NAVIGATION MENU

নাইজেরিয়ার খামারে ১১০ কৃষককে জবাই করে হত্যা


নাইজেরিয়ার দক্ষিণ-পূর্বাঞ্চলের ধানক্ষেতে অন্তত ১১০ জন কৃষকে জবাই করে হত্যা করা হয়েছে। শনিবার এ ঘটনা ঘটে। এর আগে গত রোববার এ ঘটনায় ৪৩ জনের মৃত্যুর খবর জানিয়েছিলো বিভিন্ন গণমাধ্যম। কিন্তু জাতিসংঘ বলছে, সন্ত্রাসীদের হাতে নৃশংসভাবে নিহতের সংখ্যা প্রকৃতপক্ষে ১১০। খবর আল জাজিরার।

শনিবার ‍(২৭ নভেম্বর) দুপুরের পরপর দক্ষিণ-পূর্বাঞ্চলের কোশোবি নামক গ্রামে এ ঘটনা ঘটে। মাঠে কর্মরত কৃষকরা প্রায় এক হাজার কিলোমিটার দূরবর্তী অঞ্চল থেকে জীবিকার সন্ধানে এসেছিলো।

জাতিসংঘের মানবিক কর্মসূচির সমন্বয়ক এডওয়ার্ড ক্যালোন জানান, মোটরসাইকেলে চেপে ভারি অস্ত্র নিয়ে সন্ত্রাসীরা মাঠে কর্মরত নারী ও পুরুষদের  একযোগে হত্যা করে। এসময় অনেক নারীকেও অপহরণ করে নিয়ে যায় সন্ত্রাসীরা।

তিনি বলেন ‘চলতি বছরের মধ্যে এটিই নিরাপরাধ নারী ও পুরুষের ওপর সবচেয়ে জঘন্যতম হামলা। আমি এ ঘটনায় ন্যায়বিচার নিশ্চিতের আহ্বান জানাই।

তবে এ হামলার দায় এখনো কেউ স্বীকার করেনি। তবে সম্প্রতিকালে জঙ্গি সংগঠন বোকো হারাম ও আইএস পশ্চিম আফ্রিকায় হামলা বিভিন্ন স্থাপনায় সিরিজ হামলা করে বহু মানুষকে হতাহত করছে।

আল জাজিরার প্রতিবেদনে বলা হয়, দেশটিতে গত এক দশকে ৩০ হাজারেরও বেশি মানুষকে হত্যা করেছে জঙ্গি সংগঠন দুটি। এছাড়াও ঘরছাড়া করেছে কয়েক লাখ মানুষকে।

নৃশংস এ ঘটনার প্রেক্ষিতে দেশটির প্রেসিডেন্ট মুহাম্মদ বুহারি বলেন, ‘কৃষকদের হত্যাকাণ্ডের ঘটনার তীব্র নিন্দা জানাচ্ছি। তারা কঠোর পরিশ্রমী ছিলেন। এই বর্বর হত্যাকাণ্ডের ঘটনায় পুরো দেশের মানুষই মর্মাহত হয়েছে। এদিকে, নিরাপত্তা বিশেষজ্ঞ সুলাইমান আলেদেহ জানিয়েছেন, সংঘাত নিয়ন্ত্রণে কর্তৃপক্ষের অদক্ষতায় লোকজন হতাশ হয়ে পড়েছে।

ওআ/