ন্যাভিগেশন মেনু

শাইখুল ইসলাম রতন

Staff Correspondent
শাইখুল ইসলাম রতন
Jan 12, 2023

জাতীয়

ছাত্রলীগের ইতিহাস, বাঙালির ইতিহাস’ শীর্ষক থিয়েট্রিকাল পরিবেশনা

ছাত্রলীগের ইতিহাস, বাঙালির ইতিহাস’ শীর্ষক থিয়েট্রিকাল পরিবেশনা

বাংলাদেশ ছাত্রলীগের গৌরব, ঐতিহ্য, সংগ্রাম ও সাফল্যে শীর্ষক ধারাবাহিক  সাংস্কৃতিক আন্দলন ‘ছাত্রলীগের ইতিহাস, বাঙালির ইতিহাস’ শীর্ষক থিয়েট্রিকাল পরিবেশনা শুরু করতে যাচ্ছে।ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় শাখা ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক তানভীর হাসান সৈকত বলেন, ৭৫তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী পুনর্মিলনী ‘বাংলাদেশ ছাত্রলীগ: গৌরব, ঐতিহ্য, সংগ্রাম ও সাফল্যের ৭৫ বছর’ শীর্ষক স্মারক গ্রন্থ প্রকাশ ‘স্মার্ট বাংলাদেশ আইডিয়া কনটেস্ট’ সহ কনসার্ট ফর স্মার্ট বাংলাদেশ আয়োজনের আংশ হিসাবে আগামী ১৩ই রোজ শুক্রবার সন্ধ্যায়  টি এস সি চত্বরে ছাত্রলীগের সাংস্কৃতিক আন্দলন ‘ছাত্রলীগের ইতিহাস, বাঙালির ইতিহাস’ শীর্ষক থিয়েট্রিকাল পরিবেশনা হবে বলে অবহিত করেন ।ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় শাখা ছাত্রলীগের সভাপতি মাঝারুল কবির শয়ন  ও ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় শাখা ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক তানভীর হাসান সৈকত  বাংলাদেশ পোস্টকে এক প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে জানান, ‘বাংলাদেশ ছাত্রলীগের ধারাবাহিক  সাংস্কৃতিক আন্দলনকে বেগবান করতে  ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় ‘ছাত্রলীগের ইতিহাস, বাঙ ালির ইতিহাস’ শীর্ষক থিয়েট্রিকাল পরিবেশনা নির্মাণ করেছে’ , প্রারম্ভিকভাবে টি এস সি চত্বরে এবং পরবর্তীতে ধারাবাহিক ভাবে প্রতিটি হলে সাধারন শিক্ষাথীদের জন্য পরিবেশন করা হবে  বলে জানান ।ধ্বনি ও দমনীর ভেতরে আমাদের ভাষার উপমা,বাংলাদেশের মানুষের প্রা্নস্পন্দন, তাদের জীবন ও ভাগ্য বদলের কারিগর বঙ্গবন্ধুর কন্যা জননেত্রী দেশ রত্ন শেখ হাসিনা ২০৪১ সালের উন্নত বাংলাদেশ গড়ার জন্য ‘স্মার্ট বাংলাদেশ’ গড়ার যে প্রস্তাবনা দিয়েছেন, দেশের সকলস্তরের ছাত্র সমাজ  সোৎসাহে তা গ্রহন করেছেন।দেশরত্ন শেখ হাসিনার উন্নয়ন অগ্রযাত্রা নিয়ে ‘শর্ট ফিল্ম প্রতিযোগিতা’ আয়োজন। উচ্চ মাধ্যমিক পর্যায়ের শিক্ষার্থীদের নিয়ে দেশব্যাপী ‘বঙ্গবন্ধুর স্বপ্নের সোনার বাংলা গড়তে স্মার্ট বাংলাদেশের প্রাসঙ্গিকতা’ শীর্ষক প্রতিযোগিতা ও জাতীয়ভাবে ‘স্মার্ট ইয়ুথ ক্যাম্প’ ও সকল সাংগঠনিক ইউনিটের দলীয় কার্যালয়ে লাইব্রেরি প্রতিষ্ঠা করা সহ বিভিন্ন কর্মসূচী গ্রহন করা হয়েছে ।সাধারণ সম্পাদক তানভীর হাসান সৈকত আরও বলেন, ঢাকার বিভিন্ন শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের ছাত্রলীগের নেতাকর্মীরা ‘সন্ত্রাস-জঙ্গিবাদের মদদদাতা, দুর্নীতিবাজদের পৃষ্ঠপোষক, গণতন্ত্র ও মানবাধিকারের হন্তারক, অশুভ ও অন্ধকারের শক্তি বিএনপি-জামায়াতের দেশবিরোধী ষড়যন্ত্র, অগ্নিসন্ত্রাসের প্রচেষ্টা ও সংবিধানবিরোধী অপতৎপরতার বিরুদ্ধে’ এই কর্মসূচি পালন অব্যাহত থাকবে বলেও জানায় ।...


Jan 11, 2023

জাতীয়

বিএনপির গণঅবস্থান কর্মসূচির পাল্টায় শাহবাগ চত্বরে ‘সতর্ক পাহারায়’ ছাত্রলীগ

বিএনপির গণঅবস্থান কর্মসূচির পাল্টায় শাহবাগ চত্বরে ‘সতর্ক পাহারায়’ ছাত্রলীগ

বিএনপির গণঅবস্থান কর্মসূচির পাল্টায় একই সময়ে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের বিভিন্ন স্থানে অবস্থান নিয়ে ‘সতর্ক পাহারায়’ থাকার কথা জানিয়েছেন কেন্দ্রীয় ছাত্রলীগ ও ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্রলীগের নেতাকর্মীরা ।বেলা ১১টা থেকে শাহবাগ চত্বরে অবস্থান কর্মসূচি পালন করছে  কেন্দ্রীয় ছাত্রলীগ, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়, জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়, ইডেন কলেজসহ ঢাকার বিভিন্ন শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের ছাত্রলীগের নেতাকর্মীরা । ‘সন্ত্রাস-জঙ্গিবাদের মদদদাতা, দুর্নীতিবাজদের পৃষ্ঠপোষক, গণতন্ত্র ও মানবাধিকারের হন্তারক, অশুভ ও অন্ধকারের শক্তি বিএনপি-জামায়াতের দেশবিরোধী ষড়যন্ত্র, অগ্নিসন্ত্রাসের প্রচেষ্টা ও সংবিধানবিরোধী অপতৎপরতার বিরুদ্ধে’ এই কর্মসূচি পালন করছে বলে জানায় কেন্দ্রীয় নেত্রীবৃন্দ ।কেন্দ্রীয় ছাত্রলীগ, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়, জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়, ইডেন কলেজসহ ঢাকার বিভিন্ন শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের ছাত্রলীগের নেতাকর্মীরা মিছিল নিয়ে এসে শাহবাগের এ কর্মসূচিতে যোগ দিচ্ছেন।ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক শেখ ওয়ালী আসিফ ইনান অবস্থান কর্মসূচিতে বলেন, “বিএনপি রাজনৈতিক কর্মসূচির নামে সাধারণ মানুষের জীবন নিয়ে ছিনিমিনি খেলছে, মানুষের জীবন-মানকে ক্ষতিগ্রস্ত করছে, মানুষের স্বাভাবিক জীবনযাপনকে ব্যাহত করছে।'বিএনপি-জামায়াত অপশক্তি আবারও দেশে পেট্রোল বোমা, অগ্নিসন্ত্রাস ও নৈরাজ্য সৃষ্টির পাঁয়তারা করছে। আজকে ছাত্রসমাজ ঐক্যবদ্ধভাবে এসকল সন্ত্রাসীদের অপতৎপরতার বিরুদ্ধে জেগে উঠেছে। তরুণ শিক্ষার্থীরা আজ ঐক্যবদ্ধ যে, কোনোভাবেই আর অগ্নিসন্ত্রাস চলতে দেওয়া যাবে না।"ছাত্রলীগ বলছে, এটি 'সন্ত্রাস, জঙ্গিবাদ, দুর্নীতির প্রতিশব্দ বিএনপি-জামায়াতের অপতৎপরতা বিরুদ্ধে ঐক্যবদ্ধ ছাত্রসমাজের অবস্থান কর্মসূচি'। 'হৈ হৈ রৈ রৈ ছাত্রদল গেলি কই', 'শিবিরের চামড়া তুলে নেব আমরা', 'জামায়াত-শিবির রাজাকার এই মুহূর্তে বাংলা ছাড়', বিএনপি-জামায়াতের কালো হাত ভেঙে দাও, গুঁড়িয়ে দাও', 'এই লড়াইয়ে জিতবে কারা, বঙ্গবন্ধুর সৈনিকেরা', ইত্যাদি স্লোগান দিচ্ছেন নেতাকর্মীরামহানগর দক্ষিণ আওয়ামী লীগের পক্ষ থেকে কদিন ধরেই বলা হচ্ছে, বিএনপি ‘গণঅবস্থানের নামে সহিংসতা প্রতিরোধে’ এই ‘সতর্ক পাহারা ও সমাবেশ’। মহানগর আওয়ামী লীগের  নেতারা সমাবেশে যে কোনো মূল্যে বিএনপি 'সন্ত্রাস, জঙ্গিবাদ কে ‘ঠেকাতে চান’ বলে তারা বক্তব্য দিচ্ছেন।যার পরিপ্রেক্ষিতে ঢাকার বিভিন্ন শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের ছাত্রলীগের নেতাকর্মীরা মিছিল নিয়ে শাহবাগ চত্বরে অবস্থান কর্মসূচি পালন করছে।...


