ন্যাভিগেশন মেনু

শাইখুল ইসলাম রতন

Staff Correspondent
শাইখুল ইসলাম রতন
Oct 30, 2023

জাতীয়

বাইডেনের কথিত উপদেষ্টা আরেফী ঢাকা মহানগর গোয়েন্দা  হেফাজতে

বাইডেনের কথিত উপদেষ্টা আরেফী ঢাকা মহানগর গোয়েন্দা হেফাজতে

প্রেসিডেন্ট জো বাইডেনের উপদেষ্টা বলে দাবি করা কথিত সেই উপদেষ্টা মিয়া জাহিদুল ইসলাম আরেফীকে ঢাকা মহানগর গোয়েন্দা (ডিবি) হেফাজতে নেওয়া হয়েছে।ঢাকা মেট্রোপলিটন পুলিশের (ডিএমপি) অতিরিক্ত কমিশনার (ডিবি) মোহাম্মদ হারুন অর রশীদ সংবাদপত্রকে বিষয়টি নিশ্চিত করে জানান, রোববার দুপুরে ঢাকার হযরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দর থেকে তাকে আটক করা হয়। রোববার সন্ধ্যায় হযরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দর থেকে ইমিগ্রেশন পুলিশ তাকে আটক করে ডিবি কর্মকর্তাদের কাছে হস্তান্তর করে। তিনি যুক্তরাষ্ট্রে চলে যাওয়ার জন্য বিমানবন্দরে গিয়েছিলেন।উল্লেখ্য শনিবার সন্ধ্যায় আরেফী নয়াপল্টনের বিএনপির কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে নিজেকে যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট জো বাইডেনের উপদেষ্টা পরিচয় দিয়ে সাংবাদিকদের সঙ্গে কথা বলেন। এ সময় তার সঙ্গে বিএনপি নেতা ইশরাক হোসেন উপস্থিত ছিলেন।কে এই বাইডেনের কথিত উপদেষ্টা ?বাড়ি সিরাজগঞ্জের উল্লাপাড়া উপজেলার হাটিকুমরুল ইউনিয়নের মানিকদিয়ার গ্রামে। গ্রামের মানুষের কাছে তিনি বেলাল হোসেন নামে পরিচিত। তারা বাবার নাম রওশন মণ্ডল। গ্রামের সবাই তাকে বেলাল হোসেন নামেই চেনেন। তিনি সপরিবারে আমেরিকায় থাকলেও গ্রামে তার অনেক আত্মীয় আছেন। এ বছর কোরবানির ঈদের পর গ্রামে এসেছিলেন।গ্রামের বাড়িতে তার পরিবারের কেউ নেই। তার বাবা মৃত রওশন আলী আশির দশকে পাবনা জেলা শিক্ষা অফিসে চাকরি করতেন। মিয়া আরেফি ওরফে বেলালরা ছয় ভাই ও চার বোন। ৩৫ বছর আগে তারা সপরিবারে গ্রাম ছেড়ে আমেরিকায় চলে যান। প্রায় ৩৫ বছর ধরে বেলাল সপরিবার নিয়ে যুক্তরাষ্ট্রে থাকেন। জানা গেছে মানিকদিয়ার গ্রামে মিয়া আরেফির জন্ম ও শৈশব কাটলেও পাবনাতেও তাদের একটি নিজস্ব বাড়ি রয়েছে। বাবা রওশন মণ্ডল আমেরিকাতেই মারা গেছেন সেখানেই তার দাফন হয়েছে। তাদের মা আমেরিকায় জীবিত আছেন বলে জানা গেছে।মিয়া জাহিদুল ইসলাম আরেফী ছাত্রাবস্থাতেই পরিবারের সাথে আমেরিকায় যান। সেখানে তিনি ডেমোক্রেটিক পার্টির রাজনীতিতে যুক্ত। তবে তিনি এলাকায় আসলে নিজেকে জো বাইডেনের উপদেষ্টা হিসেবে পরিচয় দেন, তবে তিনি প্রেসিডেন্ট জো বাইডেনের উপদেষ্টা কিনা সেটা জানা নেই বলে এলাকাবাসী জানান।সলঙ্গা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. এনামুল হক জানান, জাহেদুল ইসলাম আরেফী এলাকায় বেলাল নামে পরিচিত। তার দাদা-দাদির জন্য দোয়া মাহফিল করতে গত জুলাই মাসে এসেছিলেন। তিনি উল্লাপাড়া ডাকবাংলোয় ছিলেন। এখানে কোনো সামাজিক কাজে তিনি জড়িত নন। স্থানীয় স্বজনরা...


Oct 25, 2023

জাতীয়

আনসার বাহিনীকে গ্রেফতারের ক্ষমতা দেওয়ার বিষয়টি প্রোপাগান্ডা - স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী

আনসার বাহিনীকে গ্রেফতারের ক্ষমতা দেওয়ার বিষয়টি প্রোপাগান্ডা - স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী

‘আমাদের দুটো ফোর্সই নিরাপত্তা বাহিনীর সদস্য’ আনসার বাহিনীকে গ্রেফতারের ক্ষমতা দেওয়ার বিষয়টি প্রোপাগান্ডা বা ভুল তথ্য বলে জানিয়েছেন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান কামাল।বিজয় দিবস উদযাপন উপলক্ষে সার্বিক নিরাপত্তা নিশ্চিত করতে বুধবার সচিবালয়ে আন্তঃমন্ত্রণালয় সভা শেষে সাংবাদিকদের তিনি জানান, আনসার ব্যাটালিয়ন সদস্যদের অপরাধীকে আটক, দেহ তল্লাশি ও মামলা জব্দের ক্ষমতা দেওয়া হচ্ছে বলে সমালোচনা করছে বিএনপি। এটা পুলিশও চায় না।স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, এটা একটা মিস ইনফরমেশন, আপনাদের ভুল ধারণা। আনসার বাহিনীকে গ্রেফতারের পারমিশন কখনো দেওয়া হয়নি। আজও দেওয়া হয়নি এবং কোনো আইন দ্বারা সেটা দেওয়ার কোনো ক্ষমতা আমাদের নেই।তিনি বলেন, আমাদের ফৌজদারি কার্যবিধির আওতার ভেতরে থেকে সব আইনশৃঙ্খলা বাহিনীকে কাজ করতে হবে। এই হলো মূলকথা। কোনো বাক্য যদি আইনের সঙ্গে সাংঘর্ষিক হয় তাহলে সেটি তারা পরিশুদ্ধ করবেন ।তাদের যে আইনটি আসছে, সেটি পরীক্ষা-নিরীক্ষার শেষ পর্যায়ে এখানে এসেছে। এটা আমাদের সংসদীয় স্থায়ী কমিটিতে গেছে, স্থায়ী কমিটির সদস্যরা এটি পরীক্ষা-নিরীক্ষা করবেন। সেখানে কোনো শব্দ, বাক্য যদি এ ধরনের প্রশ্নের অবতারণা করে, তবে সেগুলো কারেকশন হবে।‘আমি শুনতে পাচ্ছি, অনেক জায়গায় প্রচার হচ্ছে এবং বিভিন্ন মিডিয়াতে প্রকাশিত হয়েছে আনসার পুলিশের ক্ষমতা নিয়ে যাচ্ছে। এগুলো প্রোপাগান্ডা, সব মিস ইনফরমেশন। এ ধরনের কোনো ঘটনা ঘটেনি। আমরা সব সময় বলছি,।  মন্ত্রী বলেন, যে কোনো বাহিনীকে প্রচলিত ফৌজদারি আইন মেনে কাজ করতে হয়। আমি একটি কথা স্পষ্ট করে বলে দিচ্ছি, এখানে ভুল বোঝাবুঝির কোনো অবকাশ নেই।...


Oct 22, 2023

জাতীয়

আগামী ২৮ অক্টোবর সমাবেশকে কেন্দ্র করে কোনো নাশকতার আশঙ্কা নেই – ডিবি প্রধান

আগামী ২৮ অক্টোবর সমাবেশকে কেন্দ্র করে কোনো নাশকতার আশঙ্কা নেই – ডিবি প্রধান

আগামী ২৮ অক্টোবর বিএনপির ও আওয়ামী লীগের সমাবেশকে কেন্দ্র করে কোনো নাশকতার আশঙ্কা নেই,, তবে পুলিশের কঠিন চেকপোস্ট ও অভিযান অব্যাহত থাকবে বলে জানিয়েছেন ঢাকা মহানগর পুলিশের (ডিএমপি) গোয়েন্দা শাখার প্রধান হারুন অর রশীদ।রবিবার (২২ অক্টোবর) রাজধানীর মিন্টো রোড ডিএমপির মিডিয়া সেন্টারে সাংবাদিকদের এক প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, চেকপোস্ট বসানো পুলিশের রুটিন কাজ। পাশাপাশি আদালতের পরোয়ানাভুক্ত আসামি গ্রেফতারের কাজও নিয়মিত চলবে।হারুন অর রশীদ বলেন, প্রতিদিন অনেক বহিরাগত ঢাকায় আসে। তারা এসে বিভিন্ন অপরাধ করে। রাজধানীতে অনেক কেপিআইভুক্ত স্থাপনা রয়েছে সেগুলোর নিরাপত্তা নিশ্চিত করতে এবং কেউ যাতে নাশকতা না করতে পারে সেজন্য চেকপোস্ট বসানো হয় বলে জানান হারুন। অপরাধের বিরুদ্ধে অভিযান পরিচালনার কারণে ঢাকায় মানুষ সুন্দরভাবে চলাচল করতে পারছে। অপরাধ কমে আসছে।’তিনি আরও বলেনে, ‘ঢাকা শহরে একসময় একাধিক রাজনৈতিক দল সমাবেশ করতে পারতো না। কিন্তু বর্তমানে একই দিনে তিন চারটি সমাবেশ হচ্ছে, প্রত্যেকটি সমাবেশস্থলে পুলিশ নিরাপত্তা দিচ্ছে। অতীতে বড়বড় সমাবেশ হয়েছে, কোথাও কোনো নাশকতার ঘটনা ঘটেনি। ২৮ অক্টোবর কোনো নাশকতার আশঙ্কা নেই। আমরা আশা করি কোনো কিছু ঘটবে না। ডিএমপি কমিশনারের অনুমোদিত সমাবেশে আমরা পর্যাপ্ত নিরাপত্তা দেব। আমরা আশ্বস্ত করতে চাই, ঢাকায় আমাদের চেকপোস্ট চলবে, অভিযান চলবে, পরোয়ানাভুক্ত আসামি গ্রেপ্তারে আমাদের রুটিন কাজও চলমান থাকবে।’...


