NAVIGATION MENU

তথ্য প্রতিমন্ত্রীর উদ্যোগে চালু হলো টেলিমেডিসিন সেন্টার


করোনা মহামারির এই সময়ে আর্ত মানবতার সেবায় তথ্য প্রতিমন্ত্রী ডা. মুরাদ হাসানের উদ্যোগে চালু হচ্ছে টেলিমেডিসিন সেন্টার।

‘আমার ডাক্তার, সাাথেই আছে সারাক্ষণ’ এ শ্লোাগানকে ধারণ করে সংগঠনের পটভূমিতে বলা হয়েছে, ‘আপনারা সবাই জানেন যে করোনা ভাইরাসের ভয়াল থাবা সারা পৃথিবীকে গ্রাস করেছে। আমাদের প্রিয় মাতৃভুমি বাংলাদেশও এই বিপদের বাইরে নয়। করোনা ভাইরাসের এই মহামারীতে নিজের জীবনের ওপর ঝুকি নিয়ে আমাদের দেশের চিকিৎসকগণ মানুষের জীবন রক্ষার জন্য যুদ্ধে ঝাপিয়ে পড়েছে।’

করোনার এই ভয়াল সময়ে অন্য রোগের রোগীরাও তাদের চিকিৎসার জন্য প্রয়োজন অনুযায়ি হাসপাতালে যেতে পারছেন না উল্লেখ করে বলা হয় , আবার ঘরে থাকার কারনে সময় মত চিকিৎসকের পরামর্শও নিতে পারছেন না।এমতাবস্থায় দেশের বিভিন্ন হাসপাতালে কর্মরত বিশেষজ্ঞ চিকিৎসকদের একটি পরিবার সবার সেবায় টেলিমেডিসিন প্রক্রিয়ার মাধ্যমে সঠিক চিকিৎসা বিষয়ক পরামর্শ প্রদানের ব্রত গ্রহণ করেছেন।

সবাই সম্পুর্ণ বিনা খরচে প্রতিদিন প্রতিটি মুহুর্ত এই চিকিৎসাসেবা যেন পান সে লক্ষ্যেই এই চিকিৎসকেরা কাজ করে যেতে অঙ্গীকারাবদ্ধ বলে জানানো হয়।

এই উদ্যোগের সহ উদ্যোক্তা প্রতিমন্ত্রী ডা. মুরাদ হাসানের সহধর্মিনী ডা. জাহানারা আহসান, প্রধান সমন্বয়ক- ডা. মো. আশরাফুজ্জামান সজীব, সহ সমন্বয়ক ডা. ফাইম চৌধুরী সনি, ডা. খন্দকার মুস্তাক আদনান ও ডা. মমতাজুল হাসান শিমুল।

দেশের খ্যাতনামা ৪০ জন বিশেষজ্ঞ চিকিৎসকের সমন্বয়ে গঠিত এ সেন্টারের সেবা পেতে ফোন করতে হবে ০৯৬১১৫৫৫২২২ নাম্বারে। সেন্টারের ফেইস বুক পেইজেও যোগাযোগ করা যাবে।

টেলিমেডিসিন সেন্টার প্রসঙ্গে তথ্য প্রতিমন্ত্রী ডা. মুরাদ হাসান বলেন, পৃথিবীজুড়ে চলমান করোনা মহামারি মোকাবেলায় সবাইকে স্ব স্ব অবস্থান থেকে ভূমিকা রাখতে হবে। আর সে তাগিদ থেকেই এ উদ্যোগ। 

তিনি জানান, পরিবর্তিত চাহিদানুসারে টেলিমেডিসিন সেন্টারের সেবার পরিধি বৃদ্ধি করা হবে।-বাসস

এডিবি/