Jan 10, 2023

জাতীয়

জাতির পিতা বঙ্গবন্ধুর  স্বদেশ প্রত্যাবর্তন দিবসে বাংলাদেশ ছাত্রলীগের শ্রদ্ধা নিবেদন

জাতির পিতা বঙ্গবন্ধুর স্বদেশ প্রত্যাবর্তন দিবসে বাংলাদেশ ছাত্রলীগের শ্রদ্ধা নিবেদন

১৯৭১ সালের ১০ জানুয়ারি বঙ্গবন্ধুর স্বদেশ প্রত্যাবর্তনের মধ্য দিয়ে জাতি বিজয়ের পূর্ণ স্বাদ গ্রহণ করে। জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের স্বদেশ প্রত্যাবর্তন দিবস  উপল্লক্ষ্যে তার প্রতিকৃতিতে শ্রদ্ধা নিবেদন করেছে বাংলাদেশ ছাত্রলীগ।মঙ্গলবার (১০ জানুয়ারি) সকালে ছাত্রলীগের সভাপতি সাদ্দাম হোসেন ও সাধারণ সম্পাদক শেখ ওয়ালী আসিফ ইনানের নেতৃত্বে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় শাখা ছাত্রলীগের সভাপতি মাজহারুল কবির শায়ান, সাধারণ সম্পাদক তানভীর হাসান সৈকত, ঢাকা মহানগর উত্তর ছাত্রলীগের সভাপতি রিয়াজ মাহমুদ, সাধারণ সম্পাদক সাগর আহমেদ, ঢাকা মহানগর দক্ষিণ ছাত্রলীগের সভাপতি রাজিবুল ইসলাম বাপ্পী, সাধারণ সম্পাদক সজল কুন্ডুসহ কেন্দ্রীয় নেতাকর্মীরা ধানমন্ডিতে বঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতিতে পুষ্পার্ঘ্য অর্পণ করেন ।প্রসঙ্গত, ১৯৭১ সালের ১৬ ডিসেম্বর চূড়ান্ত বিজয় অর্জিত হলেও পাকিস্তানের বন্দীদশা থেকে মুক্তি পেয়ে ১৯৭২ সালের ১০ জানুয়ারি জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান সদ্য স্বাধীন বাংলাদেশের মাটিতে প্রত্যাবর্তন করেন।যুদ্ধ চলাকালিন দীর্ঘ ৯ মাস কারাভোগের পর ৮ জানুয়ারি পাকিস্তানের মিয়ানওয়ালি কারাগার থেকে মুক্তি লাভ করেন। পরে বঙ্গবন্ধু পাকিস্তান থেকে লন্ডন ও দিল্লী হয়ে ঢাকা ফেরেন বঙ্গবন্ধু। জাতির পিতা পাকিস্তান থেকে ছাড়া পান ১৯৭২ সালের ৮ জানুয়ারি ভোরে। এদিন বঙ্গবন্ধু সকাল সাড়ে ৬টায় লন্ডনের হিথরো বিমানবন্দরে পৌঁছে, ব্রিটেনের প্রধানমন্ত্রী এডওয়ার্ড হিথ, তাজউদ্দিন আহমদ ও ভারতের তৎকালীন প্রধানমন্ত্রী ইন্দিরা গান্ধীসহ অনেকের সঙ্গে সাক্ষাতে কথা বলেন। পরে ৯ জানুয়ারি ব্রিটেন বিমান বাহিনীর একটি বিশেষ বিমানে করে পরের দিন ১০ জানুয়ারি সকালেই তিনি দিল্লীতে নামেন । সেখানে ভারতের রাষ্ট্রপতি ভিভি গিরি, প্রধানমন্ত্রী ইন্দিরা গান্ধী, সমগ্র মন্ত্রিসভা, শীর্ষস্থানীয় নেতৃবৃন্দ, তিন বাহিনীর প্রধান এবং অন্যান্য অতিথি ও সেদেশের জনগণের কাছ থেকে উষ্ণ সংবর্ধনা লাভ করেন এবং সদ্য স্বাধীন বাংলাদেশের জাতির পিতা শেখ মুজিবুর রহমান, ভারতের নেতৃবৃন্দ এবং জনগণের কাছে তাদের অকৃপণ সাহায্যের জন্য আন্তরিক কৃতজ্ঞতা জানান।বেলা ১টা ৪১ মিনিটে তিনি ঢাকা এসে পৌঁছালে অপেক্ষমান বাঙালি জাতি বঙ্গবন্ধুকে প্রাণঢালা সংবর্ধনা জানানোর জন্য প্রাণবন্ত আনন্দে আত্মহারা লাখ লাখ মানুষ ঢাকা বিমান বন্দর থেকে রেসকোর্স ময়দান পর্যন্ত তাঁকে স্বতঃস্ফূর্ত সংবর্ধনা জানান।রেসকোর্স ময়দানে প্রায় ১০ লাখ লোকের উপস্থিতিতে বিকাল পাঁচটায়  তিনি ভাষণ দেন। আনন্দ-বেদনার অশ্রুধারা দু-চোখে স্বদেশের মাটি ছুঁয়ে...


Jan 09, 2023

জাতীয়

 ব্যাংক ও আর্থিকখাত নিয়ে গুজব ছড়াচ্ছে জামায়াত-শিবির – ডিবি প্রধান

ব্যাংক ও আর্থিকখাত নিয়ে গুজব ছড়াচ্ছে জামায়াত-শিবির – ডিবি প্রধান

দেশের ভাবমূর্তি ক্ষুণ্ণ করা, দেশের অর্থনীতিকে বিপর্যস্ত করা এবং সরকারকে বেকায়দায় ফেলতে জামায়াত-শিবিরসহ দেশবিরোধী চক্র দেশের ব্যাংক ও আর্থিকখাত নিয়ে গুজব  ছড়াচ্ছে।অপপ্রচার চালিয়ে দেশের অর্থনীতিকে বিপর্যস্ত করে দেশের ভাবমূর্তি ক্ষুণ্ণ করার  লক্ষে যে সকল দেশবিরোধী চক্র কাজ করে চলেছে তাদের অনেকেই ডিবি পুলিশ গ্রেপ্তার করতেছে।সোমবার (৯ জানুয়ারি) ঢাকা মেট্রোপলিটন পুলিশের (ডিএমপি) গোয়েন্দা শাখার (ডিবি) প্রধান হারুন অর রশীদ মিডিয়া সেন্টারে সাংবাদিকদের বলেন, যারা না জেনে, ব্যাংকে না গিয়ে অপপ্রচার চালিয়ে যাচ্ছেন, তাদের আমরা গ্রেপ্তার করেছি, ‘তারা সবাই  জামায়াত-শিবিরের সমর্থক বলে তারা স্বীকার করেছেন।‘ডিবির এ কর্মকর্তা বলেন, ‘জামায়াত-শিবিরের সমর্থক বিশ্বের বিভিন্ন দেশে রয়েছেন, তারা সেখান থেকে স্যোশাল মিডিয়ায় বিভিন্ন কথা বলে চলেছেন। আবার বাংলাদেশেও তাদের কিছু লোক রয়েছে, তাদের নাম আমরা পেয়েছি, রিমান্ডে এনে তথ্য আদায়ের কাজ চলমান আপনাদের পরবর্তীতে জানাব।তিনি আর বলেন, তাদের সঙ্গে আরো কারা কারা আছেন, কারা বিদেশ থেকে এ ধরনের নীতিবাচক প্রচারণা চালিয়ে যাচ্ছেন, সেটার তথ্য আমরা পেয়েছি। পরবর্তীতে সব কিছু তদন্তে বের হয়ে আসবে।...


Jan 08, 2023

জাতীয়

পুলিশের যৌক্তিক দাবি বাস্তবায়নের আশ্বাস স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীর

পুলিশের যৌক্তিক দাবি বাস্তবায়নের আশ্বাস স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীর

আইজিপির র‍্যাংক ব্যাচ ফোর স্টার করা ও সিনিয়র সচিব পদমর্যাদা সহ পুলিশ  বাহিনীর ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তারা পুলিশ সপ্তাহের পঞ্চম দিনে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান কামালের কাছে নিজেদের বিভিন্ন দাবি  তুলে ধরেন ।‌   পুলিশ অধিদপ্তরের বদলে পুলিশ হেডকোয়ার্টার লেখা, পুলিশ হাসপাতালকে মেডিক্যাল কলেজ করা, বঙ্গবন্ধু ইউনিভার্সিটি অব পুলিশ অ্যান্ড ক্রিমিনাল জাস্টিস নামে পুলিশের জন্য একটা বিশেষায়িত বিশ্ববিদ্যালয় করা, চাকরিরত অবস্থায় পুলিশ সদস্য মারা গেলে ক্ষতিপূরণ পাওয়া সহ বিভিন্ন বিষয় তুলে ধরেন পুলিশ  বাহিনীর ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তারা ।শনিবার (৭ জানুয়ারি) রাজারবাগ পুলিশ লাইন টেলিকম অডিটরিয়ামে রাত আটটায় সভা শুরু করে সাড়ে ১০টার দিকে শেষ হয়া মতবিনিময় সভায় আসাদুজ্জামান খান বলেন, চাকরিরত অবস্থায় পুলিশ সদস্য মারা গেলে ক্ষতিপূরণ পাওয়ার দাবি যৌক্তিক। সিনিয়র সচিব এটার ব্যবস্থা নেবেন।তিনি আরও বলেন, সাইবার জগতটা আমাদের জন্য নতুন জগৎ। অপরাধীরা এখানে অত্যন্ত সক্রিয়। এ জায়গাটায় আমাদের অনেক কিছু করতে হবে। আমাদের সাইবার ইউনিট আরও শক্তিশালী করতে হবে।একটি স্বতন্ত্র বিশ্ববিদ্যালয়ের দাবি এসেছে। যত বেশি পুলিশকে প্রশিক্ষণ দিতে পারবো তত বেশি দক্ষ পুলিশ বাহিনী তৈরি হবে, এটি একটি যৌক্তিক দাবি।কেন্দ্রীয় পুলিশ হাসপাতালকে মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে রূপান্তর করার দাবি এসেছে। আপনাদের হাসপাতালটা একটা ভালো মানের হাসপাতালে রূপান্তরিত হয়েছে। এটাকে আপনারা কলেজের রূপান্তরিত করতে চান। আপনারা বিষয়টা আর একটু পরীক্ষা-নিরীক্ষা করে বলবেন। কারণ আমাদের যে পরিমাণ মেডিক্যাল কলেজ আছে, কোনও কোনও মেডিক্যাল কলেজে তো শিক্ষকই নাই। বিষয়টা পরীক্ষা-নিরীক্ষা করে আমাদের সচিব দেখবেন। প্রত্যেক বিভাগে একটা করে আধুনিক হাসপাতাল হবে এটা আমি যৌক্তিক দাবি মনে করি।পঞ্চম গ্রেডের কর্মকর্তাদের বদলি ও পদোন্নতি পুলিশ হেডকোয়ার্টার কর্তৃক সম্পাদন করার কথা বলা হয়েছে। এটাও আমাদের সচিব মহোদয় পরীক্ষা-নিরীক্ষা করে দেখবেন।তাছাড়া মন্ত্রণালয়ে পুলিশ হেডকোয়ার্টার্স নামটি ব্যবহার করার জন্য বলা যেতেই পারে। এখানে কোনও সমস্যা নেই। পুলিশে কর্মরত সিভিল স্টাফদের অবসরকালীন রেশন সুবিধা, এটা অন্য বাহিনী পায় কিনা আমরা চেক করে দেখবো।মন্ত্রী আরও বলেন, আইজিপির সিনিয়র সচিব পদমর্যাদা বিষয়ে। যেখানে আমরা বলছি সিনিয়র সচিব, সেখানে তাকে সিনিয়র সচিব ঘোষণা দিতে বিলম্ব কেন ,আমার জানা নেই।পুলিশের যানবাহনের প্রয়োজন রয়েছে। যানবাহনের এবারও আমাদের বাজেট...