Oct 11, 2023

জাতীয়

টিকা তৈরির সক্ষমতা  বাংলাদেশকে সাড়ে ৩ বিলিয়ন ডলারের ঋণ অনুমোদন এডিবির

টিকা তৈরির সক্ষমতা বাংলাদেশকে সাড়ে ৩ বিলিয়ন ডলারের ঋণ অনুমোদন এডিবির

বাংলাদেশে টিকা তৈরির সক্ষমতা বাড়াতে বাংলাদেশের জন্য সাড়ে ৩ বিলিয়ন ডলারের ঋণ অনুমোদন দিয়েছে এডিবি। এলডিসি উত্তরণের পরবর্তী পর্যায়ে আগামী ২০২৬ সালের পর বাংলাদেশকে আন্তর্জাতিক বাজার দর অনুযায়ীই কিনতে হবে টিকা।বুধবার রাজধানীর শেরেবাংলা নগরে মন্ত্রীর দপ্তরে,পরিকল্পনামন্ত্রী এম এ মান্নানের ও সংস্থাটির কান্ট্রি ডিরেক্টর এডিমন গিন্টিং সঙ্গে  বৈঠক শেষে সাংবাদিকদের পরিকল্পনামন্ত্রী বলেন, আগামীতে আরও নানা ধরনের ভাইরাস আসতে পারে।  করোনা ও ডেঙ্গু সহ নানা ধরনের রোগের টিকা তৈরি করা হবে। সেজন্য এখন থেকে প্রস্তুতি দরকার। সরকার সেজন্য একটি প্রকল্প নিয়েছে। সেখানে এডিবি ৩৩ কোটি ৮০ লাখ ডলার ঋণ দেবে। এর মধ্যে অর্ধেক স্বল্প সুদে এবং অর্ধেক বাজার দরের কাছাকাছি সুদ থাকবে।বাংলাদেশের ভ্যাকসিন তৈরির সক্ষমতা বাড়াতে দ্রুত প্রকল্প অনুমোদন চায় এশীয় উন্নয়ন ব্যাংক (এডিবি)। বর্তমানে প্রকল্প প্রস্তাব তৈরির প্রক্রিয়া চলছে। আগামী ৩১ ডিসেম্বরের মধ্যে প্রকল্পটি অনুমোদন না হলে স্বল্প সুদের ঋণ পাওয়ার বিষয়টি অনিশ্চত হবে।এম এ মান্নান আরও বলেন, এডিবির কান্ট্রি ডিরেক্টর বলেছেন, গত অর্থবছর বাংলাদেশে তার সবচেয়ে ভালো সময় কেটেছে। কাজের পরিবেশ, অর্থছাড়, প্রকল্প বাস্তবায়ন এবং ঋণ অনুমোদন সব ক্ষেত্রেই ভালো সময় পার করেছে ।মন্ত্রী বলেন,এডিবি অনুরোধ প্রকল্পটি যাতে দ্রুত অনুমোদন করিয়ে দেওয়া হয় । আমার পক্ষ থেকে চেষ্টার কোনো কমতি থাকবে না। এটি ভালো উদ্যোগ। এডিবি আমাদের ভালো বন্ধু। যত দ্রুত অনুমোদন করা যায় সেই প্রচেষ্টা করা হচ্ছে।উল্লেখ্য যে, ডেঙ্গু প্রবণ বাংলাদেশে প্রথমবারের মতো আইসিডিডিআর,বি ও যুক্তরাষ্ট্রের ভার্মন্ট বিশ্ববিদ্যালয়ের (ইউভিএম) লার্নার কলেজ অব মেডিসিনের গবেষকরা একটি উৎসাহব্যঞ্জক টেট্রাভ্যালেন্ট ডেঙ্গু টিকা অর্থাৎ ডেঙ্গু ভাইরাসের চারটি ধরনের বিরুদ্ধেই উপযোগী টিকা নিয়ে গবেষণা সম্পন্ন করেছেন।গবেষণায় ব্যবহৃত এক ডোজের ডেঙ্গু টিকা টিভি-০০৫ মূল্যায়ন করে দেখা যায়, এটি শিশু-প্রাপ্তবয়স্কদের মধ্যে প্রয়োগের জন্য নিরাপদ ও রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা তৈরি করতে সক্ষম। গবেষণার ফলাফল সম্প্রতি দ্য ল্যানসেট ইনফেকশাস ডিজিজেস জার্নালে প্রকাশিত হয়েছে।ডেঙ্গু ভাইরাসের চারটি ধরন—ডেন-১, ডেন-২, ডেন-৩ ও ডেন-৪।  টিকার পরীক্ষামূলক প্রয়োগে দেখা গেছে, চারটি ধরনের বিরুদ্ধেই এই টিকা  অ্যান্টিবডি তৈরিতে সাফল্য দেখিয়েছে।  টিকারএই সফল পরীক্ষা নিয়ে একটি প্রতিবেদন আন্তর্জাতিক সাময়িকী 'ল্যানসেটে' গত সপ্তাহে প্রকাশিত হয়েছে। এই...


Oct 02, 2023

জাতীয়

নির্বাচনে  নিরপেক্ষ দায়িত্ব পালন, অবৈধ অস্ত্রের ঝনঝনানি বন্ধ  গুরুত্বপূর্ণ - ডিএমপি কমিশনার

নির্বাচনে নিরপেক্ষ দায়িত্ব পালন, অবৈধ অস্ত্রের ঝনঝনানি বন্ধ গুরুত্বপূর্ণ - ডিএমপি কমিশনার

দ্বাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনকে সামনে রেখে অবৈধ অস্ত্রের ঝনঝনানি বন্ধ করা গুরুত্বপূর্ণ বলে উল্লেখ করেছেন ঢাকা মেট্রোপলিটন পুলিশের (ডিএমপি) নবনিযুক্ত কমিশনার হাবিবুর রহমান।সোমবার (২ অক্টোবর) ডিএমপি মিডিয়া সেন্টারে সাংবাদিকদের তিনি বলেন, ছোট বড় অপরাধী কাউকে ছাড় দেওয়া হবে না। এ ছাড়া যেসব অপরাধী জেল থেকে ছাড়া পাচ্ছে, তাদের কঠোর মনিটরিংয়ে রাখার নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। নির্বাচনে অবৈধ অস্ত্রের ঝনঝনানি বন্ধ করা খুব গুরুত্বপূর্ণ।উল্লেখ্য যে, সাংবাদিকদের ভিসানীতির ঘোষণা নিয়ে করা এক প্রশ্নের জবাবে  ডিএমপি কমিশনার বলেন, আমি নির্বিঘ্নে বলতে চাই একটি দেশের ভিসানীতি কি হবে এটি তাদের বিষয়। এটা নিয়ে বাংলাদেশ পুলিশের চিন্তার কিছু আছে বলে আমার মনে হয় না।ডিএমপি কমিশনার আরও বলেন, আমি যোগদান করে আমার পুলিশের ভেতরে এরকম কোনো চিন্তার বিষয় দেখি নাই। এটি একটি পর্যায়ের ব্যবস্থা। সংগঠন পর্যায়ের কোনো ব্যবস্থা নয়। সংগঠন হিসেবে ঢাকা মেট্রোপলিটন পুলিশ সবসময়ই ঢাকাবাসীর জন্য এবং ঢাকার জনগণের জন্য, নিরাপদ ঢাকার জন্য কাজ করে যাচ্ছে। পুলিশ এগুলো নিয়ে কোনো চিন্তা করেনা। পুলিশ নির্বাচনী দায়িত্ব পালনে সম্পুন্ন নিরপেক্ষতা বজায় রেখে তার দায়িত্ব পালন করবেন বলেও জানান বর্তমান ঢাকা মেট্রোপলিটন পুলিশের (ডিএমপি) নবনিযুক্ত কমিশনার হাবিবুর রহমান।কাজী হাবিবুল আউয়ালের নেতৃত্বাধীন এই নির্বাচন কমিশন নভেম্বর মাসের প্রথম সপ্তাহে দ্বাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনের তফসিল ঘোষণা করবেন, আর ভোটগ্রহণ হবে জানুয়ারির শুরুতে। একটি অবাধ, সুষ্ঠু ও নিরপেক্ষ নির্বাচন আয়োজনে বর্তমান নির্বাচন কমিশন বদ্ধপরিকর। এরই ধারাবাহিকতায় নির্বাচনে অবৈধ অস্ত্রের ঝনঝনানি বন্ধ করা গুরুত্বপূর্ণ বলে উল্লেখ করেন ঢাকা মেট্রোপলিটন পুলিশের (ডিএমপি) নবনিযুক্ত কমিশনার হাবিবুর রহমান।এ সময় ডিএমপির অতিরিক্ত পুলিশ কমিশনার (অ্যাডমিন) এ কে এম হাফিজ আক্তার, অতিরিক্ত পুলিশ কমিশনার (ক্রাইম অ্যান্ড অপারেশনস্) ড. খ. মহিদ উদ্দিন, অতিরিক্ত পুলিশ কমিশনার (লজিস্টিকস্, ফিন্যান্স এন্ড প্রকিউরমেন্ট) মহা. আশরাফুজ্জামানসহ আরও অনেক ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তা উপস্থিত ছিলেন।...


