NAVIGATION MENU

বুকার পুরস্কার জিতেছেন ডগলাস স্টুয়ার্ট


৪৪ বছর বয়সি স্কটিশ-আমেরিকান লেখক ডগলাস স্টুয়ার্ট এ বছর বুকার পুরস্কার জিতেছেন। প্রথম উপন্যাস শুগি বেইন-এর জন্য এ পুরস্কার পেলেন তিনি।

বৃহস্পতিবার (১৯ নভেম্বর) লন্ডনে তার নাম ঘোষণা করা হয়। দ্বিতীয় স্কটিশ হিসেবে ৫০ হাজার ডলারের এই পুরস্কার পেলেন তিনি।

ঘটনা বিগত শতাব্দীর আটের দশকের। স্কটল্যান্ডে এক মদ্যপ মা ও তার ছেলে শুগির কাহিনী ফুটে উঠেছে এই আত্মজীবনীমূলক উপন্যাসটিতে। 

যুক্তরাজ্যের দ্য গার্ডিয়ানের এক প্রতিবেদনে জানানো হয়েছে, উপন্যাসটিতে লেখকের নিজের জীবনের ওপর ভিত্তি করে গল্প তুলে ধরা হয়েছে। যেখানে তুলে ধরা হয়েছে আশির দশকের গ্লাসগোতে দারিদ্র্যের মধ্যে বেড়ে ওঠা একটি ছেলের কাহিনি। সেই ছেলের মা মাদকাসক্তির বিরুদ্ধে লড়ছেন। যেখানে শুগি তার মায়ের জন্য স্কুলে কটাক্ষের শিকার হয়েছেন। অত্যন্ত কষ্টে তাদের জীবন কাটলেও, শুগি সর্বদা তার মায়ের যত্ম নিতেন। তার বয়স যখন ১৬ তখন তার মা মারা যান।

স্টুয়ার্ট নিজের সম্পর্কে দেওয়া বর্ণনায় লিখেছেন, শ্রমজীবী পরিবারের একটি শিশু যার জীবনযাপন ছিল ভিন্ন রকম। সেই শিশুই একসময় লেখালেখির সঙ্গে যুক্ত হয়ে পড়ে।

নিউইয়র্ক ভিত্তিক ফ্যাশন ডিজাইনার ডগলাস স্টুয়ার্ট এই পুরস্কার তার মাকে উৎসর্গ করেছেন। 

করোনা মহামারির মধ্যে সামাজিক দূরত্ব বজায় রাখতে তিনি তার নিজের শহর গ্লাসগো থেকে ভিডিও কনফারেন্সিংয়ের মাধ্যমে চূড়ান্ত মনোনয়নকারীদের সাথে অনুষ্ঠানে অংশ নেন। 

পুরস্কার জেতার পর অনুভূতি ব্যক্ত করতে গিয়ে স্টুয়ার্ট তার মাকে ধন্যবাদ জানিয়ে বলেন, এই বইয়ের প্রতিটি পৃষ্ঠায় তার মা রয়েছেন। মা ছাড়া আমি এখানে আসতে পারতাম না। আমার কাজ এখানে পৌঁছাতো না।

যুক্তরাজ্য প্রতিবছর সাহিত্যে ‘ম্যান বুকার’ পুরস্কার দেয়। ইংরেজি ভাষায় লেখা সেরা মৌলিক উপন্যাসের জন্য ১৯৬৯ সাল থেকে এই পুরস্কার দেওয়া হচ্ছে।

এডিবি/