Jan 05, 2023

জাতীয়

স্থাপত্যশৈলী হিসেবে আন্তর্জাতিক স্বীকৃতি পেতে যাচ্ছে পদ্মা সেতু

স্থাপত্যশৈলী হিসেবে আন্তর্জাতিক স্বীকৃতি পেতে যাচ্ছে পদ্মা সেতু

বিশ্বের অন্যতম কঠিন স্থাপত্যশৈলী হিসেবে আন্তর্জাতিক স্বীকৃতি পেতে যাচ্ছে বাংলাদেশের নবনির্মিত পদ্মা সেতু। বিশ্বের অন্যতম কঠিন স্থাপত্যশৈলী হিসেবে পদ্মা সেতুকে স্বীকৃতি দেবে আমেরিকান সোসাইটি অব সিভিল ইঞ্জিনিয়ার্স (এএসসিই)।বিশ্বের খ্যাতনামা প্রকৌশল সংগঠন আমেরিকান সোসাইটি অব সিভিল ইঞ্জিনিয়ার্সের (এএসসিই) এনভায়রনমেন্ট অ্যান্ড ওয়াটার রিসোর্সেস ইনস্টিটিউট (ইডব্লিউআরআই) এবং বাংলাদেশ প্রকৌশল বিশ্ববিদ্যালয়ের (বুয়েট) বাংলাদেশ সরকারের পানি ও বন্যা ব্যবস্থাপনা ইনস্টিটিউট যৌথভাবে এই সম্মেলনের আয়োজন করেছে।সম্মেলনের আয়োজক ও আন্তর্জাতিক পানি বিশেষজ্ঞ ড. সুফিয়ান খন্দকার জানান, ঢাকার প্যান প্যাসিফিক সোনারগাঁও হোটেলে অনুষ্ঠিতব্য এই সম্মেলনে এএসসিইর সভাপতি মারিয়া  লেহমান সহ বিশ্বের ১৩‌টি দেশের পানি বিজ্ঞানী, বিশেষজ্ঞ ও পরিবেশবিদদের ঢাকায় পূর্ণাঙ্গ অধিবেশনে যোগ দি‌তে বাংলা‌দেশে এ‌সে‌ছেন।ইন্টারন্যাশনাল পারস্পেকটিভ অন ওয়াটার রিসোর্সেস অ্যান্ড দ্য এনভায়রনমেন্টের (আইপিডব্লিউই) একাদশতম সম্মেলনের ৪-৬ জানুয়ারি ঢাকার সঙ্গে একযোগে যুক্তরাষ্ট্রের ভার্জিনিয়া রাজ্যের রেস্টনে আইপিডব্লিউই-২০২৩ অনুষ্ঠিত হচ্ছে।সম্মেলনের আয়োজক ও আন্তর্জাতিক পানি বিশেষজ্ঞ ড. সুফিয়ান খন্দকার আর জানান, পদ্মা সেতুর জন্য এ স্বীকৃতি দিতে সম্মত হয়েছে এএসসিইর পরিচালনা পর্ষদ। এএসসিইর সভাপতি মারিয়া লেহমান এর উপস্থিতিতে এ স্বীকৃতি দেওয়া হবে। বুয়েটের কাউন্সিল ভবনে আইপিডব্লিউই-২০২৩ এর এক সংবাদ স‌ম্মেল‌নে এ তথ‌্য জানা‌নো হ‌য়ে‌ছে।ঢাকায় অনুষ্ঠিতব্য তিন দিনব্যাপী আন্তর্জাতিক পানি সম্পদ ও পরিবেশ সম্মেলনে (আইপিডব্লিউই-২০২৩) পদ্মা সেতুকে এ স্বীকৃতি দেবে বিশ্বের খ্যাতনামা প্রকৌশল সংগঠন আমেরিকান সোসাইটি অব সিভিল ইঞ্জিনিয়ার্স (এএসসিই)।ড. সুফিয়ান খন্দকার জানান, পদ্মা সেতু নির্মাণে বহু বাধা এসেছে। এটা ছিল পদ্মা নদীর পানির স্রোতের বাধা। এজন্য নদী শাসন করতে নির্মাতা প্রতিষ্ঠানকে হিমশিম খেতে হয়েছে। বিশ্বের আর কোনো সেতু এমন বাধার সম্মুখীন হয়নি। পদ্মা সেতু নির্মাণে এ পর্যন্ত যত প্রকৌশল প্রযুক্তি ব্যবহার করা হয়েছে, তা বিশ্বের কোনো সেতুতে হয়নি।এসব কারণে বিশ্বের অন্যতম কঠিন স্থাপত্যশৈলী হিসেবে পদ্মা সেতুকে স্বীকৃতি দেবে আমেরিকান সোসাইটি অব সিভিল ইঞ্জিনিয়ার্স (এএসসিই)।ড. সুফিয়ান খন্দকার বলেন, পদ্মা সেতুর এই স্বীকৃতি বাংলাদেশকে বিশ্বের কাছে নতুন করে পরিচিত করে তুলবে। তিনি বলেন, এই সম্মেলনে আন্তর্জাতিক বিশেষজ্ঞদের পরামর্শ ও অভিজ্ঞতাকে কাজে লাগিয়ে বাংলাদেশের পানি ও বন্যা ব্যবস্থাপনা সমৃদ্ধ হবে। এছাড়াও বাংলাদেশ নানাভাবে উপকৃত হবে।২০০৬ সাল থেকে আইপিডব্লিউই কনফারেন্স সিরিজ অনুষ্ঠিত হচ্ছে। ওই বছর প্রথম...


Jan 04, 2023

জাতীয়

ভাষা ও স্বাধীনতার পতাকাবাহী সংগঠন বাংলাদেশ ছাত্রলীগের ৭৫তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকীর কর্মসূচি শুরু

ভাষা ও স্বাধীনতার পতাকাবাহী সংগঠন বাংলাদেশ ছাত্রলীগের ৭৫তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকীর কর্মসূচি শুরু

ঐতিহ্যবাহী ছাত্রসংগঠন বাংলাদেশ ছাত্রলীগের ৭৫তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উপলক্ষে  সংগঠনটির নেতাকর্মীরা রাজধানীর ৩২ নম্বরে বঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতিতে ফুল দিয়ে  শ্রদ্ধা জানিয়ে বছরব্যাপী বিভিন্ন কর্মসূচি শুরু করেন।  বুধবার (৪ জানুয়ারি) সকাল সোয়া ৮টার দিকে ছাত্রলীগের কেন্দ্রীয় কমিটির নতুন সভাপতি সাদ্দাম হোসেন ও সাধারণ সম্পাদক শেখ ওয়ালী আসিফ ইনান ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় শাখা ছাত্রলীগের সভাপতি মাজহারুল কবীর শয়ন, বিশ্ববিদ্যালয় শাখা ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক তানভীর হাসান সৈকত, ঢাকা মহানগর দক্ষিণ শাখা ছাত্রলীগের সভাপতি রাজিবুল ইসলাম বাপ্পী ও সাধারণ সম্পাদক সজল কুন্ডুসহ বিভিন্ন স্তরের নেতাকর্মীরা শ্রদ্ধা জানান ।এ সময় স্লোগানে স্লোগানে মুখর হয়ে ওঠে পুরো এলাকা। গৌরব, ঐতিহ্য, সংগ্রাম ও সাফল্যের দীর্ঘ এ পথচলায় মহান মুক্তিযুদ্ধসহ দেশের সব গণতান্ত্রিক আন্দোলনে নেতৃত্ব দিয়েছে বঙ্গবন্ধুর হাতে গড়া এ সংগঠনটি।১৯৪৮ সালের আজকের এদিনে জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান দেশের বৃহৎ এ ছাত্র সংগঠনটি প্রতিষ্ঠা করেন। একই বছর রাষ্ট্রভাষা বাংলার দাবিতে আন্দোলনে নামেন সংগঠনের নেতাকর্মীরা। ভাষা ও স্বাধীনতার পতাকাবাহী সংগঠন রূপেও পরিচিতি রয়েছে সংগঠনটির।চুয়ান্নোর নির্বাচন, বাষট্টির শিক্ষা আন্দোলন, ছেষট্টির বাঙালি মুক্তির সনদ ছয় দফা, ৬৯এর গণ-অভ্যুত্থান, ৭০এর নির্বাচন, ৭১এর মুক্তিযুদ্ধ ও স্বাধীনতা অর্জন, স্বাধীনত্তোর সামরিক শাসন বিরোধী আন্দোলন, ৯০ ও ৯৬এর গণঅভ্যুত্থানসহ সকল আন্দোলন সংগ্রামের নেতৃত্বদানকারী সংগঠন হিসেবে ছাত্রলীগের রয়েছে ঐতিহাসিক ভূমিকা । এই ছাত্রসংগঠনের হাত ধরেই বাঙালির মুক্তি সংগ্রামের শুরু আর এই কারনেই ছাত্রলীগকে বলা হয় আওয়ামী লীগের মাতৃ সংগঠন।অন্যান্য বছর প্রতিষ্ঠাবার্ষিকীর দিনই শোভাযাত্রা বের করে ছাত্রলীগ। তবে এবার ৬ জানুয়ারি শুক্রবার দুপুর আড়াইটায় হবে প্রতিষ্ঠাবার্ষিকীর শোভাযাত্রা।সাদ্দাম হোসেন বলেন, ‘বিশ্ববিদ্যালয়ের একাডেমিক পরিবেশ সমুন্নত রাখা, ঢাকা শহরের জ্যাম, শিক্ষার্থীদের ক্লাস-পরীক্ষা এবং গণজীবনের স্বাভাবিক অগ্রযাত্রাকে অব্যাহত রাখতে আমরা আমাদের প্রতিষ্ঠাবার্ষিকীর শোভাযাত্রা শুক্রবার করার সিদ্ধান্ত নিয়েছি। এছাড়া ৫-৮ জানুয়ারি রক্তের গ্রুপ নির্ণয়, স্বেচ্ছায় রক্তদান ও সংগৃহীত রক্ত বিতরণ আর শিক্ষার্থীদের মাঝে শিক্ষা উপকরণ বিতরণ সহ পূর্ব নিধারিত সময়ে করার উদ্যোগও নেয়া হয়েছে।ছাত্রলীগের কেন্দ্রীয় কমিটির সভাপতি সাদ্দাম হোসেন আর বলেন, ছাত্রসমাজ ও তরুণ প্রজন্মকে ঐক্যবদ্ধ করে প্রধানমন্ত্রী ও আওয়ামী লীগের সভাপতি শেখ হাসিনার পরিকল্পিত ‘স্মার্ট বাংলাদেশের’ নেতৃত্ব দেবে ছাত্রলীগ, ৭৫তম বর্ষপূর্তিতে এটিই আমাদের সংকল্প।...