Sep 24, 2023

জাতীয়

  বাংলাদেশ রাশিয়া বাণিজ্যিক লেনদেন'রুশ মুদ্রায়'

বাংলাদেশ রাশিয়া বাণিজ্যিক লেনদেন'রুশ মুদ্রায়'

রাশিয়ান পররাষ্ট্রমন্ত্রী সের্গেই লাভরভ ঢাকা সফরের আগে বাংলাদেশের পররাষ্ট্রমন্ত্রী এ কে আব্দুল মোমেন রাশিয়ার সাথে একক মুদ্রায় বাণিজ্যিক লেনদেন নিয়ে আলোচনার অংশ হিসাবে সম্প্রতি  রুশ মুদ্রায় লেনদেনের বিষয়টি চূড়ান্ত অনুমতি দিয়েছে  রাশিয়া সরকার । শনিবার বাংলাদেশে অবস্থিত রাশিয়ান দূতাবাসের অফিসিয়াল ফেসবুক পেজে বাংলাদেশসহ ৩০টি দেশে রাশিয়ান মুদ্রা ‘রুবল’ ব্যবহার করে বাণিজ্যিক লেনদেন করার অনুমতি দিয়েছে বলে রাশিয়ার সরকার এ তথ্য প্রকাশ করেন।তালিকায় বাংলাদেশ ছাড়াও রয়েছে- আজারবাইজান, বেলারুশ, কিরগিজস্তান, তাজিকিস্তান, তুর্কেমিনিস্তান, উজবেকিস্তান, আলজেরিয়া, বাহরাইন, ব্রাজিল, ভেনেজুয়েলা, ভিয়েতনাম, মিশর, ভারত, ইন্দোনেশিয়া, ইরান, কাতার, চীন, কিউবা, মালয়েশিয়া, মরক্কো, মঙ্গোলিয়া, ওমান, পাকিস্তান, সৌদি আরব, সার্বিয়া, থাইল্যান্ড, তুরস্ক, দক্ষিণ আফ্রিকা ও সংযুক্ত আরব আমিরাত।বাংলাদেশের কর্মকর্তাদের সঙ্গে চীন, ভারত ও রাশিয়াসহ কয়েকটি দেশের সঙ্গে একাধিক বৈঠকও হয় ওইসব দেশের কর্মকর্তাদের সঙ্গে । ভারত-চীনসহ কয়েকটি দেশ ‘রুবলে’ রাশিয়ার সঙ্গে বাণিজ্য শুরু করলেও শুল্কহারসহ বিভিন্ন কারণে বাংলাদেশের সঙ্গে এ বিষয়ে রাশিয়ার আলোচনা খুব একটা এগোয়নি সংশ্লিষ্ট দেশের মুদ্রায় লেনদেনের বিষয়।সম্প্রতি ভারতের সঙ্গেও তাদের দেশীয় মুদ্রা রুপিতে লেনদেনের বিষয়ে চুক্তি সই করেছে বাংলাদেশ ও ভারত। চীনকেও একটি প্রকল্পের অর্থ দিতে গিয়ে তাদের মুদ্রায় অর্থপরিশোধ করেছে বাংলাদেশ।রাশিয়ান দূতাবাসের অফিসিয়াল ফেসবুক পেজে বাংলাদেশসহ ৩০টি দেশে রাশিয়ান মুদ্রা ‘রুবল’ ব্যবহার করে বাণিজ্যিক লেনদেন করার অনুমতি দিয়েছে মর্মে রাশিয়ার সরকার এ তথ্য প্রকাশ করায়,রাশিয়ার সঙ্গেও রুশ মুদ্রায় লেনদেনের বিষয়টি চূড়ান্ত হলো। এতে আমদানি খাতে কিছুটা হরেও স্বস্তি ফিরবে বলে মনে করছেন ব্যবসায়ীরা। তারা রাশিয়ার এ সিদ্ধান্তকে সাধুবাদ জানিয়েছেন।...


Sep 20, 2023

জাতীয়

অতিরিক্ত আইজিপি হাবিবুর রহমান ডিএমপি পরবর্তী কমিশনার

অতিরিক্ত আইজিপি হাবিবুর রহমান ডিএমপি পরবর্তী কমিশনার

ঢাকা মহানগর পুলিশের (ডিএমপি) পরবর্তী কমিশনার হিসেবে নিয়োগ পেয়েছেন ট্যুরিস্ট পুলিশের চৌকস কর্মকর্তা বর্তমানে ট্যুরিস্ট পুলিশের প্রধান অতিরিক্ত আইজিপি হাবিবুর রহমান।বুধবার (২০ সেপ্টেম্বর) স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয় ও পুলিশ সূত্র গণমাধ্যমকে এই প্রজ্ঞাপনে তথ্য নিশ্চিত করেছে। খন্দকার গোলাম ফারুকের মেয়াদ শেষ হয়ে আসায় কে হচ্ছেন পরবর্তী কমিশনার, তা নিয়ে পুলিশ বিভাগসহ সর্বত্র আগ্রহের বিষয় ছিল। কারণ পরবর্তী পুলিশ কমিশনারকেই দ্বাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনের আগে ও পরে রাজধানীর আইন শৃঙ্খলা পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে নেতৃত্ব দিতে হবে। তাছাড়া মেট্রোপলিটনগুলোর মধ্যে ডিএমপি কমিশনারের পদটিও অতি গুরুত্বপূর্ণ।বর্তমান পুলিশ কমিশনারের মেয়াদ বাড়তে পারে এমন আলোচনা থাকলেও নতুন পুলিশ কমিশনারের তালিকায় হাবিব ছাড়াও আরেক চৌকস কর্মকর্তা ইন্ডাস্ট্রিয়াল পুলিশের অতিরিক্ত আইজিপি মাহবুবর রহমানের নামও জোর আলোচনায় ছিল। এছাড়া আরও অন্তত দুইজন কর্মকর্তা এই পদটি পেতে দৌড়ঝাপ দিয়েছিলেন বলে জানা গেছে। তবে হাবিবুর রহমানকে ঘিরেই ফাইল চূড়ান্ত করা হয়েছে।হাবিবুর রহমান ১৯৬৭ সালে গোপালগঞ্জে জন্মগ্রহণ করেন। পুলিশের নানা সংস্কার কাজের পাশাপাশি নেতৃত্বসুলভ আচরণের জন্য তিনি বাহিনীতে প্রসংসনীয়। ক্রীড়া সংগঠক ছাড়াও মানবিক পুলিশ কর্মকর্তা হিসেবে তার সুখ্যাতি রয়েছে। বিসিএস ১৭তম ব্যাচের পুলিশ কর্মকর্তা হাবিবুর রহমান ডিএমপি সদরদপ্তরের ডিসি, ঢাকা জেলার এসপি, ঢাকা রেঞ্জের ডিআইজি এবং পুলিশ সদরদপ্তরে গুরুত্বপূর্ণ দায়িত্ব পালন করেন।উল্লেখ্য যে, ডিএমপির বর্তমান কমিশনার খন্দকার গোলাম ফারুকের মেয়াদ শেষ হচ্ছে আগামী ২ অক্টোবর। ...


Sep 17, 2023

জাতীয়

বিশ্ব পর্যটন দিবস ২০২৩ উপলক্ষে চার দিন ব্যাপী বাংলাদেশ পর্যটন ফেস্টিভ্যাল

বিশ্ব পর্যটন দিবস ২০২৩ উপলক্ষে চার দিন ব্যাপী বাংলাদেশ পর্যটন ফেস্টিভ্যাল

বঙ্গবন্ধু আন্তর্জাতিক সম্মেলন কেন্দ্রে বাংলাদেশ ট্যুরিজম বোর্ড, বেসামরিক বিমান পরিবহন ও পর্যটন মন্ত্রণালয়ের উদ্যোগে চার দিন ব্যাপী উদযাপিত হতে যাচ্ছে বিশ্ব পর্যটন দিবস ২০২৩ বাংলাদেশ পর্যটন ফেস্টিভ্যাল।  আগামী ২৭ থেকে ৩০ সেপ্টেম্বর পর্যটনে ‘পরিবেশবান্ধব বিনিয়োগ’ স্লোগানে বাংলাদেশ ফ্যাস্টিভ্যালের আয়োজন করতে চলেছে বাংলাদেশ ট্যুরিজম বোর্ড। এ উপলক্ষে এরই মধ্যে প্রস্তুতি নেওয়া শুরু হয়েছে।বিশ্ব পর্যটন দিবস উদযাপনের এ উদ্যোগ প্রতিবছর একই সময়ে করার জন্য পরিকল্পনা করছে বাংলাদেশ ট্যুরিজম বোর্ড। বাংলাদেশ ফ্যাস্টিভ্যাল বাংলাদেশের সকল ঐতিহ্যকে যেমন উপস্থাপন করবে তেমন অপরূপ বাংলার আনাচে কানাচে ঘুরে বেড়ানোর সকল সুযোগ সুবিধা তুলে ধরবে। সমৃদ্ধ বাংলাদেশের এগিয়ে যাওয়ার গল্পে বাংলার অপরূপ সৌন্দর্য নিয়ে সাজানো হবে এ উৎসব।উৎসবে এয়ারলাইন্স, হোটেল, রিসোর্ট, অ্যামিউজমেন্ট পার্ক, ট্যুরিস্ট-ভেসেল, ট্রাভেল এজেন্ট ও ট্যুর অপারেটর প্রতিষ্ঠান অংশগ্রহণ করবে। এছাড়াও অংশগ্রহণ করবে বিভিন্ন জেলার পর্যটন পণ্য ও সেবা প্রদানকারী প্রতিষ্ঠান। দেশব্যাপী পর্যটনের বিভিন্ন অফার ও আয়োজন থাকবে এ উৎসবে। দর্শনার্থীদের আকর্ষণীয় ট্যুর পরিকল্পনা করতেও এ উৎসব সহায়তা করবে।চারদিনব্যাপী এ উৎসবে আর থাকছে সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান, ফুড ফ্যাস্টিভ্যাল, কারুশিল্প, পর্যটন সম্পদের প্রদর্শনীর সহ বিভিন্ন দেশের খাবারসহ বাংলাদেশের ঐতিহ্যবাহী খাবারের আয়োজন। দর্শনার্থীরা বাংলাদেশের প্রাকৃতিক সৌন্দয, প্রত্নতাত্ত্বিক নিদর্শন, ইতিহাস, ঐতিহ্য, পুরাকীর্তি, পর্যটন সম্পদ সম্পর্কেও জানতে পারবেন। প্রতিটি জেলার আকর্ষনীয় পর্যটনের ছবি দেখার সুযোগ পাবেন। বিশ্ব পর্যটন দিবস উপলক্ষ্যে চা পর্যটন, পর্যটক ও পর্যটন কেন্দ্রের নিরাপত্তা, আবাসন, পরিবহন, ডাটা ইনোভেশন, এসডিজি , পর্যটনে বিনিয়োগ সম্ভাবনা, পর্যটন খাতে মানব সম্পদ উন্নয়ন এবং পর্যটন শিল্পে নারীর অংশগ্রহন ইত্যাদি বিষয়ে সেমিনার অনুষ্ঠিত হবে। চারদিনব্যাপী সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানে থাকবে গম্ভীরা, গাজী কালুর পট, পথ নাট্য, বাউল গান, পুথি পাঠ, কাওয়ালী ইত্যাদি।চারদিনব্যাপী সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান, ফুড ফ্যাস্টিভ্যাল, কারুশিল্প, পর্যটন সম্পদের প্রদর্শনীর আয়োজনে পাশাপাশি উৎসব থেকে দেখা যাবে তাঁত, জামদানি ও মসলিন কাপড় তৈরির কাজ। উৎসবটি উপভোগ করতে সকলকে স্বাগত জানিয়েছে বাংলাদেশ ট্যুরিজম বোর্ড।...


