগ্রহের উদ্দেশে যাত্রা শুরু করবে মহাকাশ গবেষণা সংস্থা নাসা। মঙ্গলগ্রহে প্রাণের অস্তিত্ব ও মানুষের যাওয়া নিয়ে আলোচনা, তর্ক-বিতর্কের শেষ নেই।

ওই যাত্রায় প্রায় ১৮ হাজার নভোচারী আবেদন করেছেন। এদের মধ্য থেকে ১৩ নভোচারীকে বাছাই করেছে মহাকাশ গবেষণা সংস্থা নাসা।

সম্প্রতি সংস্থাটির টেক্সাসে আয়োজিত এক অনুষ্ঠানে ওই ১৩ নভোচারীর নাম ঘোষণা করা হয়। শুক্রবার (১০ জানুয়ারি) আন্তর্জাতিক সংবাদমাধ্যম এ তথ্য জানিয়েছে।

মহাকাশ গবেষণা সংস্থা জানায়, সংস্থাটির এই পরিকল্পনার অংশ হিসেবে ২০১৭ সাল থেকে প্রশিক্ষণ নিয়েছেন ওই নভোচারীরা। সম্প্রতি প্রশিক্ষণপ্রাপ্তদের মধ্য থেকে ছয় নারী ও সাত পুরুষকে বাছাই করা হয়।

ওই ১৩ সদস্যের দলে ১১ জন যুক্তরাষ্ট্রের ও দুইজন কানাডার। প্রায় ১৮ হাজার আবেদনের মধ্য থেকে ১৩ জনকে বাছাই করা হয়।নাসার বাচাই পর্বে এক নভোচারী উল্লাস।

১৯৫৯ সালে তৈরি করা নাসার প্রথম নভোচারী দলের নাম অনুসারে এই নভোচারী দলকে ‘মারকুরি ৭’ এর সিলভার পিন দেওয়া হয়। সফলতার সঙ্গে প্রথম স্পেস ফ্লাইট সম্পন্ন করার পর নভোচারীরা পাবেন স্বর্ণের পিন।

নাসার পরিকল্পনা অনুসারে নভোচারীর দলের এক নারী সদস্য প্রথম নারী হিসেবে চাঁদে পা ফেলবেন ২০২৪ সালে। ২০৩০ সালের মধ্যে ওই দলকে প্রস্তুত করে মঙ্গলগ্রহে অভিযানে নামার পরিকল্পনা নেয় সংস্থাটি।

সিবি / এস এস