Jan 03, 2023

জাতীয়

বাংলাদেশ ছাত্রলীগের ৭৫তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উপলক্ষে বছরব্যাপী কর্মসূচির আয়োজন

বাংলাদেশ ছাত্রলীগের ৭৫তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উপলক্ষে বছরব্যাপী কর্মসূচির আয়োজন

ঐতিহ্যবাহী ছাত্রসংগঠন বাংলাদেশ ছাত্রলীগের ৭৫তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উপলক্ষে  বছরব্যাপী বিভিন্ন কর্মসূচির আয়োজন করতে যাচ্ছে বাংলাদেশ ছাত্রলীগ।৪ঠা জানুয়ারি থেকে ৮ ই  জানুয়ারি পর্যন্ত মূল অনুষ্ঠানগুলো পালিত হবে । সুবিধা মতো সময়ে অন্য  সকল কর্মসূচিগুলো পালন করা হবে। ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের মধুর ক্যান্টিনে এক সংবাদ সম্মেলনে মঙ্গলবার বেলা ১২টার দিকে কর্মসূচির ঘোষণা করেন ছাত্রলীগের সভাপতি সাদ্দাম হোসেন।ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় শাখা ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক তানভীর হাসান সৈকত বাংলাদেশ পোস্টকে ছাত্রলীগের সভাপতির প্রকাশিত কর্মসূচির অবহিত করে বলেন, ৪ জানুয়ারি কর্মসূচিতে থাকছে, সকাল ৬টায় সংগঠনের কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে জাতীয় ও দলীয় পতাকা উত্তোলন, সকাল সাড়ে ৮টায় ধানমন্ডিস্থ জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের প্রতিকৃতিতে শ্রদ্ধা নিবেদন, সকাল ৯টায় ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের কার্জন হলে কেক কেটে প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উদযাপন ও বিকাল ৩টায় শীতার্তদের মাঝে শীতবস্ত্র বিতরণ ।৬ জানুয়ারি দুপুর ২.৩০ মিনিটে প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী শোভাযাত্রা এছাড়া ৫-৮ জানুয়ারি প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উপলক্ষ্যে রক্তের গ্রুপ নির্ণয়, স্বেচ্ছায় রক্তদান ও সংগৃহীত রক্ত বিতরণ ও শিক্ষার্থীদের মাঝে শিক্ষা উপকরণ বিতরণ।প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নির্দেশে দেশের ওয়ার্ড পর্যায়  অনাবাদি জমিতে শাকসবজি-ফল চাষ, মাছ ও গৃহপালিত পশুপালন ইত্যাদি উদ্যোগ গ্রহণ ও প্রগতিশীল ছাত্র সংগঠনের নেতৃবৃন্দের সঙ্গে স্মার্ট বাংলাদেশ বিনির্মাণে ‘ঐক্যবদ্ধ ছাত্রসমাজ’ শীর্ষক মতবিনিময় কর্মসূচি সুবিধাজনক সময়ে পালিন করা।এছাড়া সুবিধাজনক সময়ে পালিত করা হবে বাংলাদেশ ছাত্রলীগের ৭৫তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী পুনর্মিলনী ‘বাংলাদেশ ছাত্রলীগ: গৌরব, ঐতিহ্য, সংগ্রাম ও সাফল্যের ৭৫ বছর’ শীর্ষক স্মারক গ্রন্থ প্রকাশ ‘স্মার্ট বাংলাদেশ আইডিয়া কনটেস্ট’ সহ কনসার্ট ফর স্মার্ট বাংলাদেশ আয়োজন।আর থাকছে, দেশরত্ন শেখ হাসিনার উন্নয়ন অগ্রযাত্রা নিয়ে ‘শর্ট ফিল্ম প্রতিযোগিতা’ আয়োজন। উচ্চ মাধ্যমিক পর্যায়ের শিক্ষার্থীদের নিয়ে দেশব্যাপী ‘বঙ্গবন্ধুর স্বপ্নের সোনার বাংলা গড়তে স্মার্ট বাংলাদেশের প্রাসঙ্গিকতা’ শীর্ষক প্রতিযোগিতা ও জাতীয়ভাবে ‘স্মার্ট ইয়ুথ ক্যাম্প’ ও সকল সাংগঠনিক ইউনিটের দলীয় কার্যালয়ে লাইব্রেরি প্রতিষ্ঠা করা ।বিশ্ববিদ্যালয় পর্যায়ে ‘ডেভেলপমেন্ট কুইজ’ , নারী শিক্ষার্থীদের নিয়ে ‘নারীর ক্ষমতায়ন ও শেখ হাসিনা’ শীর্ষক বক্তব্য প্রতিযোগিতা ,‘সজিব ওয়াজেদ জয় প্রোগ্রামিং কনটেস্ট’ আয়োজন’ সহস্মার্ট বাংলাদেশ' ও 'স্মার্ট ক্যাম্পাস' এর উপর আন্তর্জাতিক একাডেমিক কনফারেন্স ‘স্মার্ট বাংলাদেশ’ ও  অলিম্পিয়াড‘স্মার্ট বাংলাদেশ: আওয়ার কান্ট্রি, আওয়ার ড্রিম’ শীর্ষক পোস্টার প্রেজেন্টেশনসহ দেশের বিভিন্ন বিশ্ববিদ্যালয়ের পুরস্কারপ্রাপ্ত মেধাবী শিক্ষার্থীদের...


Jan 02, 2023

জাতীয়

ডিবি পুলিশ কি না, তা যাচাই করুন, প্রয়োজনে সহযোগিতা নিন- ডিবি প্রধান

ডিবি পুলিশ কি না, তা যাচাই করুন, প্রয়োজনে সহযোগিতা নিন- ডিবি প্রধান

ডিবি পুলিশ বললেই যাচাই-বাছাই ছাড়া গাড়িতে উঠেবেন না। এক্ষেত্রে ভুয়া ডিবি পুলিশ কি না, তা যাচাই করবেন। অপ্রীতিকর সমস্যা সমাধানে প্রয়োজনে আশপাশের মানুষের সহযোগিতা নেবেন।ঢাকা মহানগর গোয়েন্দা পুলিশের (ডিবি) প্রধান হারুন অর রশিদ বলেন, ‘অপ্রীতিকর সমস্যার  অনেকাংশেই সমাধান করতে হলে যাচাই-বাছাই  করুন, প্রয়োজনে পুলিশের সহযোগিতা নিন’।সোমবার (২ ডিসেম্বর) দুপুরে ঢাকা মেট্রোপলিটন পুলিশের (ডিএমপি) মিডিয়া সেন্টারের সংবাদ সম্মেলনে সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে তিনি এসব কথা বলেন।হারুন অর রশিদ বলেন, ‘অনেকেই আমাদের ডিবির নাম ব্যবহার করে তুলে নিয়ে যাওয়ার অভিযোগ করেছেন। অনেককে তুলে নিয়ে যাওয়ার ঘটনাও ঘটছে। তারা ডিবির কথা বলে তুলে নিয়ে যায়। কেউ ডিবি পুলিশ বললেই গাড়িতে উঠে যাবেন না। আপনারা এক্ষেত্রে ভুয়া ডিবি পুলিশ কি না, তা যাচাই করবেন।’আমরা অনেককে গ্রেপ্তার করেছি, ‘সামনেও করব। আপনারাও সচেতন থাকবেন। আপনারা আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর কাছে আসতে চান না। আমাদের কাছে আসলে আমরা যথাযথ ব্যবস্থা নেওয়ার চেষ্টা করতে পাড়ব, আপনাদের সহযোগিতা দিতে পারব। যারা অভিযোগ করেছেন, আমরা ব্যবস্থা নিয়েছি। যাদের গ্রেপ্তার করেছি, আমরা তাদের রিমান্ডে আনছি। তাদের সঙ্গে আর কারা কারা জড়িত তা শনাক্ত করব।’রাজধানীর বিভিন্ন এলাকায় অভিযান চালিয়ে ৫ ভুয়া ডিবিকে গ্রেপ্তার করেছেন গোয়েন্দারা। গ্রেপ্তারকৃতরা হলো—লিথুয় সুর, মো. হারুন, জোবায়ের হোসেন, পারভেজ মোহাম্মদ, আরিফ হোসেন ও খোকন চন্দ্র দেবনাথ। তারা দীর্ঘদিন ধরে রাজধানীতে ডিবি পরিচয়ে মানুষকে তুলে নিয়ে ছিনতাই করত।পাঁচ ভুয়া ডিবিকে গ্রেপ্তারের তথ্য উল্লেখ করে হারুন অর রশিদ  বলেন, ‘দুটি মাইক্রোবাস, একটি প্রাইভেট কার, হ্যান্ডকাফ ও পুলিশের জ্যাকেট পড়ে তারা দীর্ঘদিন ধরে রাজধানীতে ডিবি পরিচয়ে বিভিন্ন অপরাধ কার্যক্রম চালিয়ে আসছিলো।‘...