Sep 16, 2023

জাতীয়

বাংলাদেশে শুরু হচ্ছে  দূষণমুক্ত বৈদ্যুতিক গাড়ি উৎপাদন

বাংলাদেশে শুরু হচ্ছে দূষণমুক্ত বৈদ্যুতিক গাড়ি উৎপাদন

দূষণমুক্ত পরিবেশের কথা মাথায় রেখে বাংলাদেশে বিভিন্ন দেশের গাড়ি নির্মাতা প্রতিষ্ঠানগুলো আধুনিক প্রযুক্তির বৈদ্যুতিক গাড়ি উৎপাদনে বড় বিনিয়োগ শুরু করেছে।স্বপ্নকে বাস্তবে রূপ দিতে এবার চট্টগ্রামের মিরসরাই-সীতাকুন্ড ও ফেনীর সোনাগাজী এলাকাকে ঘিরে গড়ে ওঠা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব শিল্প নগরে একশ একর জমিতে গড়ে উঠছে বৈদ্যুতিক গাড়ি নির্মাণ সহ ব্যাটারি ও চার্জিং ইউনিট ও একের পর এক বিশ্বমানের কারখানা।বাংলাদেশ বিশেষ অর্থনৈতিক অঞ্চল কর্তৃপক্ষের (বেজা) জানান, বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব শিল্প নগরে এরই মধ্যে  ইতোমধ্যে বিশ্বের বেশ কিছু গাড়ি নির্মাণকারী প্রতিষ্ঠান কারখানার নির্মাণকাজ শুরু করেছে। তার মধ্যে অন্যতম বাংলাদেশ অটো ইন্ড্রাস্ট্রিজ লিমিটেড নামের প্রতিষ্ঠানটি। ২০১৮ সালে শুরু হওয়া কারখানাটির কাজ এখন প্রায় শেষের পথে। এতে বিনিয়োগ হচ্ছে প্রায় সাড়ে তিন হাজার কোটি টাকা। এই কারখানায় বাংলাদেশ অটো ইন্ডাস্ট্রিজের অংশীদার চীনা প্রতিষ্ঠান ডংফেং মোটর গ্রুপ লিমিটেড। এটি চীনের শীর্ষস্থানীয় গাড়ি নির্মাতা প্রতিষ্ঠানের একটি। চীনের শীর্ষস্থানীয় গাড়ি নির্মাতা প্রতিষ্ঠানের সঙ্গে যৌথ উদ্যোগে কারখানা রয়েছে জাপানের হোন্ডা, নিশান, ফ্রান্সের সিটরয়েনসহ জাপানি ও ইউরোপীয় কয়েকটি  অটো ইন্ড্রাস্ট্রির।এসময় প্রতিষ্ঠানটির কর্ণধার বাংলাদেশ অটো ইন্ড্রাস্ট্রিজ লিমিটেডের  চেয়ারম্যান এ মান্নান খান জানান, বঙ্গবন্ধু শিল্প নগরের কারখানায় মোট বিনিয়োগ হবে প্রায় আড়াই হাজার কোটি টাকা। এসব অর্থ দুই ধাপে বিনিয়োগ করা হবে।১০০ একর জায়গায় প্রতিষ্ঠিত সেই কারখানা থেকে তৈরি বৈদ্যুতিক গাড়ি বাজারে আসতে পারে আগামী ৫-৬ মাসের মধ্যেই— এমন সম্ভাবনার কথা জোরালো স্বরে জানাচ্ছেন উদ্যোক্তারা। শুধু তাই নয়, ৭ থেকে ১৪ লাখ টাকার মধ্যে আধুনিক প্রযুক্তিসম্পন্ন এই গাড়ি গ্রাহকের হাতে তুলে দেওয়ার আশাবাদও জানাচ্ছেন তারা। জাপানি ও কোরিয়ান গাড়ির নকশায় তৈরি হবে গাড়িগুলো।পরিবেশবান্ধব ও জ্বালানি সাশ্রয়ী হওয়ায় উন্নত বিশ্বের দেশগলোতে এরমধ্যেই ব্যাপক জনপ্রিয়তা পেয়েছে বৈদ্যুতিক গাড়ি। তবে বাংলাদেশের রাস্তায় তেমন চোখে পড়ে না এসব গাড়ি। এর অনেকগুলো কারণ থাকলেও অন্যতম কারণ প্রয়োজনীয় চার্জিং স্টেশনের অভাব।প্রসঙ্গত, এই সমস্যা সমাধানে বাংলাদেশে বৈদ্যুতিক গাড়ির জন্য নীতিমালা প্রণয়নের পাশাপাশি আমদানি করা গাড়ির জন্য চার্জিং নীতিমালা নিয়েও কাজ শুরু করেছে কর্তৃপক্ষ। কর্মকর্তারা বলছেন, নীতিমালা চূড়ান্ত হলেই বৈদ্যুতিক গাড়ি আমদানি শুরু হবে। গত ১৫ সেপ্টেম্বর বিদ্যুৎচালিত যানবাহন সংক্রান্ত নীতিমালা...


Sep 13, 2023

জাতীয়

তিনি নির্বাচন করতে পারবে না, যার কারনে নির্বাচন বাতিল হবে – সিইসি

তিনি নির্বাচন করতে পারবে না, যার কারনে নির্বাচন বাতিল হবে – সিইসি

দেশে মাস্তান ও পেশীশক্তির কাছে প্রিসাইডিং অফিসার অসহায় হয়ে পড়ে । নির্বাচন বাতিল করা সম্ভব তবে যার জন্য বাতিল হবে তিনি আর নির্বাচন করতে পারবেন না বলে জানান প্রধান নির্বাচন কমিশনার (সিইসি) কাজী হাবিবুল আউয়াল।বুধবার (১৩ সেপ্টেম্বর) নির্বাচন ভবনের সম্মেলন কক্ষে ‘দ্বাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচন প্রত্যাশা ও বাস্তবতা’ শীর্ষক বৈঠকে সভাপতি হিসেবে স্বাগত বক্তব্যে প্রধান নির্বাচন কমিশনার (সিইসি) কাজী হাবিবুল আউয়াল বলেন, আমরা কিছুটা নতুন আঙ্গিকে বিষয়টা উপস্থাপনের চেষ্টা করেছি।তিনি বলেন, রাজনীতি রাজনীতিক প্রশ্নে বেশ তীক্ষ্ণভাবে বিভক্ত। আমরা সামনের দিকে তাকাতে চাই। যারা রাজনীতিতে সম্পৃক্ত নন, বুদ্ধিজীবী সম্প্রদায়, তাদের কাছ থেকে জনগণের প্রত্যাশাটাই আপনাদের মাধ্যমে যতদূর সম্ভব উঠে আসে। প্রত্যাশার বিপরীতে অনুকূল বাস্তবতা, প্রতিকূল বাস্তবতা রয়েছে। পুরো একাডেমিক পয়েন্ট থেকে আলোচনা করলে সুবিধা হবে, আমরা সমৃদ্ধ হবো।তিনি আরও বলেন, রাজনৈতিক বিতর্ক উপস্থাপন হলে আলোচনাগুলো খুবই ধারালো, আক্রমণাত্মক হয়ে থাকে। আমরা সামনের দিকে তাকাতে চাচ্ছি। আপনাদের মাধ্যমে জনগণের প্রত্যাশা জানতে পারলে কিছুটা ঋদ্ধ হবো।উল্লেখ্য যে এর আগে রাজনৈতিক প্রতিনিধিদের সঙ্গে ইসির এক  বৈঠকে তিনি বলেন, ‘আমাদের অনেক ক্ষমতা আছে। ক্ষমতা কিন্তু কম না। রাজনীতিবিদদের দায়িত্ব নিতে হবে।  এখানে খেলোয়াড় হচ্ছেন রাজনৈতিক দলের নেতাকর্মীরা। আপনারা মাঠে যাবেন, খেলবেন।  ইসি হচ্ছে রেফারি।’ভোটের মাঠের সহিংসতা নির্বাচন কমিশন (ইসি) বন্ধ করতে পারবে না ।ভোটের মাঠে সহিংসতা রোধে রাজনৈতিক দলগুলোকে পদক্ষেপ নিতে হবে বলে ইঙ্গিত দেন সিইসি। সংসদ নির্বাচনকে সামনে রেখে এ সভায় সাবেক নির্বাচন কমিশনার, আমলা ও সিনিয়র সাংবাদিক, নির্বাচন কমিশনাররা এবং ইসির ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন।...


