NAVIGATION MENU

ঢাবি ছাত্রীর আপত্তিকর ছবি ফেসবুকে দিয়ে ছাত্র পাকড়াও


ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের এক ছাত্রীর আপত্তিকর ছবি সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে ছড়িয়ে দেওয়ার অভিযোগে একই বিশ্ববিদ্যালয়ের এক ছাত্রকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। 

রবিবার দুপুরে রাজধানীর শাহবাগ থানায় মোহাম্মদ মোফাজ্জল সাদাত নামে ওই ছাত্রের বিরুদ্ধে ডিজিটাল সিকিউরিটি আইন ও পর্ণোগ্রাফি নিয়ন্ত্রণ আইনে মামলা করেন ওই ছাত্রী। 

এরপরই অভিযুক্ত ওই ছাত্রকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। মামলার এজহার সূত্রে জানা যায়, করোনার প্রার্দুভাবের শুরুর দিকে মোহাম্মদ মোফাজ্জল সাদাত নামে ঢাবির রাষ্ট্রবিজ্ঞান বিভাগের ২০১৮-১৯ সেশনের ওই ছাত্রের সঙ্গে একই সেশনের এক ছাত্রীর প্রেমের সর্ম্পক গড়ে উঠে।

এ সময় ক্যাম্পাস বন্ধ থাকায় বিভিন্ন সময়ে ফেসবুকে তাদের মধ্যে চ্যাটিং, ভিডিও ও অডিও কথাবার্তা চলতো। একপর্যায়ে ওই ছাত্রীর আপত্তিকর ছবি নিয়ে সাদাত তার ফোনে সংগ্রহ করে রেখে দেয়।

এজহারে ওই ছাত্রী আরও উল্লেখ করেন, শনিবার রাত নয়টার দিকে আমার এক বন্ধুর আইডিতে মাহমুদ হাসান নামের ফেসবুক আইডি থেকে বেশকিছু নগ্ন ছবি প্রেরণ করে। 

ঢাবি ছাত্র সাদাত এসব ছবি প্রেরণ করেছে দাবি করে তিনি জানান, এ অবস্থায় সাদাত এসব ছবি ফেসবুকে প্রকাশ করে আমার মানহানি করে। যাতে আমি সামাজিকভাবে হেয়প্রতিপন্ন হয়েছি।

এদিকে, ভুক্তভোগী ওই ছাত্রীর এক বান্ধবী জানান, সম্প্রতি তাদের সর্ম্পকের মধ্যে মনোমালিন্য সৃষ্টি হলে ওই ছাত্রীর আপত্তিকর ছবিগুলো ফেসবুকের ফেক আইডি দিয়ে আপলোড করে সাদাত। 

বিষয়টি জানতে পারলে গত শনিবার তার এক বান্ধবী আইনী সহায়তা চেয়ে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় নিরাপত্তা মঞ্চে (ফেসবুক কেন্দ্রীক শিক্ষার্থীদের গ্রুপ) স্ট্যাটাস দেয়। পরে বিষয়টি ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় নিরাপত্তা মঞ্চের নজরে আসলে ওই ছাত্রীকে তারা সব ধরনের আইনী সহায়তার আশ্বাস প্রদান করেন।

ওআ/