Jan 02, 2023

জাতীয়

তৃণমূল নেতাদের উদ্দেশ্যে নতুন বছরের শুভেচ্ছায় ছাত্রলীগের বার্তা

তৃণমূল নেতাদের উদ্দেশ্যে নতুন বছরের শুভেচ্ছায় ছাত্রলীগের বার্তা

রাজধানীর বঙ্গবন্ধু এভিনিউয়ে ছাত্রলীগের কার্যালয়ে তৃণমূল নেতাদের উদ্দেশ্যে নতুন বছরের শুভেচ্ছায় একগুচ্ছ বার্তা দিয়েছেন ছাত্রলীগের নতুন সভাপতি সাদ্দাম হোসেন।বিশেষ বর্ধিত সভা রবিবার বিকাল ৩টা থেকে শুরু হয়ে টানা রাত ১টা শেষে, এ বিষয়ে গণমাধ্যমকে বিস্তারিত জানান ছাত্রলীগ সভাপতি।বাংলাদেশ ছাত্রলীগের এই বর্ধিত সভায় ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক শেখ ওয়ালী আসিফ ইনান, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্রলীগের সভাপতি মাজহারুল কবির শয়ন, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক তানভীর হাসান সৈকতসহ ছাত্রলীগের জেলা ও মহানগর ইউনিটের নেতৃবৃন্দ উপস্থিতিতে ছাত্রলীগের নতুন সভাপতি সাদ্দাম হোসেন বলেন, দেশরত্ন শেখ হাসিনা স্মার্ট বাংলাদেশের ধারণা তুলে ধরার পরে শিক্ষার্থী ও তরুণ প্রজন্মের কাছে জনপ্রিয় হয়েছে।স্মার্ট বাংলাদেশের ধারণা রাজনৈতিকভাবে বিজয়ী করা ছাত্র আন্দোলনের প্রধানতম দিকে পরিণত হয়েছে। তরুণদের মাঝে ছড়িয়ে দিতে সাংগঠনিক নির্দেশনা দেওয়া হয়েছে তৃণমূল নেতাদের।বর্ধিত সভায় অংশ নেওয়া তৃণমূলের একাধিক নেতৃবৃন্দ বলেন, কেন্দ্রের দিকনির্দেশনা অনুযায়ী মাঠ পর্যায়ে ছাত্রলীগকে গতিশীল সংগঠনে পরিণত করা হবে। অনলাইন ও মাঠের রাজনীতিতে যুগপৎভাবে এগিয়ে নিয়ে যাবে ছাত্রলীগ।তৃণমূলের মতামতের গুরুত্ব সম্পর্কে ছাত্রলীগ সভাপতি সাদ্দাম হোসেন বলেন, ‘বাংলাদেশের বিভিন্ন প্রান্তের সাংগঠনিক ইউনিটের নেতৃবৃন্দের মতামত গ্রহণ করেছি। সাংগাঠনিক কাজে অংশীদারমূলক নেতৃত্ব কেন্দ্র নিশ্চিত করতে চায়।’ছাত্র রাজনীতিকে স্মার্ট ও আধুনিক হতে হবে মন্তব্য করে সাদ্দাম হোসেন আরও বলেন, স্মার্ট বাংলাদেশের প্রশ্নে বাংলাদেশের ছাত্রসমাজ ও তরুণ প্রজন্মকে ঐক্যবদ্ধ করতে বছরের প্রথমদিনে বিশেষ বর্ধিত সভার আয়োজন করা হয়েছে।তিনি বলেন, শেখ হাসিনার নেতৃত্বে শহর ও গ্রামের মাঝে বৈষম্য একেবারেই কমে এসেছে। প্রযুক্তিকে ব্যবহার করে সাবলম্বী হচ্ছে। ছাত্রলীগের কর্মীরাও যেন স্মার্ট উদোক্তা হয়ে উঠে। একইসঙ্গে শ্রম শিল্প থেকে মেশিননির্ভর শিল্পে বাংলাদেশের ছাত্রসমাজকে তৈরি করা প্রয়োজন।বিরোধীদলের উদ্দেশ্যে ছাত্রলীগের অবস্থান সম্পর্কে ছাত্রলীগ সভাপতি বলেন, খুনের রাজনীতি, জঙ্গিবাদের রাজনীতি, দুর্নীতিবাজদের পুনর্বাসন রাজনীতির বিরুদ্ধে অবস্থান নিয়ে তাদের রাজনীতি থেকে মূলোৎপাটন করতে হবে। স্মার্ট বাংলাদেশের ধারণা নিয়ে তাদের রাজনৈতিকভাবে পরাজিত করতে হবে।তিনি বলেন, সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমের প্রসারের ফলে ফেসবুককে ব্যবহার করে ফেকনিউজ সংঘবদ্ধ চক্র গুজব-প্রোপাগান্ডা ছড়ায়। জনগণের থেকে বিচ্ছিন্ন হয়ে বিএনপি-জামায়াত গুজবের আশ্রয় নিয়ে প্রোপাগান্ডা ছড়াচ্ছে। এই গুজব-প্রোপাগান্ডার বিরুদ্ধে সোচ্চার হতে হবে। ফেকনিউজের মাধ্যমে সাম্প্রদায়িক দাঙ্গা ছড়ায়।এসব বিষয়ে নেতাকর্মীদের কথা...


Dec 31, 2022

জাতীয়

নতুন বছরকে কেন্দ্র করে বিধি-নিষেধ আরোপ

নতুন বছরকে কেন্দ্র করে বিধি-নিষেধ আরোপ

সারাবিশ্বেই থার্টি ফার্স্ট বা নতুন বছরের প্রথম ক্ষণটি নানা অনুষ্ঠানের মধ্য দিয়ে উদযাপন হয়। নতুন বছর ২০২৩  উদযাপন উপলক্ষে এসব অনুষ্ঠান ঘিরে অনাকাঙ্ক্ষিত ঘটনা এড়াতে ঢাকা মহানগর পুলিশ বরাবরের মতো কিছু বিধি-নিষেধ আরোপ করেছে।শনিবার সন্ধ্যা থেকে  ঢাকার সব বার বন্ধ করতে বলা হয়েছে; নিষিদ্ধ করা হয়েছে ফানুস ওড়ানো। উন্মুক্ত স্থানে কোনো ধরনের অনুষ্ঠান আয়োজনও নিষিদ্ধ করা হয়েছে । কোথাও কোনো ধরনের আতশবাজি কিংবা পটকা ফোটানো যাবে না বলেও জানিয়েছেন ডিএমপি কমিশনার খন্দকার গোলাম ফারুক বলেন।২০২৩ সাল শুরুর আগের দিন শনিবার ডিএমপির মিডিয়া সেন্টারে সংবাদ সম্মেলনে ডিএমপি কমিশনার খন্দকার গোলাম ফারুক বলেন, “নতুন বছরকে কেন্দ্র করে অনেকেই ফানুস ওড়ান। আমরা এটা ওড়াতে নিষেধ করছি, কারণ এটার কারণে অনেক দুর্ঘটনা ঘটে। এটা কেউ ওড়ালে তার বিরুদ্ধে আইনানুগ ব্যবস্থা নেওয়া হবে।”শনিবার সন্ধ্যা ৬টা থেকে পরের দিন সন্ধ্যা ৬টা পর্যন্ত ঢাকা মহানগরীর সব বার বন্ধ রাখতে বলা হয়েছে বলে জানান গোলাম ফারুক।ডিএমপি  কমিশনার আরও বলেন, বিভিন্ন আবাসিক হোটেল, রেস্তোরাঁ ও উৎসবস্থলে লাইসেন্সকৃত আগ্নেয়াস্ত্রও বহন করা যাবে না। উন্মুক্ত স্থানে কোনো ধরনের অনুষ্ঠান, সমাবেশ, কোনো সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান কিংবা ডিজে পার্টি আয়োজন করা যাবে না । তবে ইনডোর অনুষ্ঠান করা যাবে বলে জানান তিনি।বিনোদন কেন্দ্র হাতিরঝিল এলাকায় হৈ হুল্লোড়, সীমা অতিক্রম করে গাড়ি চালানো, মোটর সাইকেলে রেস করা যাবে না এবং গুলশান, বনানী ও বারিধারা এলাকায় রাত ৮টার পর বহিরাগতদের প্রবেশ করতে দেওয়া হবে না। এসব এলাকায় বসবাসরতদের নির্ধারিত সময়ের পর কামাল আতাতুর্ক এভিনিউ (কাকলী ক্রসিং) এবং মহাখালী ক্রসিং ব্যবহার করার অনুরোধ জানান ডিএমপি কমিশনার।ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় এলাকায় সন্ধ্যা ৬টার পরে বহিরাগত কোনো ব্যক্তিকে বা যানবাহন প্রবেশ করতে দেওয়া হবে না বলে জানিয়ে ডিএমপি কমিশনার বলেন, “শুধুমাত্র ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের স্টিকারযুক্ত যানবাহন পরিচয় প্রদান সাপেক্ষে প্রবেশ করতে পারবে।”রাত ৮টার মধ্যে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষক, শিক্ষক-শিক্ষার্থী-কর্মকর্তা-কর্মচারীদের বিশ্ববিদ্যালয় এলাকায় প্রবেশ করার অনুরোধও করেন তিনি।এসব বিধি-নিষেধের কথা জানিয়ে ডিএমপি কমিশনার খন্দকার গোলাম ফারুক বলেন, “এর ব্যতয় ঘটলে আইনানুগ ব্যবস্থা নেওয়া হবে।”...