Sep 10, 2023

জাতীয়

বাংলাদেশ সফরের ইচ্ছার কথা বললেন সৌদি যুবরাজ

বাংলাদেশ সফরের ইচ্ছার কথা বললেন সৌদি যুবরাজ

প্রধানমন্ত্রীর শেখ হাসিনার বাংলাদেশ সফরের আমন্ত্রণ গ্রহণ করে বাংলাদেশ সফরের ইচ্ছার কথা জানিয়েছেন সৌদি আরবের যুবরাজ মোহাম্মদ বিন সালমান ।সৌদি সিংহাসনের উত্তরসূরি মোহাম্মদ বিন সালমান রোববার (১০ সেপ্টেম্বর) সকালে ভারতের রাজধানী নয়াদিল্লিতে জি২০ সম্মেলনের ফাঁকে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সাথে বৈঠক করেন।পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে জানিয়েছেন, সাম্প্রতিক বছরগুলোতে বাংলাদেশের অসাধারণ সামাজিক ও রাজনৈতিক উন্নয়নে শেখ হাসিনার অনুপ্রেরণামূলক নেতৃত্বের প্রশংসা করেন যুবরাজ সালমান।পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় সূত্র আরও জানান, মোহাম্মদ বিন সালমান সম্ভাব্য ক্ষেত্রগুলোতে সহযোগিতা বাড়াতে বাংলাদেশ ও সৌদি আরব একসঙ্গে কাজ করবে। এক্ষেত্রে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে পরিপূর্ণ সমর্থনেরও নিশ্চয়তা দেন তিনি। পতেঙ্গা টার্মিনাল, পায়রা বন্দর ও এসিইউডব্লিউএ নবায়নযোগ্য জ্বালানি প্রকল্পসহ বিভিন্ন ক্ষেত্রে সৌদি বিনিয়োগের জন্য সন্তোষ প্রকাশ করেন যুবরাজ।কঠোর পরিশ্রম ও ধৈর্যের সঙ্গে সৌদি আরবের অর্থনীতিতে ২৮ লাখ প্রবাসী বাংলাদেশির গুরুত্বপূর্ণ অবদানের জন্য কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করেন যুবরাজ মোহাম্মদ। এছাড়া ২০৩০ সালের বিশ্বকাপের আয়োজক দেশ হিসেবে সৌদিকে সমর্থন দেওয়ায় প্রধানমন্ত্রীকে ধন্যবাদ দিয়েছেন তিনি।উভয়ের মধ্যে ফলপ্রসূ বৈঠক শেষে সৌদি আরবে বিভিন্ন সামাজিক সংস্কারমূলক কাজ হাতে নেওয়ায় যুবরাজের প্রশংসা করেন শেখ হাসিনা।...


Sep 07, 2023

জাতীয়

দক্ষিণাঞ্চলের রেল যোগাযোগব্যবস্থার নতুন ধারা উন্মোচিত

দক্ষিণাঞ্চলের রেল যোগাযোগব্যবস্থার নতুন ধারা উন্মোচিত

ঢাকার সঙ্গে দক্ষিণাঞ্চলের রেল যোগাযোগব্যবস্থার নতুন ধারা উন্মোচিত গৌরবে উচ্ছ্বসিত পদ্মা পাড়ের মানুষ। পদ্মা বহুমুখী সেতুতে সড়ক পথে যানবাহন চালুর পরে পরীক্ষামূলক চালু হয়েছে ট্রেন চলাচল। পদ্মা সেতু পাড়ি দিয়ে ঢাকা থেকে প্রথমবারের মতো পরীক্ষামূলক ট্রেন গেলো ফরিদপুরের ভাঙ্গায় ।বৃহস্পতিবার (৭ সেপ্টেম্বর) সকাল ১০টা ৭ মিনিটে কমলাপুর রেলওয়ে স্টেশন থেকে পরীক্ষামূলক ট্রেনযাত্রার শুরুর আগে রেলমন্ত্রী নূরুল ইসলাম সুজন বলেন, এই রেললাইন উদ্বোধনের ফলে দক্ষিণ অঞ্চলে রেল যোগাযোগ ব্যবস্থায় এক যুগান্তকারী পরিবর্তন হবে। এ অঞ্চলের মানুষের জীবনযাত্রা সহজ হবে, এর সুফল পাবে সারাদেশের মানুষ।পরীক্ষামূলক ট্রেনটি ১০ টা ৭ মিনিটে ঢাকার কমলাপুর স্টেশন থেকে ছেড়ে বেলা ১১টা ২০ মিনিটের দিকে মুন্সীগঞ্জের মাওয়া রেল স্টেশন অতিক্রম করে। এ সময় অপেক্ষমাণ উচ্ছ্বসিত মানুষ হাত নেড়ে ট্রেনটিকে স্বাগত জানান। দুপুর ১২টি ১৭ মিনিটে ২ ঘণ্টা ১০ মিনিটে ৮২ কিলোমিটার পথ পাড়ি দেয় ট্রেনটি ফরিদপুরের ভাঙ্গা স্টেশনে পৌঁছায়। ট্রেনটি ফরিদপুরের ভাঙ্গা রেলওয়ে স্টেশনে পৌঁছালে উপজেলার বিভিন্ন প্রান্ত থেকে জড়ো হওয়া মানুষ ‘জয় বাংলা’ স্লোগানে স্বাগত জানান।উল্লেখ্য যে, আগামী ১০ অক্টোবর প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা উদ্বোধন করবেন দেশের সবচেয়ে বড় মেগা প্রকল্পের ট্রেন চলাচল। উদ্বোধনের দিন সুধীসমাবেশও হওয়ার কথা রয়েছে।রেলওয়ে সূত্রে জানা গেছে, ২০১৬ সালে ৪ মে পদ্মা সেতু হয়ে ঢাকা থেকে যশোর পর্যন্ত ১৭২ কিলোমিটার রেলপথ নির্মাণ প্রকল্পের অনুমোদন দেয় সরকার। এছাড়া ৪৩ কিলোমিটার লুপ লাইন (স্টেশনের আগে-পরে বাড়তি লাইন) নির্মাণসহ নতুন ট্রেন চালুর জন্য ১০০টি আধুনিক যাত্রীবাহী বগি কেনার উদ্যোগ নেওয়া হয়। এরই মধ্যে প্রকল্পের ৮২ শতাংশ কাজ শেষ হয়েছে।এই পথে ১২০ থেকে ১৩০ কিলোমিটার গতিতে ট্রেন চলাচলের লক্ষ্যে কোনো রেলক্রসিং রাখা হয়নি। ঢাকা থেকে যশোর পর্যন্ত আগের ৬টিসহ ২০টি আধুনিক স্টেশন করা হচ্ছে। প্রাথমিকভাবে ব্যয় ধরা হয় ৩৪ হাজার ৯৮৯ কোটি টাকা। পরে বেড়ে প্রকল্পটির ব্যয় দাঁড়িয়েছে ৩৯ হাজার ২৪৭ কোটি টাকায়।চীনের অর্থায়নে জিটুজি (সরকারের সঙ্গে সরকারের) ভিত্তিতে প্রকল্পের কাজ করছে চীনা ঠিকাদারি প্রতিষ্ঠান চায়না রেলওয়ে ইঞ্জিনিয়ারিং গ্রুপ (সিআরইসি)। প্রকল্পটি বাস্তবায়নে চীনের এক্সিম ব্যাংক ঋণ দিচ্ছে ২৬৬ কোটি ৭৯ লাখ ডলার। বাকি অর্থ ব্যয় করছে...


Sep 03, 2023

জাতীয়

অনৈতিক, বেআইনি ও অসাংবিধানিক হস্তক্ষেপ স্থগিত চেয়ে ৫০ সম্পাদকের খোলা চিঠি

অনৈতিক, বেআইনি ও অসাংবিধানিক হস্তক্ষেপ স্থগিত চেয়ে ৫০ সম্পাদকের খোলা চিঠি

শ্রম আইন লঙ্ঘনের মামলায় নোবেলজয়ী ড. মুহাম্মদ ইউনূসের বিরুদ্ধে চলমান মামলায় অনৈতিক, বেআইনি ও অসাংবিধানিকভাবে বাংলাদেশের স্বাধীন বিচার ব্যবস্থার ওপর হস্তক্ষেপ স্থগিত চেয়ে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে দেওয়া বিশ্বের বিশিষ্ট ব্যক্তিদের খোলা চিঠির প্রতিবাদ জানিয়েছেন দেশের বিভিন্ন গণমাধ্যমের ৫০ সম্পাদক।  শনিবার গণমাধ্যমে পাঠানো এক বিবৃতিতে দেশের বিভিন্ন গণমাধ্যমের ৫০ সম্পাদক এ উদ্বেগ জানিয়ে বলেন, গত ২৮ আগস্ট কয়েকজন নোবেল বিজয়ী, রাজনীতিবিদ, ব্যবসায়ী এবং সুশীল সমাজের সম্মানিত সদস্য বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে দেওয়া একটি খোলা চিঠিতে বাংলাদেশের শ্রম আইনে ড. মুহাম্মদ ইউনূসের বিরুদ্ধে চলমান মামলা স্থগিত করার আহ্বান জানিয়েছেন। প্রধানমন্ত্রীকে লেখা এ ধরনের খোলা চিঠি সার্বভৌম দেশের স্বাধীন বিচার ব্যবস্থার ওপর অযাচিত হস্তক্ষেপ।সম্পাদক মণ্ডলীবৃন্দ আরও বলেন, বাংলাদেশের সংবিধানের ৯৪(৪) অনুচ্ছেদ অনুযায়ী বাংলাদেশের বিচার বিভাগ সম্পূর্ণরূপে স্বাধীন। এ ধরনের বিবৃতি বা খোলা চিঠি আন্তর্জাতিক শ্রম সংস্থা (আইএলও) এবং বাংলাদেশের আইনে শ্রমিকদের প্রদত্ত অধিকার সংক্রান্ত বিধানাবলীর সম্পূর্ণ পরিপন্থি।বিবৃতিতে বলা হয়, আন্তর্জাতিকভাবে সম্মানিত এবং নোবেল বিজয়ীদের এ ধরনের বিবৃতি এবং চিঠি অনাকাঙ্খিত এবং অনৈতিক। একজন অপরাধ করলে তার বিরুদ্ধে মামলা করা যাবে না এবং বিচার করা যাবে না এমন দাবি ন্যায়বিচার এবং আইনের শাসন প্রতিষ্ঠার পরিপন্থি। আমরা মনে করি তারা মামলা সম্পর্কে পুরোপুরি না জেনে এমন দাবি করেছেন। তাই আমরা তাদের অথবা তাদের প্রতিনিধি এসে মামলায় ড. ইউনূসকে আদৌ হয়রানি করা হচ্ছে কি-না, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ইতিমধ্যে তাদের পর্যবেক্ষণ করতে আহ্বান জানিয়েছেন, যা আমরা তা সমর্থন করি।মহান মুক্তিযুদ্ধের মাধ্যমে অর্জিত স্বাধীন দেশের নাগরিক হিসেবে বাংলাদেশের জনগণ গণতন্ত্র এবং নির্বাচন সংক্রান্ত বিষয়ে যে ধরনের মন্তব্য করা হয়েছে, তা স্বাধীন-সার্বভৌম একটি রাষ্ট্রের বিরুদ্ধে অবমাননাকর, অযাচিত ও বেআইনি সরাসরি হস্তক্ষেপ। সংশ্লিষ্ট সবাইকে বাংলাদেশের স্বাধীনতা, সার্বভৌমত্ব, স্বাধীন বিচার ব্যবস্থা এবং শ্রমিকদের অধিকারের বিষয়ে সম্মান প্রদর্শনের জন্য আহ্বান জানান দেশের বিভিন্ন গণমাধ্যমের ৫০ সম্পাদক।বিবৃতি দেওয়া ৫০ সম্পাদক হলেন- ইকবাল সোবাহান চৌধুরী, সম্পাদক, ডেইলি অবজারভার; গোলাম রহমান, সম্পাদক, আজকের পত্রিকা; তাসমিমা হোসেন, সম্পাদক, ইত্তেফাক; আবুল কালাম আজাদ, প্রধান সম্পাদক, বাংলাদেশ সংবাদ সংস্থা; ইমদাদুল হক মিলন, প্রধান সম্পাদক, কালের কণ্ঠ; আলমগীর হোসেন,...


Sep 02, 2023

জাতীয়

বহুল প্রতীক্ষিত ঢাকা এলিভেটেড এক্সপ্রেসওয়ে উদ্বোধন

বহুল প্রতীক্ষিত ঢাকা এলিভেটেড এক্সপ্রেসওয়ে উদ্বোধন

বহুল প্রতীক্ষিত ঢাকা এলিভেটেড এক্সপ্রেসওয়ে উদ্বোধন ও সুধী সমাবেশকে কেন্দ্র করে আগারগাঁও এলাকা মিছিলের নগরীতে পরিণত হয়।ঢাকা এলিভেটেড এক্সপ্রেসওয়ে উদ্বোধন উপলক্ষে আয়োজিত সুধী সমাবেশে রাজধানী ও বাইরের জেলা থেকে অংশ নিতে আসা নেতাকর্মীদের মিছিলে দুপুর পৌনে একটায় সারা দেশ থেকে আসা নেতাকর্মীতে কানায় কানায় পূর্ণ হয়ে উঠে ঢাকার পুরাতন বাণিজ্য মেলা বঙ্গবন্ধু আন্তর্জাতিক সম্মেলন কেন্দ্র সংলগ্ন মাঠ। শেখ হাসিনার সরকার বার বার দরকার। মেট্রোরেলের সরকার বার বার দরকার। আমরা সবাই মুজিব সেনা, ভয় করি না বুলেট বোমা স্লোগানে রাজধানীর বিভিন্ন স্থান থেকে আওয়ামী লীগের নেতাকর্মীরা মিছিল নিয়েবাণিজ্য মেলা মাঠে জড়ো হতে শুরু করে। সমাবেশের রেশ ছড়িয়ে পড়ে আন্তর্জাতিক সম্মেলন কেন্দ্র সংলগ্ন মাঠ  ছাড়িয়ে রাস্তায়ও।বিকাল পৌনে ৩টায় প্রধানমন্ত্রীর গাড়ি হযরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরের কাছে কাওলা এলাকায় উত্তর প্রান্ত থেকে এক্সপ্রেসওয়েতে প্রবেশ করে সেখানে টোল প্লাজায় টোল পরিশোধ করেন। বিকেল ৪টার আগারগাঁওয়ে পুরোনো বাণিজ্য মেলা মাঠে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা উদ্বোধনী ফলক উন্মোচন ও মোনাজাতে অংশ নিয়ে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা এক্সপ্রেসওয়ের ১১ দশমিক ৫ কিলোমিটার অর্থাৎ বিমানবন্দর থেকে ফার্মগেট পর্যন্ত অংশের উদ্বোধন করেন।এ সময় একাধিক নেতাকে সম্মেলনস্থলে প্রবেশ করতে দেখা গেছে। সমাবেশকে কেন্দ্র করে আগারগাঁওয়ের বিভিন্ন স্থাপনার দেওয়ালে ব্যানার, ফেস্টুনে নেতাদের সরব উপস্থিতি ছিল চোখে পরার মত।বহুল প্রতীক্ষিত ঢাকা এলিভেটেড এক্সপ্রেসওয়ের হযরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দর থেকে ফার্মগেট অংশ যান চলাচলের জন্য উদ্বোধন উপলক্ষে সমাবেশ ঘিরে রাজধানীতে বড় শোডাউনের মধ্য দিয়ে নিজেদের শক্তির জানান দিতে সমাবেশে উপস্থিতি নিশ্চিতে কেন্দ্র থেকে তৃণমূল পর্যায়ে কড়া বার্তাও দেয়া ছিল।পুরাতন বাণিজ্য মেলা মাঠে অন্তত পাঁচ লাখ লোকের জমায়েত শনিবার (২ সেপ্টেম্বর) রাজধানীর আগারগাঁওয়ের পুরাতন বাণিজ্য মেলার মাঠে আয়োজিত সুধী সমাবেশে বক্তব্য  প্রদানকালে আওয়ামী লীগ সভাপতি ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেন, ‘‘জাতির পিতা বলে গিয়েছিলেন, ‘বাংলাদেশকে দাবিয়ে রাখতে পারবা না’। কেউ দাবিয়ে রাখতে পারে নাই।’’  তিনি আরও বলেন, ‘আওয়ামী লীগ সরকার ২০০৯ সালে ক্ষমতায় আসার পর দেশের যোগাযোগ, পরিবহন ও বিদ্যুৎ অবকাঠামোর রূপান্তরের লক্ষে বেশ কিছু স্মারক উন্নয়ন প্রকল্প হাতে নেয়। বর্তমান সরকার আধুনিক পরিবহন ব্যবস্থা ঢাকা মেট্রোরেল আংশিক চালু করেছে এবং পদ্মা বহুমুখী সেতু নির্মাণসহ অন্যান্য মেগা প্রকল্পের উদ্বোধন করেছে।’আওয়ামী লীগ আয়োজিত এই...