Nov 21, 2022

রাজধানী

মৃত্যুদণ্ডপ্রাপ্ত দুই জঙ্গিকে ছিনিয়ে নেওয়ার ঘটনায় পাঁচ পুলিশ সদস্যকে সাময়িক বরখাস্ত

মৃত্যুদণ্ডপ্রাপ্ত দুই জঙ্গিকে ছিনিয়ে নেওয়ার ঘটনায় পাঁচ পুলিশ সদস্যকে সাময়িক বরখাস্ত

পুরান ঢাকার জনাকীর্ণ আদালত থেকে নিষিদ্ধ জঙ্গি সংগঠন আনসার আল ইসলামের (আনসারুল্লাহ বাংলা টিম)  মৃত্যুদণ্ডপ্রাপ্ত দুই জঙ্গিকে ছিনিয়ে নেওয়ার ঘটনায় পাঁচ পুলিশ সদস্যকে সাময়িক বরখাস্ত করা হয়েছে।সাধারণ আসামিদের মতো পৃথক হ্যান্ডকাপে বেঁধে মৃত্যুদণ্ডপ্রাপ্ত বেশ কয়েক জঙ্গি আসামিকে আদালতে আনা হয়। যাদের নিরাপত্তায় অতিরিক্ত পুলিশ কিংবা তাদের ডাণ্ডাবেড়ি পরানো ছিল না। এই জঙ্গিদের মোহাম্মদপুর থানার সন্ত্রাসবিরোধী আইনের একটি মামলায় কারাগার থেকে আদালতে আনা হয়েছিল।রোববার ভরদুপুরে পুরান ঢাকার জনাকীর্ণ আদালত থেকে নিষিদ্ধ জঙ্গি সংগঠন আনসার আল ইসলামের (আনসারুল্লাহ বাংলা টিম) নেতা মইনুল হাসান শামীম ওরফে সামির ওরফে ইমরান এবং আবু সিদ্দিক সোহেল ওরফে সাকিব ওরফে সাজিদ ওরফে শাহাবকে ছিনিয়ে নিয়ে যায় তাদের সহযোগীরা।দুই জঙ্গিকে ছিনিয়ে নেওয়ার ঘটনায় পাঁচ পুলিশ সদস্যকে সাময়িক বরখাস্ত করা হয়েছে। সাময়িক বরখাস্তরা হলেন- সিএমএম আদালতের হাজতখানার কোর্ট ইন্সপেক্টর মতিউর রহমান, হাজতখানার ইনচার্জ এসআই নাহিদুর রহমান, আসামিদের আদালতে নেওয়ার দায়িত্বে থাকা পুলিশের এটিএসআই মহিউদ্দিন, কনস্টেবল শরিফুল হাসান ও কনস্টেবল আব্দুস সাত্তার। আজ সোমবার (২১ নভেম্বর) দুপুরে ডিএমপির প্রসিকিউশন বিভাগের উপপুলিশ কমিশনার জসিম উদ্দিন গণমাধ্যমকে এ তথ্য জানান।এদিকে আজ দুপুর সাড়ে ১২টায় ডিএমপি মিডিয়া সেন্টারে সংবাদ সম্মেলনে ঢাকা মেট্রোপলিটন পুলিশের (ডিএমপি) অতিরিক্ত কমিশনার (ডিবি) হারুন-অর-রশীদ বলেন, জঙ্গি ছিনিয়ে নেওয়ার ঘটনার সঙ্গে জড়িতরা নজরদারিতে রয়েছেন। সবাইকে আইনের আওতায় নিয়ে আসা হবে।তিনি বলেন, যেকোনো সময় তাদের গ্রেপ্তার করা হবে। আসামিরা যাতে পালাতে না পারে সেজন্য ইতোমধ্যে পুলিশ প্রধান রেড অ্যালার্ট জারি করেছে। এছাড়া জঙ্গিদের আনা-নেওয়ার ক্ষেত্রেও সতর্কতা অবলম্বন করা হচ্ছে বলেও জানান তিনি।সন্ত্রাসবিরোধী বিশেষ ট্রাইব্যুনাল শুনানি শেষে হাজতখানায় নেওয়ার সময় পুলিশের দিকে ‘স্প্রে মেরে’ তাদেরকে ছিনিয়ে নেওয়া হয়। শামীম ও সিদ্দিক দুজনই প্রকাশনীর প্রকাশক ফয়সল আরেফিন দীপন হত্যা মামলায় মৃতুদণ্ডপ্রাপ্ত আসামি। লেখক অভিজিৎ রায় হত্যা মামলাতেও আবু সিদ্দিক সোহেলের ফাঁসির রায় হয়েছে।এক সুত্রে জানা জায়,আনসার আল ইসলামের শীর্ষ নেতা সেনাবাহিনীর বরখাস্ত মেজর সৈয়দ জিয়াউল হকের নির্দেশে জঙ্গিরা পুলিশের ওপর হামলা চালিয়ে আসামিদের ছিনিয়ে নেওয়ার পরিকল্পনা করে। সে অনুযায়ী দুটি মোটরসাইকেলে অজ্ঞাতনামা ৫/৬ জন সদস্য অবস্থান নেয়।এছাড়া আরও ১০/১২ জন আনসার আল ইসলামের...


Nov 20, 2022

রাজধানী

রাজধানীতে রেড অ্যালার্ট- ডিএমপি

রাজধানীতে রেড অ্যালার্ট- ডিএমপি

রাজধানীতে রেড অ্যালার্ট জারি করেছে ঢাকা মেট্রোপলিটন পুলিশ (ডিএমপি)। ঢাকার চিফ জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালতের প্রধান ফটকের সামনে থেকে ছিনতাই করে নিয়ে যাওয়া দুই জঙ্গিকে গ্রেপ্তারে রাজধানীতে রেড অ্যালার্ট জারি করা হয়েছে।রবিবার (২০ নভেম্বর) দুপুর ১২টার দিকে ঢাকার চিফ জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালতের প্রধান ফটকের সামনে থেকে দুই জেএমবি জঙ্গি ছিনতাই করে। ছিনিয়ে নেয়া দুই আসামি হলেন মইনুল হাসান শামীম ও আবু সিদ্দিক সোহেল। শামীমের বাড়ি সুনামগঞ্জের ছাতকের মাধবপুর গ্রামে। সোহেলের বাড়ি লালমনিরহাটের আদিতমারীর ভেটোশ্বর গ্রামে।দুজনই জামাআতুল মুজাহিদীন বাংলাদেশের (জেএমবি) সদস্য। তাদের ধরতে রাজধানীর বিভিন্ন জায়গায় চেকপোস্ট বসানো হয়েছে বলে জানিয়েছে পুলিশ।প্রকাশক ফয়সাল আরেফিন দীপন এবং লেখক ও ব্লগার অভিজিৎ রায় হত্যা মামলায় মৃত্যুদণ্ডপ্রাপ্ত আবু ছিদ্দিক সোহেল ও মঈনুল হাসান শামীম নামে দুই জঙ্গিকে অপহরণ করেছে জঙ্গিরা। দীপন হত্যা মামলায় মৃত্যুদণ্ডপ্রাপ্ত দুই জঙ্গি।ডিএমপি কমিশনার খন্দকার গোলাম ফারুক বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।  তিনি বলেন, আমরা রেড অ্যালার্ট জারি করেছি। এই ঘটনায় একটি তদন্ত কমিটি করা হয়েছে। এছাড়াও বিভিন্ন চেকপোস্টে সন্দেহভাজনদের গাড়ি থামিয়ে তল্লাশি করতে বলা হয়েছে। এরই মধ্যে পলাতক দুই সন্ত্রাসীর ছবি পাঠানো হয়েছে সব থানায়।এদিকে ঢাকা মহানগর পুলিশের (ডিএমপি) গোয়েন্দা শাখার (ডিবি) প্রধান হারুন অর রশিদ আদালত চত্বর থেকে আসামি ছিনতাইয়ের ঘটনাকে অপ্রত্যাশিত বলে অভিহিত করেছেন। শিগগিরই তাদের গ্রেফতার করা হবে বলেও জানান এই পুলিশ কর্মকর্তা।তিনি আরও বলেন, পুলিশ সদস্যরা নিরাপত্তায় নিয়োজিত হলে এসব ঘটনা ঘটে।প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, আদালতের প্রধান ফটকের সামনে পুলিশকে স্প্রে করে মোটরসাইকেলযোগে দুই জঙ্গি ছিনিয়ে নিয়ে যায়। মোটরসাইকেলের চালক ছিলেন অন্য একজন। পলাতক দুই জঙ্গিকে ধরতে রাজধানীর বিভিন্ন এলাকায় চেকপোস্ট বসানো হয়েছে বলে জানিয়েছে পুলিশ। প্রতিটি থানা ও অন্যান্য ইউনিটকে চেকপোস্ট বসানোর নির্দেশ দেওয়া হয়েছে।এদিকে রোববার (২০ নভেম্বর) সচিবালয়ে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী সাংবাদিকদের বলেন, আদালত চত্বর থেকে দুই জঙ্গিকে ছিনিয়ে নেওয়ার ঘটনায় কেউ গাফিলতি করলে ব্যবস্থা নেওয়া হবে।স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আরও বলেন, অপহরণের পরপরই তাদের ধরতে রেড অ্যালার্ট জারি করা হয়েছে। পুলিশ তাদের খুঁজছে।আশা করি তারা শিগগিরই ধরা পড়বে।এ বিষয়ে তদন্ত কমিটি গঠন করা হবে জানিয়ে মন্ত্রী বলেন, তদন্তের পর বিস্তারিত বলা যাবে।...


Sep 29, 2022

জাতীয়,খেলা

গণমাধ্যমের উচিত দেশের অগ্রগতির সংবাদ জনগণকে সঠিকভাবে  জানানো - তথ্যমন্ত্রী

গণমাধ্যমের উচিত দেশের অগ্রগতির সংবাদ জনগণকে সঠিকভাবে জানানো - তথ্যমন্ত্রী

তথ্য ও সম্প্রচারমন্ত্রী ড. হাছান মাহমুদ বলেছেন, উন্নয়ন-অগ্রগতি এবং একইসঙ্গে ভুলত্রুটি দু’টিই তুলে ধরা গণমাধ্যমের দায়িত্ব। কিন্তু অনেক ক্ষেত্রে সেটি না হয়ে একপেশে হয়ে যায়। সেটি দেশ ও সমাজকে উপকৃত করে না। যখন জাতির কোনো অর্জন হয়, সেই অর্জনের চিত্রটি যেন সঠিকভাবে প্রকাশিত হয় তা লক্ষ্য রাখা গণমাধ্যমের দায়িত্ব। বৃহস্পতিবার (২৯ সেপ্টেম্বর) দুপুরে রাজধানীর তোপখানা রোডে জাতীয় প্রেসক্লাবে দৈনিক নতুন আশা পত্রিকা নবআঙ্গিকে উদ্বোধন অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তৃতায় তিনি একথা বলেন।হাছান মাহমুদ বলেন, কোনো কোনো প্রচার মাধ্যম বা টেলিভিশনেও দেখা যায় যে, অনেক সময় ছোট বিষয়কে বড় করে দেখানো হয় কিন্তু অনেক গুরুত্বপূর্ণ বিষয় দেখানো হয় না। আবার সরকারের অনেক অর্জন ছাপা হয় তৃতীয় পাতায় আর ভুলত্রুটি স্থান পায় প্রথম পাতায়। সেটি দেশ ও সমাজকে উপকৃত করে না। এজন্য সবার সচেতন থাকা দরকার। মানুষের কাছে শুধু হতাশার চিত্র উপস্থাপন করা হলে জাতি হতাশ হবে। সে ক্ষেত্রে চ্যালেঞ্জ মোকাবিলা করে সামনের দিকে এগিয়ে যাওয়া সম্ভবপর নয় যা আশাবাদী হলে সম্ভব।  নতুন আঙ্গিকে প্রকাশিত নতুন আশা পত্রিকা মানুষের মধ্যে আশা জাগাবে, শুধুমাত্র হতাশার চিত্র তুলে ধরবে না আশা ব্যক্ত করে ড. হাছান বলেন, ‘আমাদের সরকার গণমাধ্যমবান্ধব সরকার। জননেত্রী শেখ হাসিনা মনে করেন, গণমাধ্যমের বিকাশের মাধ্যমে বহুমাত্রিক গণতান্ত্রিক সমাজের ভিত মজবুত হয়, সে কারণে গণমাধ্যমের বিকাশের স্বার্থে যা কিছু করা দরকার আমাদের সরকার করছে।’ তথ্য-উপাত্ত তুলে ধরে মন্ত্রী হাছান বলেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ২০০৯ সালে সরকার গঠনের সময় দেশে দৈনিক পত্রিকা ছিল সাড়ে ৪শ’, আজকে সেটি সাড়ে ১২শ’র উপরে। বেসরকারি টেলিভিশনের যাত্রাও শুরু প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে ১৯৯৬ সালে। ২০০৯ সালে আবার তিনি সরকার গঠনের সময় বেসরকারি টিভি ছিল ১০টি। আজকে ৪৬টি লাইসেন্স দেওয়া আছে। অনলাইন পত্রিকা রেজিস্ট্রেশনের জন্য ৫ হাজার আবেদন পড়েছে। আগে হাতেগোনা কয়েকটি ছিল। এভাবে গত প্রায় চৌদ্দ বছরে গণমাধ্যমের ব্যাপক বিকাশ ঘটেছে।মন্ত্রী বলেন, আমরা মনে করি বহুমাত্রিক গণতান্ত্রিক সমাজ ব্যবস্থার ভিত প্রতিষ্ঠায় গণমাধ্যমের ভুমিকা রয়েছে। তাই গণমাধ্যমের বিকাশে যা কিছু করা দরকার সরকার সেটি করছে। সাংবাদিকদের জন্য সাংবাদিক কল্যাণ ট্রাস্ট...


Sep 07, 2022

রাজধানী

তিন রঙে চিহ্নিত হবে ডিএসসিসি সড়ক : তাপস

তিন রঙে চিহ্নিত হবে ডিএসসিসি সড়ক : তাপস

ঢাকা দক্ষিণ সিটি করপোরেশনের (ডিএসসিসি) আওতাধীন সড়কগুলো গুরুত্ব অনুযায়ী লাল, হলুদ ও সবুজ তিনটি রঙে চিহ্নিত করা হবে।ডিএসসিসির মেয়র শেখ ফজলে নূর তাপস জানান, ‘আগামী সপ্তাহ থেকে শনাক্তকরণের কাজ শুরু হবে। সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ সড়কগুলোকে আমরা লাল রং দিয়ে চিহ্নিত করবো। আগামী সপ্তাহ থেকে আমরা এ ধরনের সড়কে কোনও হকার বসতে দেব না। এসব সড়কে হকার উচ্ছেদ অভিযান শুরু হবে। তিনি বলেন, আগামী সপ্তাহ থেকে লাল চিহ্নিত সড়ক ও হাঁটার পথ থেকে হকার সরানোর প্রক্রিয়া শুরু হবে। কিছু রাস্তাও তাদের গুরুত্ব অনুযায়ী হলুদ ও সবুজ চিহ্নিত করা হবে।বুধবার (৭ সেপ্টেম্বর) রাজধানীর বঙ্গবন্ধু এভিনিউতে হকার্স মার্কেটের নির্মাণ কাজের উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে মেয়র এসব কথা বলেন।তিনি আরও বলেন, ‘আমরা এ হকার্স মার্কেটেকে দশতলা বিপনি-বিতান করবো যেখানে আমাদের হকারদের পুনর্বাসন করা হবে। এটি একটি দীর্ঘ প্রত্যাশা ছিল। বিভিন্ন কারণে যা বাস্তবায়িত হয়নি। এ মার্কেট ভবনের নির্মাণ কাজ আগামী দুই বছরের মধ্যে সম্পন্ন হবে। ‘খেলার মাঠ ও পার্কে অবৈধ ব্যবসা প্রতিষ্ঠান নির্মাণের বিষয়ে সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে মেয়র তাপস বলেন, ‘আমরা মাঠ ও পার্ক নিয়ে হাজার প্রতিকূলতা পার করছি। আমরা যদি কোনও সুনির্দিষ্ট এলাকায় সুনির্দিষ্ট মাঠে ও পার্কের বিষয়ে অভিযোগ পাই তা উদ্ধারে আমরা অভিযান পরিচালনা করবো।উচ্ছেদ অভিযানের ভবিষ্যৎ পরিকল্পনা সম্পর্কে মেয়র আরও বলেন, ‘আমরা একটি সুনির্দিষ্ট উচ্ছেদ অভিযান পরিচালনা করছি।’ যেমন রাজউকের শিল্পায়নের পর, সড়কটি এখন পর্যন্ত সংস্কার করা হয়নি, কদমাতলী, শ্যামপুর এলাকায় আমরা নিজস্ব অর্থায়নে ১৫৬ কোটি টাকা দিয়ে রাস্তা নির্মাণ করেছি। যেখানে কোমর-গভীর নোংরা পানি ছিল, সেখানে শ্রমিকদের কাজ করতে অসুবিধা হচ্ছে। আমরা রাস্তাটি সংস্কার করেছি। আমাদের নিজস্ব অর্থায়নে আমরা যে রাস্তায় হাঁটার জন্য পর্যাপ্ত ব্যবস্থা করছি।ডিএসসিসি মেয়র আরও বলেন, আপনারা জানেন প্রতি বুধবার আমরা ঢাকা শহরের বিভিন্ন এলাকা পরিদর্শন করি। এর পরিপ্রেক্ষিতে আমি নিমাতলী এলাকায় রাস্তা প্রশস্তকরণের কাজ শুরু করেছি এবং পরে পুরাতন বুড়িগঙ্গায় উচ্ছেদ প্রক্রিয়া পরিদর্শন করেছি।এ সময় অন্যান্যের মধ্যে আরও উপস্থিত ছিলেন করপোরেশনের প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা ফরিদ আহাম্মদ, করপোরেশনের সচিব আকরামুজ্জামান, প্রধান প্রকৌশলী সালেহ আহম্মেদ, অঞ্চল-১ এর আঞ্চলিক নির্বাহী কর্মকর্তা মেরীনা...


Sep 05, 2022

শিক্ষা

এ বছর সকাল ১১টায় শুরু হবে এসএসসি ও সমমানের পরীক্ষা

এ বছর সকাল ১১টায় শুরু হবে এসএসসি ও সমমানের পরীক্ষা

আগামী ১৫ সেপ্টেম্বর থেকে এসএসসি ও সমমানের পরীক্ষা শুরু হবে। সড়কে যানজটের কথা বিবেচনা করে এবারের এসএসসি পরীক্ষা সকাল ১০টার পরিবর্তে সকাল ১১টায় শুরু হবে বলে জানিয়েছেন শিক্ষামন্ত্রী ড. দীপু মনি।পরীক্ষা সুষ্ঠুভাবে আয়োজন ও প্রশ্নপত্র ফাঁস এড়াতে ১২ সেপ্টেম্বর থেকে ২ অক্টোবর পর্যন্ত দেশের সব কোচিং সেন্টার বন্ধ রাখারও নির্দেশ দেওয়া হয়েছে।সোমবার (৫ সেপ্টেম্বর) জাতীয় মনিটরিং ও আইনশৃঙ্খলা কমিটির বৈঠক শেষে শিক্ষামন্ত্রী ড. দীপু মনি এ তথ্য জানান।শিক্ষামন্ত্রী বলেন, এবার পরীক্ষা হবে ২ ঘণ্টার। এর মধ্যে এমসিকিউ ২০ মিনিট, লিখিত ১ ঘণ্টা ৪০ মিনিট। পরীক্ষার প্রশ্নপত্র ফাঁস এড়াতে পরীক্ষা শুরুর ২৫ মিনিট আগে কেন্দ্রের দায়িত্বে থাকা ব্যক্তির মোবাইলে পরীক্ষার সেট কোড পৌঁছে যাবে। তিনি স্মার্ট ফোন নয়, ফিচার ফোন সঙ্গে রাখতে পারবেন। তিনি ছাড়া আর কেউ মোবাইল ব্যবহার করতে পারবেন না।তিনি বলেন, অনিবার্য কারণে কোনো পরীক্ষার্থীকে নির্দিষ্ট সময়ের পরে প্রবেশ করতে দিলে তাদের নাম, রোল নম্বর, প্রবেশের সময়, বিলম্ব হওয়ার কারণ ইত্যাদি একটি রেজিস্ট্রারে লিপিবদ্ধ করে ওইদিনই সংশ্লিষ্ট শিক্ষা বোর্ডে প্রতিবেদন দিতে হবে।মন্ত্রী জানান, দৃষ্টি ও শ্রবণ প্রতিবন্ধী এবং হাত নেই এমন প্রতিবন্ধী পরীক্ষার্থীরা নির্ধারিত সময়ের চেয়ে ১৫ মিনিট বেশি সময় পাবে।অন্যদিকে অটিস্টিক, ডাউন সিনড্রোম এবং সেরিব্রাল পালসিতে আক্রান্ত পরীক্ষার্থীরা অতিরিক্ত ২০ মিনিট সময় পাবে পরীক্ষা দিতে। আর সব ধরনের প্রতিবন্ধী পরীক্ষার্থীদের জন্য শ্রুতি লেখক সঙ্গে নিয়ে পরীক্ষায় অংশগ্রহণের সুযোগ রয়েছে বরাবরের মত।পরীক্ষার্থীদের পরিসংখ্যান তুলে ধরে মন্ত্রী জানান, চলতি বছরে এসএসসি ও সমমান পরীক্ষায় ২০ লাখ ২১ হাজার ৮৬৮ জন শিক্ষার্থীর অংশ নেবে। সাধারণ ৯টি বোর্ডের অধীনে ১৫ লাখ ৯৯ হাজার ৭১১ জন পরীক্ষার্থী রয়েছে। এর বাইরে দাখিলে ২ লাখ ৬৮ হাজার ৪৯৫ জন আর কারিগরি শিক্ষা বোর্ডের অধীনে এসএসসি ও দাখিল ভোকেশনালে ১ লাখ ৬৩ হাজার ৬৬২ পরীক্ষার্থী পরীক্ষায় বসবে। এবার মোট কেন্দ্র সংখ্যা ৩ হাজার ৭৯০টি। এরমধ্যে বিদেশের কেন্দ্র সংখ্যা ৮টি।২০২১ সালের তুলনায় এবছর পরীক্ষার্থী কমেছে ২ লাখ ২১ হাজার ৩৮৬ জন। মোট প্রতিষ্ঠান বেড়েছে ৫৫৬টি এবং কেন্দ্র বেড়েছে ১১১টি। পরীক্ষা শেষ হওয়ার ৬০ দিনের মধ্যেই ফলাফল প্রকাশ...