Aug 26, 2023

জাতীয়

নিরঙ্কুশ  বিজয়ের শপথ নিতে ১ সেপ্টেম্বর স্মরণকালের সর্ববৃহৎ ছাত্রসমাবেশের ঘোষণা

নিরঙ্কুশ বিজয়ের শপথ নিতে ১ সেপ্টেম্বর স্মরণকালের সর্ববৃহৎ ছাত্রসমাবেশের ঘোষণা

১ সেপ্টেম্বর শেখ হাসিনাকে ‘নিরঙ্কুশ বিজয়’ উপহার দিতে স্মরণকালের সর্ববৃহৎ ছাত্রসমাবেশে শপথ নেবে বাংলাদেশ ছাত্রলীগ।শনিবার (২৬ আগস্ট) সকালে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের মধুর ক্যান্টিনে আয়োজিত এক সংবাদ সম্মেলনে এ ঘোষণা দেন সংগঠনটির সভাপতি সাদ্দাম হোসেন ও সাধারণ সম্পাদক শেখ ওয়ালী আসিফ ইনান, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় শাখার সভাপতি মাজহারুল কবির শয়ন, সাধারণ সম্পাদক তানভীর হাসান সৈকত ও বাংলাদেশ ছাত্রলীগের কেন্দ্রীয় কমিটির নেতারা।সংবাদ সম্মেলনে লিখিত বক্তব্য পাঠ করেন ছাত্রলীগের সভাপতি সাদ্দাম হোসেন। লিখিত বক্তব্যে তিনি বলেন, স্মরণকালের সর্ববৃহৎ ছাত্রসমাবেশ সফল করতে বাংলাদেশ ছাত্রলীগের সর্বাত্মক প্রস্তুতি চলমান। ১সেপ্টেম্বর ছাত্রসমাবেশ করবে বাংলাদেশ ছাত্রলীগ। সমাবেশে আসন্ন জাতীয় সংসদ নির্বাচনে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে নিরঙ্কুশ বিজয় উপহার দেওয়ার শপথ নেবে সংগঠনটি।কেন্দ্রীয় নেতৃবৃন্দের নেতৃত্বে ১২৭টি সমন্বয় টিম গঠন করা হয়েছে। এর মাধ্যমে সারাদেশ থেকে শিক্ষার্থী বন্ধুদের সুশৃঙ্খলভাবে ছাত্র সমাবেশে স্বাগত জানানো হবে। এ লক্ষ্যে গত ১০ আগস্ট কেন্দ্রীয় নির্বাহী সংসদের প্রস্তুতি সভা হয় এবং ১৮ আগস্ট হয় বিশেষ বর্ধিত সভা।উল্লেখ্য যে, পহেলা সেপ্টেম্বর শেখ হাসিনার ছাত্রসমাবেশ সম্পর্কে দেশের প্রতিটি জেলায়, প্রতিটি উপজেলায়, প্রতিটি ইউনিয়নে, প্রতিটি গ্রামে বাংলাদেশ ছাত্রলীগের নেতাকর্মীরা দিনরাত প্রচারণা চালাচ্ছে।‘এই ছাত্রসমাবেশ থেকে শিক্ষার্থীরা শেখ হাসিনাকে আসন্ন জাতীয় সংসদ নির্বাচনে নিরঙ্কুশ বিজয় উপহার দেওয়ার শপথ নেবে।’সংবাদ সম্মেলনে ছাত্রলীগ সভাপতি বলেন, পহেলা সেপ্টেম্বরের সমাবেশে সারাদেশ থেকে পাঁচ লক্ষাধিক শিক্ষার্থী বন্ধু ও তরুণ প্রজন্মের প্রতিনিধিরা উপস্থিত থাকবেন।সংবাদ সম্মেলনে ঢাকা মহানগর উত্তর ছাত্রলীগের সভাপতি রিয়াজ মাহমুদ, সাধারণ সম্পাদক সাগর আহমেদ শামীম, দক্ষিণের সভাপতি রাজিবুল ইসলাম বাপ্পি ও সাধারণ সম্পাদক সজল কুন্ড উপস্থিত ছিলেন।...


Aug 24, 2023

জাতীয়

আইভী রহমানের ১৯তম মৃত্যুবার্ষিকীতে বাংলাদেশ আওয়ামী যুবলীগের শ্রদ্ধা

আইভী রহমানের ১৯তম মৃত্যুবার্ষিকীতে বাংলাদেশ আওয়ামী যুবলীগের শ্রদ্ধা

শহীদ আইভী রহমানের ১৯তম মৃত্যুবার্ষিকীতে যুবলীগের চেয়ারম্যান শেখ ফজলে শামস পরশ ও সাধারণ সম্পাদক মাইনুল হোসেন খান নিখিলের নেতৃত্বে বনানী কবরস্থানে আইভি রহমানের সমাধিতে শ্রদ্ধা নিবেদন করেন বাংলাদেশ আওয়ামী যুবলীগ।বৃহস্পতিবার(২৪আগস্ট)বনানী কবরস্থানে তার সমাধিতে বাংলাদেশ আওয়ামী যুবলীগের চেয়ারম্যান শেখ ফজলে শামস পরশ ও সাধারণ সম্পাদক মাইনুল হোসেন খান নিখিলের নেতৃত্বে এ সময় শ্রদ্ধা নিবেদন শেষে আইভি রহমানের আত্মার মাগফিরাত কামনায় দোয়া মোনাজাতে অংশ নেন যুবলীগের নেতা-কর্মীরা।প্রসঙ্গত, ২০০৪ সালের ২১ আগস্ট ২৩ বঙ্গবন্ধু এভিনিউস্থ বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় কার্যালয়ের সম্মুখে বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ আয়োজিত “সন্ত্রাস, জঙ্গিবাদ ও দুর্নীতিবিরোধী” সমাবেশে বর্বরোচিত গ্রেনেড হামলা ও নির্বিচারে গুলি বর্ষনে বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের মহিলা বিষয়ক সম্পাদক বিশিষ্ট নারী নেত্রী বেগম আইভী রহমান গুরুতরভাবে আহত হন। ২৪ আগস্ট সম্মিলিত সামরিক হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা যান তিনি।...


Aug 20, 2023

জাতীয়

ঢাকা মহানগরীর যানজট নিরসনে মেট্রোরেল ও এলিভেটেড এক্সপ্রেসওয়ের উদ্বোধন

ঢাকা মহানগরীর যানজট নিরসনে মেট্রোরেল ও এলিভেটেড এক্সপ্রেসওয়ের উদ্বোধন

ঢাকা মহানগরী ও তার পার্শ্ববর্তী এলাকার যানজট নিরসনে  আগামী, ২ সেপ্টেম্বর এলিভেটেড এক্সপ্রেসওয়ের ও ২০ অক্টোবর  আগারগাঁও থেকে মতিঝিল পর্যন্ত মেট্রোরেলের উদ্বোধন করবেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।রোববার সচিবালয়ে সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী এবং আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের সাংবাদিকদের বলেন, আগামী ‘২০ অক্টোবর মেট্রোরেলের আগারগাঁও থেকে মতিঝিল রুট উদ্বোধন করবেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। এ উপলক্ষে ওইদিন সোহরাওয়ার্দী উদ্যানে সুধী সমাবেশ করা হবে। আগামী নির্বাচন পর্যন্ত আমাদের বিভিন্ন সভাসমাবেশ চলবে।’ওবায়দুল কাদের আরও বলেন, ‘২২ অক্টোবর তেজগাঁওয়ে নবনির্মিত সড়ক ভবন থেকে ১৪০টি সেতু, ১২টি ওভারপাস উদ্বোধন করা হবে। ভেহিক্যাল ইন্সপেক্টর সেন্টার উদ্বোধন করা হবে। এটিও উদ্বোধন করবেন আওয়ামী লীগ সভাপতি ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।’রবিবার সচিবালয়ে সড়ক ও মহাসড়ক বিভাগের সম্মেলন কক্ষে ওবায়দুল কাদের আরও বলেন, ২ সেপ্টেম্বর এলিভেটেড এক্সপ্রেসওয়ের কাওলা থেকে ফার্মগেট পর্যন্ত সাড়ে ১১ কিলোমিটার খুলে দেওয়া হবে। এলিভেটেড এক্সপ্রেস উদ্বোধন উপলক্ষে সেদিন পুরাতন বাণিজ্য মেলার মাঠে সুধী সমাবেশ হবে। এতে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত থাকবেন। তিনি আরও বলেন, ‘এলিভেটেড এক্সপ্রেস উদ্বোধন উপলক্ষে সেদিন পুরাতন বাণিজ্য মেলার মাঠে সুধী সমাবেশ হবে। এই সমাবেশ মহাসমাবেশ রূপ নেবে।’আগামী ২ সেপ্টেম্বর হযরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমান বন্দরের দক্ষিণে কাওলা থেকে ফার্মগেট পর্যন্ত অংশ যান চলাচলের জন্য খুলে দেওয়া এলিভেটেড এক্সপ্রেসওয়ের মূল অংশের দৈর্ঘ্য ১১ দশমিক ৫ কিলোমিটার এবং র‌্যাম্পসহ ২২ দশমিক ৫ কিলোমিটার।এই অংশে মোট ১৫টি র‌্যাম্পের মধ্যে ১৩টি র‌্যাম্প যান চলাচলের জন্য উন্মুক্ত করা হবে। এক্সপ্রেসওয়েতে গাড়ির সর্বোচ্চ গতিসীমা থাকবেঘণ্টায়৬০কিলোমিটার। এতে কাওলা থেকে ফার্মগেট পর্যন্ত যেতে সময় লাগবে ১০ মিনিট।এছাড়া ২৮ অক্টোবর বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান টানেল উদ্বোধন উপলক্ষে টানেলের অপরপ্রান্তে আনোয়ারায় সুধী সমাবেশ হবে।’ সংবাদ সম্মেরনে সড়ক ও মহাসড়ক বিভাগের সচিব এ বি এম নুরুল আমিন উল্লাহ নুরী, সেতু বিভাগের সচিব মো. মনজুর হোসেনসহ সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন।...