Aug 14, 2022

জাতীয়

'জাতীয় শোক দিবসে প্রধানমন্ত্রীর নিরাপত্তা ব্যবস্থা জোরদার'

'জাতীয় শোক দিবসে প্রধানমন্ত্রীর নিরাপত্তা ব্যবস্থা জোরদার'

ঢাকা মেট্রোপলিটন পুলিশ (ডিএমপি) কমিশনার মোহা. শফিকুল ইসলাম বলেছেন, পৃথিবীতে যত প্রধানমন্ত্রী আছেন তার মধ্যে সবচেয়ে বেশি ঝুঁকিতে আছেন আমাদের প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। প্রধানমন্ত্রী একাধিকবার হামলার শিকার হয়েছেন। তাকে হত্যার চেষ্টা করা হয়েছে। সেজন্য তার নিরাপত্তার ঝুঁকি থেকেই যায়। রবিবার (১৪ আগস্ট) দুপুরে জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ৪৭তম শাহাদাৎবার্ষিকী এবং জাতীয় শোক দিবসের নিরাপত্তা ব্যবস্থা পরিদর্শন শেষে সাংবাদিকদের এক প্রশ্নের জবাবে ডিএমপি কমিশনার এ কথা বলেন।ডিএমপি কমিশনার আরও বলেন, দৃশ্যমান বা অদৃশ্যমান কোনো জঙ্গি হামলার আশঙ্কা নেই। তবে প্রকট ঝুঁকি মাথায় রেখেই প্রধানমন্ত্রীর নিরাপত্তা নিশ্চিত করতে তৈরি করা হবে বিশেষ নিরাপত্তা বলয়। আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনী, সোয়াটসহ গোয়েন্দা সংস্থার সদস্য মোতায়েন করা হবে। লেকে নৌ-টহলও অবস্থান করবে।ডিএমপি কমিশনার বলেন, আমার অনুরোধ থাকবে মানুষ যেন ব্যাগ ও বাক্স নিয়ে না আসে এবং প্রবেশ করার চেষ্টা না করে। কোভিডের ঝুঁকি চলে গেছে বলতে পারি না। যারা এখানে আসবেন অনুরোধ করবো নিজের নিরাপত্তার কথা ভেবে মাস্ক পরে আসবেন।ডিএমপি কমিশনার বলেন, ৩২ নম্বরকে কেন্দ্র করে নিরাপত্তাবলয় তৈরি করা হয়েছে। পুলিশ কন্ট্রোল রুম, মেডিকেল ক্যাম্প, ওয়াসা থেকে সুপেয় পানির ব্যবস্থা রয়েছে।মোহা. শফিকুল ইসলাম বলেন, রাসেল স্কয়ারের দিক দিয়ে জনসাধারণ ৩২ নম্বরে প্রবেশ করবে এবং পশ্চিম দিক দিয়ে বের হয়ে যাবে। চারদিকে নিরাপত্তা বেস্টনীর সঙ্গে সঙ্গে ট্রাফিক নিয়ন্ত্রণের ব্যারিকেড থাকবে। নির্ধারিত রুটম্যাপ অনুসরণ করে আসলে সবাই কম সময়ে শ্রদ্ধা নিবেদন শেষে চলে যেতে পারবে। এর বাইরে রোড লাইনিং, ছাদে পুলিশ সদস্য মোতায়েনসহ সাদা পোশাকে বিভিন্ন গোয়েন্দা সংস্থার সদস্যরা দায়িত্ব পালন করবে। সিটিটিসিও তাদের গোয়েন্দা তৎপরতা অব্যাহত রেখেছে। মোবাইল পেট্রোল থাকবে, মানুষজন যাতে ৩২ নম্বরে ঢোকার আগে যথাযথ নিরাপত্তা তল্লাশি হয়, সেজন্য আর্চওয়ে, মেটাল ডিটেক্টরের মাধ্যমে তল্লাশি করা হবে।আমাদের বোম্ব ডিসপোজাল ও সোয়াত টিম সবসময় প্রস্তুত থাকে। এখানে স্থাপিত কন্ট্রোলরুম থেকে সবকিছু মনিটরিং করা হবে। যাতে সার্বক্ষণিক আমরা দেখতে পারি এবং যখন যেখানে প্রয়োজন ব্যবস্থা নিতে পারি।...


Aug 01, 2022

জাতীয়

উন্নত প্রযুক্তির কিউআর কোড জ্যাকেট দেওয়া হল ডিবি সদস্যদের

উন্নত প্রযুক্তির কিউআর কোড জ্যাকেট দেওয়া হল ডিবি সদস্যদের

ঢাকা মেট্রোপলিটন গোয়েন্দা পুলিশের (ডিবি) জ্যাকেটে যুক্ত হয়েছে উন্নত প্রযুক্তির কিউআর কোড (দ্রুত প্রতিক্রিয়া)। ডিবির সব সদস্যকে পৃথক কোড সংযুক্ত করে এ জ্যাকেট দেওয়া হয়েছে।সোমবার (১ আগস্ট) দুপুরে ডিএমপি মিডিয়া সেন্টারে সাংবাদিকদের এ কথা জানান ঢাকা মেট্রোপলিটন গোয়েন্দা (ডিবি) পুলিশের অতিরিক্ত পুলিশ কমিশনার মোহাম্মদ হারুন অর রশীদ।তিনি বলেন, “আজ থেকে আমাদের ডিবির সব সদস্যদের পৃথক কিউআর কোড সংবলিত নতুন জ্যাকেটে যুক্ত করা হয়েছে। এ জ্যাকেটে কর্মকর্তাদের তথ্য আগে থেকেই জমা থাকবে ডিবির নিজস্ব সার্ভারে।মোবাইল অ্যাপ দিয়ে সদস্যের কিউআর কোড স্ক্যান করলেই তাদের পরিচয় চলে আসবে। আর যদি কোনো ভুয়া ডিবির পোশাকের কোড স্ক্যান করা হয় তাহলে ‘ইনভ্যালিড কিউআর কোড’ নামে একটি বার্তা দেখা যাবে।”মোহাম্মদ হারুন অর রশীদ বলেন, আগে ডিএমপির ডিবি পুলিশ যে জ্যাকেট পরিধান করে অভিযান চালাত তা বেশ পুরোনো। দীর্ঘদিন ধরে এ জ্যাকেট ব্যবহারের ফলে অনেক প্রতারক চক্র বাইরে থেকে এটি তৈরি করে অপরাধমূলক কর্মকাণ্ডে ব্যবহার করে। অনেক সময় মানুষকে ফাঁদে ফেলারও অভিযোগ পাওয়া যায়। বিভিন্ন সময় জ্যাকেটটির হুবহু কপি ভুয়া ডিবি সদস্যদের কাছে পাওয়া গেছে।ডিবি প্রধান বলেন, “ভবিষ্যতে কেউ যেন এভাবে প্রতারণার শিকার না হতে হয় সেজন্য ডিবিতে সংযোজন করা হয়েছে নতুন জ্যাকেট। কিউআর কোড ছাড়াও পোশাকে এমন কিছু নিরাপত্তামূলক ব্যবস্থা রয়েছে যার ফলে জ্যাকেটটি জালিয়াতি করা অসম্ভব হবে।”যা থাকছে নতুন জ্যাকেটেডিএমপি ডিবির নতুন জ্যাকেটে এ প্রথম গোপনীয় নম্বর, গোয়েন্দা বিভাগ এবং ঢাকা মেট্রোপলিটন পুলিশের সমন্বয়ে কুইক রেসপন্স কোড বা কিউআর কোডের ব্যবস্থা থাকছে। সন্দেহ হলেই যে কেউ ডিবি পোশাকে থাকা কিউআর কোড স্ক্যান করে ওই ব্যক্তি ডিবির প্রকৃত সদস্য কি না তা শনাক্ত করতে পারবে।নতুন জ্যাকেটে ডিবি এবং ঢাকা মেট্রোপলিটন পুলিশের রঙিন লোগো ব্যবহার করা হচ্ছে যা সহজেই দৃশ্যমান হবে।জ্যাকেটে রাত্রিকালীন আলোতে দূর থেকে ডিবি পুলিশের উপস্থিতি বোঝা যাবে।নতুন ডিবি জ্যাকেটে বিভিন্ন পকেটের সুবিধা রয়েছে অভিযানকালে ডিবি সদস্যরা প্রয়োজনীয় নোটবুক, কলম ও কাগজপত্র নিরাপদে রাখতে পারবেন।  ...