Aug 17, 2023

জাতীয়

দেশে প্রথমবারের মত চালু হল সর্বজনীন পেনশন স্কিম

দেশে প্রথমবারের মত চালু হল সর্বজনীন পেনশন স্কিম

চার শ্রেণির নাগরিককে টেকসই ও সুসংগঠিত সামাজিক নিরাপত্তার আওতায় সুরক্ষা দিতে দেশে প্রথমবারের মত চালু হল সর্বজনীন পেনশন স্কিম।বৃহস্পতিবার (১৭ আগস্ট) সকালে গণভবন থেকে ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে সর্বজনীন পেনশন কর্মসূচির উদ্বোধন করে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেন, ‘শেষ বয়সে কেউ যেন পরিবারে কাছে বোঝা না হয়, তাদের সুরক্ষা দিতেই সর্বজনীন পেনশন স্কিম।‘তিনি বলেন, ‘সরকারি চাকরিজীবীরা এই পেনশন পাবেন না। কারণ, তারা তো চাকরি শেষে কিছু টাকা পান, কিন্তু এর বাইরের জনগোষ্ঠী সর্বজনীন পেনশন পাবেন। সমাজের সবারই কিছুটা হলেও আর্থিক স্বচ্ছলতা থাকা উচিত। সেজন্যই সর্বজনীন স্কিম। এর মাধ্যমে সমাজে বৈষম্য দূর হবে।‘সর্বজনীন পেনশন স্কিম প্রস্তুত করতে অনেক চড়াই-উৎরাই পার হতে হয়েছে। দেশের সব মানুষের জন্য এই পেনশন স্কিম চালু করতে পারা নিঃসন্দেহে বড় উদ্যোগ। ইতিমধ্যে মানুষের জীবনযাত্রার মান বেড়েছে, দারিদ্র্যের হার কমেছে, ঠিকানাবিহীন মানুষের সংখ্যা কমছে।শেখ হাসিনা বলেন, “আওয়ামী লীগ যা অঙ্গীকার করে, তা বাস্তবায়ন করে দেখায়। সর্বজনীন পেনশন স্কিম তার প্রমাণ।” শুরুতে চার শ্রেণির ব্যক্তি পেনশন কর্মসূচির আওতায় আসছেন। তারা হচ্ছেন- প্রবাসী বাংলাদেশি, বেসরকারি চাকরিজীবী, অপ্রাতিষ্ঠানিক খাতের কর্মী ও অসচ্ছল ব্যক্তি।এর মধ্যে প্রবাস স্কিম শুধু প্রবাসী বাংলাদেশিদের জন্য। যেসব প্রবাসীর জাতীয় পরিচয়পত্র নেই, তারা পাসপোর্টের তথ্য দিয়ে পেনশন স্কিমে নিবন্ধনের আবেদন করতে পারবেন।প্রগতি স্কিম বেসরকারি প্রতিষ্ঠানের চাকরিজীবীদের জন্য। বেসরকারি প্রতিষ্ঠানে কর্মরত কোনো কর্মচারী বা ওই প্রতিষ্ঠানের মালিক এতে অংশ নিতে পারবেন।অনানুষ্ঠানিক খাতে কর্মরত বা স্বকর্মে নিয়োজিত ব্যক্তিরা যেমন- কৃষক, রিকশাচালক, শ্রমিক, কামার, কুমার, জেল, তাঁতিরা অংশ নিতে পারবেন সুরক্ষা স্কিমে।আর দারিদ্র্য সীমার নিচে বসবাসকারী স্বল্প আয়ের ব্যক্তিরা (যাদের বর্তমান আয়সীমা বছরে সর্বোচ্চ ৬০ হাজার টাকা) সমতা স্কিমে অংশ নিয়ে পেনশনের আওতায় আসতে পারবেন।এসব স্কিমের চাঁদার কিস্তি পছন্দ অনুযায়ী মাসিক, ত্রৈমাসিক বা বার্ষিক ভিত্তিতে পরিশোধ করা যাবে। চাঁদা দেওয়ার সময়ের ভিত্তিতে চারটি স্কিমের জন্যই মাসিক চাঁদার পরিমাণ এবং পেনশনের পরিমাণ আলাদা আলাদাভাবে নির্ধারণ করে দেওয়া হয়েছে।সরকারি চাকরিজীবী ছাড়া, সর্বজনীন পেনশন স্কিমের আওতাভুক্ত হলে ১৮ থেকে ৫০ বছর বয়সী একজন সুবিধাভোগী ৬০ বছর বয়স পর্যন্ত এবং ৫০ বছর বয়স্ক একজন সুবিধাভোগী নূন্যতম ১০...


Aug 13, 2023

জাতীয়

১৫ আগস্টকে কেন্দ্র করে রাজধানীতে ব্লক রেইড

১৫ আগস্টকে কেন্দ্র করে রাজধানীতে ব্লক রেইড

১৫ আগস্টকে কেন্দ্র করে রাজধানীতে ব্লক রেইড পরিচালনা করবে পুলিশ।ডিএমপি কমিশনার খন্দকার গোলাম ফারুক  এক  নির্দেশনায় এ আদেশ প্রদান করেন।শনিবার (১২ আগস্ট)  ডিএমপি কমিশনার সংশ্লিষ্টদের  নির্দেশ প্রদান করে বলেন, সব আবাসিক হোটেল, মেস এবং বস্তি এলাকায় ব্লক রেইড ও তল্লাশি কার্যক্রম পরিচালনা করতে হবে। আসন্ন ১৫ আগস্ট উপলক্ষে নৈরাজ্য, বিশৃঙ্খলা, ধ্বংসযজ্ঞ এবং জঙ্গিবাদের ঘটনা না ঘটে সেজন্য ব্লক রেইড পরিচালনা করার নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। কেবলমাত্র সন্দেহ প্রবণ এবং যাদের বিরুদ্ধে সুনির্দিষ্ট অভিযোগ আছে তাদের আইনের আওতায় নিয়ে আসা হবে।জাতীয় শোক দিবসকে কেন্দ্র করে ঢাকা মহানগরের আইন-শৃঙ্খলা ও অপরাধ নিয়ন্ত্রণে নাশকতা, নৈরাজ্য, বিশৃঙ্খলা ও ধ্বংসযজ্ঞ এবং সোশ্যাল মিডিয়ায় গুজব ও অপপ্রচার রোধে ১২-১৪ আগস্ট পর্যন্ত বিশেষ অভিযান পরিচালনা করছে ডিএমপি।কোনো ধরনের সন্ত্রাসী ও জঙ্গিগোষ্ঠী যেন ঢাকা মহানগরীতে অন্তর্ঘাতমূলক কার্যক্রম পরিচালনা করতে না পারে সে বিষয়ে সবাইকে আন্তরিকতার সঙ্গে কাজ করতে ও বিশেষ অভিযান সফল করার জন্য অনুরোধ করা হয়।এ ছাড়া ছাত্রাবাস, ক্লিনিক, পরিত্যক্ত কারখানা, সন্দেহভাজন কোচিং সেন্টার, ইংরেজি মাধ্যম স্কুল শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান এবং অন্যান্য সন্দেহভাজন প্রতিষ্ঠানগুলোতে তল্লাশি ও ব্লক রেইড কার্যক্রম পরিচালনা করতেও বলা হয়েছে ডিএমপির নির্দেশনায়। ...


Aug 07, 2023

জাতীয়

বহুল আলোচিত ডিজিটাল নিরাপত্তা আইন-২০১৮ বাতিল

বহুল আলোচিত ডিজিটাল নিরাপত্তা আইন-২০১৮ বাতিল

গণমাধ্যমের স্বাধীনতা, মুক্তচিন্তা ও মত প্রকাশের অধিকার সমুন্নত রাখা, সর্বোপরি মানুষের মৌলিক অধিকারের সুরক্ষা নিশ্চিতে বহুল আলোচিত ডিজিটাল নিরাপত্তা আইন-২০১৮ বাতিল করে ‘সাইবার নিরাপত্তা আইন-২০২৩’ নামে প্রতিস্থাপিত করার সিদ্ধান্ত নিয়েছে সরকার।সোমবার (৭ আগস্ট) সকালে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সভাপতিত্বে মন্ত্রিসভার বৈঠকে এ সংক্রান্ত প্রস্তাব অনুমোদন দেওয়া হয়েছে বলে আইন, বিচার ও সংসদবিষয়ক মন্ত্রী আনিসুল হক সাংবাদিকদের এ তথ্য জানান।আইনমন্ত্রী সাংবাদিকদের বলেন, ‘ডিজিটাল সিকিউরিটি অ্যাক্ট’-এর নাম পরিবর্তন করা হচ্ছে। এর নতুন নাম হবে ‘সাইবার সিকিউরিটি অ্যাক্ট’।একই সঙ্গে আইনের অনেকগুলো ধারায় পরিবর্তন আনা হচ্ছে। আজ মন্ত্রিসভা বৈঠকে এ বিষয়ে প্রস্তাব অনুমোদন দেওয়া হয়েছে।এসময় আইনমন্ত্রী আরও বলেন, নতুন খসড়ায় আগের আইনের কিছু ধারায় সংশোধনী আনা হয়েছে। এটি ‘সাইবার নিরাপত্তা আইন-২০২৩’ নামে প্রতিস্থাপিত হবে।তিনি আরও বলেন, ‘যেসব পরিবর্তন আসছে তার মধ্যে একটি গুরুত্বপূর্ণ বিষয় হচ্ছে, মানহানির মামলায় আগের জেল ও জরিমানার বিধান ছিল, জেলের বিধানটি বাদ দিয়ে শুধু জরিমানার বিধান রাখার প্রস্তাব করা হয়েছে।’বিষয়টি নিয়ে বিচারপ্রার্থীরা এক ধরনের দ্বিধায় পড়েছেন। তবে আইনজীবীরা বলছেন, নতুন আইন হলেও পুরাতন আইনের মামলা নষ্ট হবে না, বিচার চলবে।অ্যাটর্নি জেনারেল এএম আমিন উদ্দিন আইন সংশোধনের সিদ্ধান্তকে ‘ইতিবাচক’ বলে মন্তব্য করে তিনি বলেন, ‘যেকোনও আইন সময়ের সঙ্গে পরিবর্তনশীল। সময়ের প্রয়োজনে আইন করা হয়। সাংবাদিক সমাজসহ অনেকের দীর্ঘদিনের দাবি ছিল আইনটি পরিবর্তনের। সে দাবি পূরণ হয়েছে। আশা করছি এটি একটি যুগোপযোগী আইন হবে।’গত জুনে জাতীয় সংসদে আইনমন্ত্রী আনিসুল হক জানান,  ডিজিটাল নিরাপত্তা আইন-২০১৮ বাতিল বা পরিবর্তন করা হবে না। তবে আইনের অপব্যবহার রোধে এটি সংশোধন করার প্রক্রিয়া চলছে, যা আগামী সেপ্টেম্বরের মধ্যে সম্পন্ন হবে। গত ২৫ জুলাই আইনমন্ত্রী আনিসুল হক বলেছিলেন, মতপ্রকাশের স্বাধীনতা রোধ বা গণমাধ্যম নিয়ন্ত্রণের জন্য ডিজিটাল নিরাপত্তা আইন করা হয়নি, সাইবার অপরাধ দমনের জন্য ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনটি করা হয়েছে। এ আইনের অপব্যবহার যেন না হয় সেজন্য সরকার কিছু পদক্ষেপ নিয়েছে।উল্লেখ্য যে, গণমাধ্যমের স্বাধীনতা, মুক্তচিন্তা ও মত প্রকাশের অধিকার সমুন্নত রাখা, সর্বোপরি মানুষের মৌলিক অধিকারের সুরক্ষা নিশ্চিতে ডিজিটাল নিরাপত্তা আইন বাতিলে র্দীঘদিন ধরে দাবি জানিয়ে আসছিল সংশ্লিষ্টরা।দেশে আইনটি বাতিল অথবা সংশোধনের...